• শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দেশের কৃষি এখন বাণিজ্যিকরণের দিকে যাচ্ছে : শেরপুরে খামারবাড়ির মহাপরিচালক আশ্রয়ণের ঘরের দরজা-জানালায় হাতুড়ি-শাবলের চিহ্ন পেয়েছি : প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর প্রক্রিয়া চলছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ট্রেন থেকে মিসাইল ছুড়ে পরীক্ষা চালালো উত্তর কোরিয়া শ্রীবরদীতে পাগলা কুকুরের কামড়ে আহত ১৫ আমার সমর্থকরা শ্রেষ্ঠ সমর্থক : সাকিব আল হাসান আট জেলায় শনাক্তের হার ৫% এর নিচে: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ১১ সাংবাদিক নেতার ব্যাংক হিসাব তলবে উদ্বেগের কিছু নেই : তথ্যমন্ত্রী দেশে করোনায় আরও ৫১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১ হাজার ৮৬২ ইভ্যালির সিইও রাসেল ও চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন গ্রেফতার

সুদানে বন্যায় ৮৪ জন নিহত

/ ৬০ বার পঠিত
প্রকাশকাল : মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

সুদানে প্রবল বর্ষণের ফলে সৃষ্ট বন্যায় ৮৪ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এবং এতে হাজার হাজার ঘর বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত ও ধ্বংস হয়েছে। সোমবার দেশটির এক কর্মকর্তা একথা জানান। সুদানের বেসামরিক প্রতিরক্ষা বিষয়ক জাতীয় পরিষদের মুখপাত্র আবদাল জলিল আবদাল রাহীম বলেন, এ বছরের ‘বর্ষা মৌসুমের শুরু থেকে সুদানের ১১টি রাজ্যে বন্যাজনিত কারণে মোট ৮৪ জনের মৃত্যু এবং আরো ৬৭ জন আহত হয়েছেন।’

তিনি আরো জানান, তারা পানিতে পড়ে, বিদ্যুৎস্পষ্ট হয়ে এবং ঘর বাড়ি ধসে পড়ায় প্রাণ হারান। এ প্রাকৃতিক দুর্যোগে সুদান জুড়ে প্রায় ৮ হাজার ৪০৮টি ঘরবাড়ি একেবারে ধসে পড়েছে এবং ২৭ হাজার ২ শ’র বেশি ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সুদানে জুন ও অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ে সাধারণত প্রবল বর্ষণ হয়ে থাকে এবং প্রতিবছর এ সময় দেশটি ব্যাপক বন্যার কবলে পড়ে। এতে সেখানে অনেক সম্পদ, অবকাঠামো ও ফসল নষ্ট হয়।

জাতিসংঘের হিসাব অনুযায়ী, প্রবল বর্ষণ ও বন্যায় জুলাই থেকে প্রায় ১ লাখ ২ হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গত সপ্তাহে জাতিসঙ্ঘে এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সুদানের দক্ষিণাঞ্চলে ব্যাপক বন্যায় প্রায় ৫০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে প্রায় ৬৫ হাজার মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছে। এদের মধ্যে দক্ষিণ সুদানের শরণার্থীরাও রয়েছে।
গত বছর প্রবল বর্ষণের ফলে সৃষ্ট বন্যার কারণে সুদান বাধ্য হয়ে তিন মাসের জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছিল। ওই বন্যায় প্রায় সাড়ে ৬ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং ১ লাখ ১০ হাজারেরও বেশি ঘর বাড়ি ধসে পড়ে।


এই বিভাগের আরও খবর
error: কপি হবে না!
error: কপি হবে না!