ads

বৃহস্পতিবার , ১৭ নভেম্বর ২০২২ | ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

‌’দর্শকের কাছে যে ভালোবাসা পেয়েছি, তা তুলনাহীন’

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
নভেম্বর ১৭, ২০২২ ৮:২১ অপরাহ্ণ

‘হাওয়া’ অভিনেত্রী নাজিফা তুষির দ্বিতীয় সিনেমা। কিন্তু কে বলবে, মাত্র দুটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি! অন্তত তুষির পরিচিতি ও জনপ্রিয়তার দিকে নজর দিলে মনে হবে না যে বড় পর্দায় তাঁর কাজের সংখ্যা এত কম। তার চেয়ে বড় বিষয় হলো, তুষিকে চেনেন না- দেশে এমন দর্শক এখন সত্যি খুঁজে পাওয়া কঠিন। ‘হাওয়া’ ছবিতে তাঁর গুলতি চরিত্রটি দর্শকমনে এমনভাবে গেঁথে গেছে যে, শত দিবস রজনী পেরিয়েও দর্শক প্রশংসায় ভাসছেন তিনি। শুধু দেশে নয়, বিদেশেও বইছে ‘হাওয়া’র জোয়ার। মুক্তির একশ দিন পেরিয়ে গেলেও দর্শক মুখে শোনা যাচ্ছে ‘হাওয়া’-বন্দনা।

Shamol Bangla Ads

অথচ কয়েক মাস আগেও অনেকে ভাবতে পারেননি, আমাদের চলচ্চিত্রে এমন বাঁকবদল হবে। চলচ্চিত্রশিল্প যখন ধ্বংসের মুখে, ঠিক তখনই মুক্তির মিছিলে নাম লিখিয়েছে ‘হাওয়া’। যেখানে নিজের গল্প উঠে এসেছে একটু ভিন্নভাবে। চরিত্রগুলোর মাঝে খুঁজে পাওয়া গেছে চেনা মানুষের ছায়া। তাই দর্শক নতুন করে ভিড় জমিয়েছেন দেশের সিনেমা হলগুলোয়। যা থেকে এই বার্তা পাওয়া গেছে যে, আমাদের চলচ্চিত্র নতুন করে প্রাণ ফিরে পেতে শুরু করেছে।

সাফল্যের শত দিবস রজনী পার এই ছবির কারণে আবেগাপ্লুত অভিনেত্রী নাজিফা তুষি নিজেও। বলেন, “যখন এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম- তখন সত্যি মনে হয়নি, এমন একটি মুহূর্ত আমাদের সামনে এসে দাঁড়াবে। ‘হাওয়া’ দিয়ে দর্শকের কাছে যে ভালোবাসা পেয়েছি, তা তুলনাহীন; প্রত্যাশার চেয়ে অনেক বেশি।”

Shamol Bangla Ads

নাজিফা তুষিকে সব সময় ভিন্ন ধরনের কাজ করতে দেখা যায়। তিনি নিজেও বলেন, “অভিনেত্রী হিসেবে সব সময় নতুন চরিত্রের সন্ধানে থাকি। চরিত্রের মানুষটি যদি অপরিচিত হয়, তাহলে তাকে নানাভাবে জানার চেষ্টা করি। মানুষের ভেতর ও বাইরের যে রূপ, তা পর্দায় তুলে ধরার জন্য আন্তরিকভাবে কাজ করে যাই। কারণ আমি বিশ্বাস করি, ভালোবাসা দিয়ে আন্তরিকভাবে কাজ করলে তা বৃথা যায় না। আর যখন গুণী নির্মাতার সান্নিধ্যে ভালো গল্প ও চরিত্রে কাজ করার সুযোগ হয়, তখন সাফল্য পেতে সময় লাগে না। এর জ্বলন্ত উদাহরণ হলো ‘হাওয়া’।”

সর্বশেষ - ব্রেকিং নিউজ

error: কপি হবে না!