• শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৭:২৭ পূর্বাহ্ন
/ Uncategorized

কালিয়ায় পিএসটিসি-বালিকা প্রকল্পের এডভোকেসী সভা অনুষ্ঠিত

প্রতিবেদকের নাম / ১০৯৫ বার পঠিত
প্রকাশকাল : মঙ্গলবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৩

Norayel-Mapকালিয়া (নড়াইল) প্রতিনিধি : রাজকীয় নেদারল্যান্ড সরকারের অর্থায়নে পিএসটিসি-বালিকা প্রকল্পের উদ্যোগে নড়াইলের কালিয়া উপজেলাধীন নড়াগাতী থানার জয়নগরে এক এ্যাডভোকেসী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১২-১৫ বছর বয়সী বিদ্যালয়গামী ও ১২-১৯ বছর বয়সী বিদ্যালয় থেকে ঝরেপড়া কিশোরীদের উন্নত জীবন-যাপনের সুযোগ সৃষ্টির লক্ষ্যে শিক্ষা, জীবন দক্ষতা, জীবিকা ও এলাকার জনগণের মাঝে গতিশীলতার জন্য এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
জয়নগর ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আইউব হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন নড়াগাতী মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মোঃ মাসুদুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন জে,এ,চৌধুরী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কালিদাস বিশ্বাস। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রভাষক ইলিায়াস চৌধুরী, এ্যাড. শরিফুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা কাজী আব্দুর রাজ্জাক, দেবদুন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ব্রজেন্দ্র কুমার রায়, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি চৌধুরী সাইদুর রহমান, এনজিও প্রতিনিধি কামাল হোসেন, প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতে কালিয়া শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ সাইদুর রহমান পিএসটিসি-বালিকা প্রকল্পের কর্মপরিকল্পনা উপস্থাপন করেন। অন্যান্যের মধ্যে বালিকা প্রকল্পের কালিয়া শাখার সহকারী ব্যবস্থাপক মিহির কুমার দাস, আউট স্কুল ফ্যাসিলিটেটর রুনা খানম, ইন স্কুল ফ্যাসিলিটেটর তাহেরা খানমসহ স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষিকিা, মসজিদের ইমাম, ম্যারেজ রেজিষ্টার, পুরুষ ও মহিলা ঘটক, জনপ্রতিনিধি এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথি অধ্যক্ষ মোঃ মাসুদুর রহমান তার বক্তব্যে বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে যুগোপযোগী শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। কিন্তু দারিদ্রতা, কুসংস্কার ও বাল্যবিয়ের কারণে আমাদের দেশে শিক্ষার হার বৃদ্ধি পাচ্ছে না। অনুষ্ঠানের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আউইব হোসেন বাল্য বিবাহ বন্ধে সচেতনমহলের প্রতি সহযোগিতা করার আহŸান জানান।

Print Friendly, PDF & Email


আপনার মতামত লিখুন :

২ responses to “কালিয়ায় পিএসটিসি-বালিকা প্রকল্পের এডভোকেসী সভা অনুষ্ঠিত”

  1. Mihir Das says:

    Thanks for publising this type of news. Really we hope it will be removed very soon from our society. Mother and child will be happy living. Bangladesh can be succed for the working envioronment with pleasure.

  2. Sizan Mahmud says:

    In our society we often see this type activities. Our problem is everywhere we know very well but this trend cant be go long period of time. It is too much. We should stop it immidiately. UP chairman, Marriage register and Imam can play vital role to stop it. People come forward and take necessary action to delay marriage. We strongly hope it solve within shrot time. It is time to stop forever.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর