• শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৪০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দেশের কৃষি এখন বাণিজ্যিকরণের দিকে যাচ্ছে : শেরপুরে খামারবাড়ির মহাপরিচালক আশ্রয়ণের ঘরের দরজা-জানালায় হাতুড়ি-শাবলের চিহ্ন পেয়েছি : প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর প্রক্রিয়া চলছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ট্রেন থেকে মিসাইল ছুড়ে পরীক্ষা চালালো উত্তর কোরিয়া শ্রীবরদীতে পাগলা কুকুরের কামড়ে আহত ১৫ আমার সমর্থকরা শ্রেষ্ঠ সমর্থক : সাকিব আল হাসান আট জেলায় শনাক্তের হার ৫% এর নিচে: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ১১ সাংবাদিক নেতার ব্যাংক হিসাব তলবে উদ্বেগের কিছু নেই : তথ্যমন্ত্রী দেশে করোনায় আরও ৫১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১ হাজার ৮৬২ ইভ্যালির সিইও রাসেল ও চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন গ্রেফতার

ময়মনসিংহের হোস্টেলে অবস্থানরতদের নিরাপত্তায় ছাত্রদের সাথে ওসির আলোচনা সভা

প্রকাশকাল : বুধবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

শিক্ষানগরী ময়মনসিংহে বাসাবাড়ি ও ছাত্র মেছ নিয়ে বসবাসরত শিক্ষার্থীদের উপর স্থানীয় ও বহিরাগতদের নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষা করতে উদ্যোগ নিয়েছেন কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি শাহ কামাল আকন্দ। আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি হোস্টেলে অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের সার্বিক নিরাপত্তায় বুধবার বিকালে নগরীর কলেজ রোড বিভিন্ন হোস্টেল তিনি ছাত্রদের সাথে আলোচনা করেন।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, শিক্ষানগরী খ্যাত বিভাগীয় শহর ময়মনসিংহে সরকারী আননদ মোহন, মুমিনুন্নিসা, মেডিকেল কলেজ, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, কমিউনিটি বেজড মেডিকেল কলেজ, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজসহ সরকারী বেসরকারী অগণিত শিক্ষা প্রতিষ্টান রয়েছে। বৃহত্তর ময়মনসিংহসহ টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, কুড়িগ্রাম, গাজীপুরসহ আশপাশের এলাকার শিক্ষার্থীরা ময়মনসিংহের এ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়া করে আসছে। এ সব শিক্ষার্থীরা নগরীর বিভিন্ন বাসা ভাড়া নিয়ে হোস্টেল বা ছাত্র মেছ গড়ে তুলে তাদেও পাঠদান চালিয়ে আসছে। আবার অনেকেই শুধুমাত্র লেখাপাড়ার উদ্দেশ্যে ভাই বোন একত্রে বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছে। বিশেষ করে আকুয়া মাদ্রাসা কোয়ার্টার, গোলকিবাড়ি, কলেজ রোড, সেনবাড়ি, সানকিপাড়া, জামতলা, একাডেমি রোড, মসজিদ রোড, কাচিঝুলি, বাউন্ডারী রোড ও নতুন বাজার এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছে এ সব শিক্ষার্থীরা।

দীর্ঘদিনের অভিযোগ নগরীর কলেজ রোডসহ বেশ কিছু এলাকায় কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের হোস্টেলে চাঁদা দাবি, স্থানীয়দের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদেরকে জোর করে মাদক সেবন করতে বাধ্য করা, মোবাইল ছিনতাইসহ নানা অত্যাচার করছে স্থানীয় ও বহিরাগত বখাটেরা। এছাড়াও রয়েছে চুরি, ছিনতাইয়ের অসংখ্য অভিযোগ। প্রতিবাদ করায় খুনের হুমকিও দেয়ার ঘটনা রয়েছে। ছাত্র মেছে অবস্থান করা অসহায় ও নিরীহ এ সব ছাত্ররা তাদের উপর অন্যায়ভাবে নির্যাতনের এ সব অভিযোগ নিয়ে বাসাবাড়ির মালিক, আশাপাশের নেতৃস্থানীয়দের কাছে গেলেও কোন প্রতিকার পায়নি।
সম্প্রতি বিভিন্ন ছাত্র মেছে ছাত্রদের কাছে চাদা দাবি, জোর করে হোস্টেলে গিয়ে মাদক সেবনে বাধ্য করা, মোবাইল ছিনতাই, চুরিসহ নানা ঘটনার খবর পান কোতোয়ালী পুলিশের দায়িত্বশীল ওসি শাহ কামাল আকন্দ। পরে ছাত্রদের হোস্টেলে হোস্টেলে গিয়ে তাদের সমস্যা সম্পর্কে সরাসরি অবহিত হতে উদ্যোগ নেন । এই ধ্যান ধারণায় বুধবার বিকালে কোতোয়ালী মডেল থানার নবাগত ওসি শাহ্ কামাল আকন্দ কলেজ রোড এলাকার বেশ কয়েকটি ছাত্র মেছে থাকা ছাত্রদের সাথে আলোচনা করেন। এ সময় তাদের সমস্যা, ভয়ভীতির কারণ, স্থানীয় ও বহিরাগতদের নির্যাতনের চিত্র নিজ কানে শুনেন। এ সময় তিনি বলেন, আজকের পর থেকে ছাত্র হোস্টেলে থাকা সকল শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার দায়িত্ব পুলিশের। যে কোন সমস্যা, কোন ধরণের ভয়ভীতি, হুমকি, মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসায়ী, চোর, ছিনতাইকারীদের অত্যাচার, নির্যাতন যা কিছু হকো না কেন তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে। অপরাধীরা যত বড় কিংবা ক্ষমতাসীন হোক না কেন তাদেরকে ছাড় দেয়া হবেনা। পরে ওসি শাহ কামাল আকন্দ যে কোন সমস্যা ও প্রয়োজনে কোতোয়ালী ও ফাড়ি পুলিশের সাথে যোগাযোগ করার আহবান জানিয়ে তার ব্যাক্তিগত নাম্বার ও সরকারী নাম্বারের কার্ড বিতরণ করেন। সবার সহযোগিতা কামনা করেন।
সব শেষে তিনি ছাত্রদের উদ্দ্যেশে বলেন, যে কোন সমস্যায় পড়লে এই নাম্বারে ফোন ও এসএমএস করার জন্য। যারা তথ্য দিবে তাদের নাম ঠিকানা গোপন থাকবে।


এই বিভাগের আরও খবর
error: কপি হবে না!
error: কপি হবে না!