ads

শনিবার , ১৬ মার্চ ২০২৪ | ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

মানুষের সঙ্গে ভিডিও গেম খেলবে গুগলের এআই

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
মার্চ ১৬, ২০২৪ ২:৪৪ অপরাহ্ণ

মানুষের সঙ্গে ভিডিও গেম খেলবে এমন নতুন কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাভিত্তিক (এআই) প্রযুক্তি বাজারে আনল গুগলের ডিপমাইন্ড। সিমা নামের এই প্রযৃক্তিকে গেমিং দক্ষতার প্রশিক্ষণ দিয়েছে গুগল। এটি মানুষের মতো ভিডিও গেম খেলতে পারে ও গেমারদের সাহায্য করতে পারে। সিমার পূর্ণ রূপ হলো—স্কেলেবল (পরিমাণযোগ্য), ইনস্ট্রাক্টেবল (নির্দেশযোগ্য), মাল্টি ওয়ার্ল্ড এজেন্ট। বর্তমানে এটি পরীক্ষা–নিরীক্ষামূলক পর্যায়ে রয়েছে।

Shamol Bangla Ads

সাধারণ গেম ও ওপেন ওয়ার্ল্ড গেমগুলোর (যেসব গেমে ইচ্ছামতো ঘোরাঘুরি করা যায়) যে কোনো ভিডিও গেম খেলার জন্য সিমাকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। যদিও এটি বিদ্যমান গেমিং এআইকে প্রতিস্থাপন করার উদ্দেশ্যে তৈরি করা হয়নি। এটিকে আরও একটি প্লেয়ার হিসেবে ভাবা যায় যা দলের সঙ্গে মেশে গেমারদের জন্য কাজ করবে। এটি ত্রিমাত্রিক জগৎ এবং ইমেজ রেকগনিশনের সঙ্গে প্রাকৃতিক ভাষার নির্দেশনাকে মিশ্রিত করে।

সাংবাদিকদের সঙ্গে ব্রিফিংয়ের সময় গুগল ডিপমাইন্ডের গবেষক ও সিমার সহ প্রধান টিম হারলে বলেন, সিমা একটি খেলা জেতার জন্য প্রশিক্ষিত নয়। একে যা করতে বলা হবে এটি শুধু নির্দেশনা অনুযায়ী তাই করার জন্য প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

Shamol Bangla Ads

সিমাকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য হেলো গেমস, ইমব্রেসার, ট্যাক্সেডু ল্যাবস, কপি স্টেইনের মতো আটটি গেম ডেভেলপারদের সঙ্গে কাজ করেছে। গবেষকেরা সিমাকে নো ম্যানস স্কাই, টিয়ারডাউন, ভালহাইম ও গোট সিমুলেটর ৩ এর মতো গেমগুলোর সঙ্গে যুক্ত করেন, যাতে এআই এজেন্টিকে গেম খেলার প্রাথমিক বিষয়গুলো শেখানো যায়।

এক ব্লগ পোস্টে গুগল বলেছে, গেমগুলো খেলতে বা সোর্স কোড অ্যাকসেস করার জন্য সিমার কোনো কাস্টম এপিআইয়ের (অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রাম ইন্টারফেসের) প্রয়োজন নেই। হার্লে বলেন, গবেষক দলটি এমন গেমগুলো বেছে নিয়েছে যেগুলো সিমাকে সাধারণ গেমিং দক্ষতা শিখতে সাহায্য করার চেয়ে উন্মুক্ত খেলার ওপর বেশি জোর দেয়। আপনি যদি গোট সিমুলেটরের খেলে থাকেন বা দেখে থাকেন তবে আপনি জানেন যে এলোমেলো জিনিসগুলি করাটাই গেমের মূল বিষয়। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সিমার মধ্যে এই ধরনের স্বতঃস্ফূর্ততা দেখার আশা করেছিলেন গবেষকেরা।

এই লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য দলটি প্রথমে ইউনিটি ইঞ্জিনে একটি নতুন পরিবেশ তৈরি করেছিল যেখানে এজেন্টদের অবজেক্ট ম্যানিপুলেশন সম্পর্কে বোঝার ক্ষমতা পরীক্ষা করার জন্য একটি ভাস্কর্য তৈরি করতে হতো। তারপরে ভাষার নির্দেশনাবলি নথিভুক্ত করার জন্য গুগল দুজন মানব প্লেয়ারের সাহায্য নেয়। যেখানে প্লেয়ারদের একজন একটি গেম নিয়ন্ত্রণ করে এবং অন্যজন পরবর্তী কী করতে হবে তার নির্দেশনা দেয়। পরবর্তীতে গেমাররা গেমে তাদের ক্রিয়াকলাপ দেখানোর জন্য স্বাধীনভাবে খেলেন। এইভাবে স্ক্রিনে পরবর্তীতে কী ঘটবে তা অনুমান করতে শিখে সিমা এজেন্ট। গেম খেলার জন্য বর্তমানে সিমার ৬০০টি মৌলিক দক্ষতা রয়েছে। যেমন: বামে মোড় নেওয়া, মই বেয়ে ওঠা ও গেমের ম্যাপের মেনু খোলা।

হার্লি বলেন, ধীরে ধীরে সিমাকে গেমের মধ্যে আরও কঠিন কঠিন নির্দেশ দেওয়া যাবে। যেমন: গেমের ভেতর ‘রিসোর্স বা সম্পদ খোঁজা’, ‘ক্যাম্প তৈরি করার’ মতো কাজগুলো সিমাকে দিয়ে করানো যাবে। তবে এখনো এআই এজেন্টরা গেমারদের জন্য কাজ করতে পারে না। এনভিডিয়া এবং কনভাই এর মতো এআইভিত্তিক এনপিসির (নন প্লেয়ার ক্যারেক্টার) মতো কাজ করার জন্য সিমাকে তৈরি করা হয়নি।

সিমা প্রকল্পের সহ-প্রধান ফ্রেডরিক বেস বলেন, গবেষণা ক্ষেত্রের বাইরে গেমিংয়ে সিমা কী ধরনের কাজ করতে পারবে, তা এখনো বলা মুশকিল। এআই এনপিসির মতো সিমা শেষ পর্যন্ত কথা বলাও শিখতে পারে। তবে এই পর্যায়ে যেতে অনেক সময় লাগবে। কীভাবে গেম খেলতে হয় সিমা এখনও শিখছে ও যেগুলি আগে খেলেনি তার সঙ্গে মানিয়ে নিতে হয়। গুগল বলেছে, উন্নত এআই মডেলের সঙ্গে যুক্ত হয়ে সিমা আরও জটিল কাজ করতে সক্ষম হতে পারে এবং গেমারদের খেলা জিতিয়ে দেওয়ার জন্য একটি কার্যকর সদস্য হতে পারে।
তথ্যসূত্র: দ্য ভার্জ

error: কপি হবে না!