• বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English Hindi Hindi
শিরোনাম :
দেশে পৌঁছেছে ‘আকাশ তরী’ জাতীয় প্রেসক্লাবে সৈয়দ আবুল মকসুদের জানাজা অনুষ্ঠিত শেরপুরে সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠিত বিএনপি বলেছিল শেখ হাসিনা করোনার ভ্যাকসিন আনতে পারবেন না, এখন তারাই গোপনে ভ্যাকসিন নিচ্ছেন, মতিয়া চৌধুরী শেরপুরে বহুমুখী পাটপণ্য তৈরি ও বিপণন বিষয়ক সপ্তাহব্যাপী প্রশিক্ষণ শুরু শেরপুরে আইনগত সহায়তা প্রদান কর্মসূচির অগ্রগতি বিষয়ক সমন্বয় সভা বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৪ বিলিয়ন ডলার ছাড়াল রাকিবকে ডিভোর্স দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেছি: তামিমা নালিতাবাড়ীতে মধুটিলা ইকোপার্কের ২২৩ ধাপ সিঁড়ি উঠতে গিয়ে প্রাণ গেল এক ব্যক্তির প্রধানমন্ত্রীও সবসময় মাস্ক পরেন, আপনারাও সবসময় মাস্ক পরুন : শেরপুরে মতিয়া চৌধুরী

শ্রীবরদীতে বন্ধুকে গুলি করে হত্যাচেষ্টা ॥ পিস্তল-গুলিসহ যুবক গ্রেফতার

প্রতিবেদকের নাম / ১১৩৯ সময় দর্শন
হালনাগাদ : শুক্রবার, ৫ জুলাই, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শেরপুরে শ্রীবরদীতে আলেক মিয়া (২৬) নামে এক যুবককে গুলি করে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে সোহাগ মিয়া (২৪) নামে তার এক বন্ধুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ৫ জুলাই শুক্রবার দুপুরে ময়মনসিংহ মহানগরীর চরপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে শ্রীবরদী থানা পুলিশ। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বিকেল ৩টার দিকে শ্রীবরদী উপজেলার কাকিলাকুড়া ইউনিয়নের খামারপাড়া এলাকার বাড়ি থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, ৪ রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত সোহাগ মিয়া স্থানীয় মামুন মিয়ার ছেলে। এদিকে বিকেলে পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম পিপিএম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ওইসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ বিল্লাল হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আমিনুল ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার (নালিতাবাড়ী সার্কেল) জাহাঙ্গীর আলমসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শ্রীবরদীর খামারপাড়া এলাকার আব্দুস সালামের ছেলে আলেক মিয়া ও প্রতিবেশী মামুন মিয়ার ছেলে সোহাগ মিয়া পরষ্পর বন্ধু। সোহাগ মানিকগঞ্জ জেলার ঘিওর সরকারি কলেজে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির শিক্ষার্থী। তার বাবা ঢাকায় ব্যবসা করে। আর আলেক শ্রীবরদীতে ব্যবসা করে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে আলেক মিয়াকে তার বন্ধু সোহাগ বাড়ি থেকে ডেকে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। ঘরের ভেতর আলেক মিয়ার মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করে সোহাগ পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা সোহাগের ঘর থেকে গুলির মতো শব্দ শুনে ঘরের ভেতর গেলে মাথার ডানপাশের কানের ওপরে রক্তাক্ত গুরুতর অবস্থায় আলেক মিয়াকে উদ্ধার করে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। হাসপাতালের চিকিৎসকরা মাথায় গুলিবিদ্ধ হওয়ার কথা জানিয়ে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। পরে সেখান থেকে গুলিবিদ্ধ আলেক মিয়াকে গুরুতর অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর অবস্থার অবনতি হওয়ায় শুক্রবার তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
এদিকে ওই ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে গুলিবিদ্ধ আলেক মিয়ার স্ত্রী মর্জিনা বেগম বাদী হয়ে সোহাগের বিরুদ্ধে শ্রীবরদী থানায় হত্যাচেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীমের নির্দেশনায় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদারের নেতৃত্বে অভিযানে নামে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে সোহাগকে গ্রেফতারের পর তাকে নিয়ে বিকেল ৩টার দিকে শ্রীবরদীর কাকিলাকুড়া ইউনিয়নের খামারপাড়ার বাড়িতে অস্ত্র উদ্ধার অভিযান চালায় পুলিশ। ওইসময় সোহাগের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঘরের ভেতর থেকে একটি বিদেশী পিস্তল (আমেরিকার তৈরী ৭.৬২ বোর), ৪ রাউন্ড পিস্তলের গুলি ও একটি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়।
এ ব্যাপারে শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার জানান, ওই ঘটনায় হত্যাচেষ্টা ও অস্ত্র আইনে সোহাগের বিরুদ্ধে পৃথক দু’টি মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। একটি বিদেশী পিস্তল, ৪ রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়েছে। গুলিবিদ্ধ আলেক মিয়াকে ঢাকায় ভর্তি করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত সোহাগকে পুলিশ রিমা-ের আবেদনসহ শনিবার আদালতে সোপর্দ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর