• বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪৭ পূর্বাহ্ন

ঝিনাইগাতীতে শিক্ষা উন্নয়ন কমর্সূচির অবহিতকরণ সভা

খোরশেদ আলম, ঝিনাইগাতী
প্রকাশকাল : বৃহস্পতিবার, ১৮ মার্চ, ২০২১

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি (পিইডিপি-৪) এর অধীন সাব কম্পোনেন্ট ২.৫ এর আওতায় আউট অব স্কুল চিলড্রেন কার্যক্রমের উপজেলা পর্যায়ের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৮ মার্চ বৃহস্পতিবার সকালে প্রত্যয়, প্রমোশনাল রিসার্চ এ্যাডভোকেসি ট্রেনিং এ্যাকশন ইয়ার্ড এর আয়োজনে এবং উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো শেরপুর ও উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় উপজেলা হলরুমে আয়োজিত ওই সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ এসএম আব্দুল্লাহেল এয়ারেজ নাইম।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর সহকারী পরিচালক সৈয়দ মোক্তার হোসেন, প্রত্যয়ের নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া জাহান রেবা, প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর চন্দন কুমার লাহেরী, জেলা প্রোগ্রাম ম্যানেজার প্রত্যয় মাফুজার রহমান, প্রত্যয়ের সদর উপজেলা প্রোগ্রাম ম্যানেজার সায়েদুর রহমান, প্রত্যয় প্রতিনিধি, ঝিনাইগাতী শাহ আলম ও মকবুল হোসেন।

ওই অবহিতকরণ সভায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লাইলী বেগমসহ ৭ ইউপি চেয়ারম্যান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা, এনজিও প্রতিনিধি ও গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জানানো হয়, প্রাথমিক শিক্ষায় অভূতপূর্ব অগ্রগতি অর্জনের পরেও দারিদ্রতা, অনগ্রসরতা, শিশুশ্রম, ভৌগলিক প্রতিবন্ধকতাসহ বিভিন্ন কারণে এখনও অনেক শিশু বিদ্যালয়ের বাইরে রয়েছে। বর্তমানে দেশে প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ঝরে পড়ার হার ১৮ দশমিক ৮ শতাংশ এবং বিদ্যালয়ে ভর্তি না হওয়ার হার প্রায় ২ শতাংশ। তাই সারাদেশে প্রাথমিক পর্যায়ে ৮ থেকে ১৪ বছর বয়সী ১০ লাখ বিদ্যালয় বহির্ভূত শিক্ষার্থীদের আগামী তিন বছরে শিখন কেন্দ্রে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা প্রদান করে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার উপযোগী করে তৈরি করা হবে। আর এই ধারাবাহিকতায় শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলায় ৭০টি শিখন কেন্দ্রে ৪ হাজার ২শ জন শিক্ষার্থীকে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার উপযোগী করে গড়ে তোলা হবে।


এই বিভাগের আরও খবর