• সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:১০ অপরাহ্ন
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত নিউজপোর্টাল

শেরপুরে ঐতিহ্যবাহী পৌষ মেলা অনুষ্ঠিত ॥ হাজারও মানুষের ভিড়

প্রকাশকাল : শনিবার, ১ জানুয়ারি, ২০২২

শেরপুরে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী পৌষ মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৩১ ডিসেম্বর শুক্রবার বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত শহরের নবীনগর মহল্লার শাওয়াল পীরের মাজারের উল্টোপাশের খালি জমিতে ওই ২শ বছরের পুরনো ও ঐতিহ্যবাহী ওই পৌষ মেলা অনুষ্ঠিত হয়। নবীনগর মেলা উদযাপন কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত ওই মেলায় হাজার হাজার নারী-পুরুষ ও শিশুর ভিড় জমে।

Shamol Bangla Ads

জানা যায়, এ মেলা মূলত ৩০ পৌষ সংক্রান্তির মেলা হলেও কয়েক বছর ধরে মেলার স্থানে বোরো আবাদের জন্য সংক্রান্তির আগেই মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তাই এ মেলা এখন ‘পৌষ সংক্রান্তি’ মেলা থেকে কেবল ‘পৌষ মেলায়’ রূপ নিয়েছে। মেলায় প্রতি বছর অন্যতম আকর্ষণ ঘোড় দৌড়ের পাশাপাশি গাঙ্গি খেলা ও সাইকেল রেস হলেও এবার র‌্যাফেল ড্র ও মিউজিক্যাল চেয়ার খেলা বৃদ্ধি করা হয়েছে। এছাড়া গ্রামীণ বিভিন্ন খেলা ও প্রতিযোগিতা অনুুষ্ঠিত হয়।

মেলায় গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী মুখরোচক খাবার, মুড়কি-মুড়ি, মোওয়া, নিমকি, গজা, কলাই, বাদাম কটকটি, তিলের খাজা এবং প্লাস্টিক ও মাটির তৈরি শিশুদের বিভিন্ন খেলনা ও নারীদের বিভিন্ন প্রসাধনী সামগ্রীর পাশাপাশি গৃহস্থালির বিভিন্ন পণ্যের পসরা বসে। এ পৌষ মেলায় শেরপুর শহরসহ এর পাশেপাশের এলাকা থেকে বিপুল সংখ্যক নারী-পুরুষ, তরুণ-তরুণী, শিশু-কিশোরসহ নানা বয়সের মানুষের ঢল নামে। দোকানীরা বিক্রি ভাল হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

Shamol Bangla Ads

এদিকে মেলাকে ঘিরে শেরপুর শহরের নবীনগরসহ আশেপাশের এলাকায় উৎসবমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। নবীনগরের এ পৌষ মেলা কত বছর ধরে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে তা নির্দিষ্ট করে কেউ বলতে না পারলেও স্থানীয়রা জানান, প্রায় দু’শ বছর ধরে এই পৌষ মেলা এখানে হয়ে আসছে। দিনে দিনে এ মেলার আয়তন ও লোক সমাগম বাড়ছে।

মেলার বিভিন্ন প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন শেরপুর পৌরসভার মেয়র গোলাম কিবরিয়া লিটন ও প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম। ওইসময় মেলা আয়োজক কমিটির অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পৌষ মেলা আয়োজক কমিটির সমন্বয়কারী শেরপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র মো. নজরুল ইসলাম ও শেখ মমতাজ জানান, আমাদের বাপদাদার আমল থেকেই প্রতি বছর বাংলা পৌষ মাসের শেষদিন (পঞ্জিকা মতে) ছাওয়াল পীরের দরগাহ সংলগ্ন মাঠে এ পৌষমেলা অনুষ্ঠিত হয়। প্রায় ২০০ বছর যাবত এ মেলা হচ্ছে। পূর্ব পুরুষদের ঐতিহ্য বজায় রেখে এ বছরও পৌষমেলার আয়োজন করেছি। এটি আমাদের ঐতিহ্যের অংশ।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

Shamol Bangla Ads

এই বিভাগের আরও খবর
Shamol Bangla Ads

error: কপি হবে না!
error: কপি হবে না!