• সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৫৫ অপরাহ্ন
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত নিউজপোর্টাল

দেড় ঘণ্টার জন্য প্রেসিডেন্ট হয়েছিলেন কমলা হ্যারিস

/ ৮৮ বার পঠিত
প্রকাশকাল : শনিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম কোনো নারী হিসেবে প্রায় দেড় ঘণ্টার জন্য দেশটির প্রেসিডেন্টের সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী হয়েছিলেন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস। এই সময় তিনি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী ও পারমাণবিক শক্তির নিয়ন্ত্রক।
শুক্রবার একটি নিয়মিত কলোনোস্কোপি করার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে অ্যানেস্থেশিয়া দেওয়া হয়। এ সময় তিনি ভাইস-প্রেসিডেন্ট কমালা হ্যারিসকে দেশের সর্বময় ক্ষমতা দিয়ে যান। ফলে তখন প্রায় ৮৫ মিনিটের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের দায়িত্ব থাকে ভাইস-প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের হাতে।

Shamol Bangla Ads

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ৭৯তম জন্মদিনের প্রাক্কালে এই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। ওই পরীক্ষার পর বাইডেনের চিকিৎসকরা একটি বিবৃতিতে জানিয়েছেন, তিনি পুরোপুরি সুস্থ রয়েছেন এবং তার দায়িত্ব পালনে সক্ষম। খবর বিবিসির।
কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হোয়াইট হাউজের ওয়েস্ট উইং থেকে কমলা হ্যারিস তার দায়িত্ব পালন করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম কোন নারী এবং প্রথম দক্ষিণ-এশীয় আমেরিকান হিসেবে ভাইস-প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন কমলা হ্যারিস।

হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি জেন পাসাকি বলেছেন, সাময়িকভাবে ক্ষমতার এই হস্তান্তর একেবারে নতুন নয়। যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধানেই এই প্রক্রিয়া নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে।
এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ যখন ২০০২ এবং ২০০৭ সালে একই রকম স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছিলেন, সেই সময়েই একই পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়েছিল।’ পাসাকি আরও বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট (বাইডেন) যখন হোয়াইট হাউজে ফিরেছেন, তাকে হাস্যোজ্বল দেখা গেছে।’

Shamol Bangla Ads

জো বাইডেনের চিকিৎসক কেভিন ও’কনার বলেছেন, ‘প্রেসিডেন্ট পুরোপুরি সুস্থ, সবল, ৭৮ বছর বয়স্ক একজন পুরুষ, যিনি প্রেসিডেন্ট হিসেবে সব দায়িত্ব পালনে সক্ষম আছেন।’
কলোনোস্কোপিতে তার শরীরে বিপজ্জনক নয়, এমন একটি পলিপ শনাক্ত হয়েছিল, তা খুব সহজেই সরিয়ে ফেলা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বয়স্ক প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সর্বশেষ স্বাস্থ্য পরীক্ষা হয়েছিল ২০১৯ সালে।

Shamol Bangla Ads

এই বিভাগের আরও খবর
Shamol Bangla Ads

error: কপি হবে না!
error: কপি হবে না!