• মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০৭:২৫ পূর্বাহ্ন

শেরপুরে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের রাখের উৎসব উপলক্ষে ঘৃত প্রদীপ প্রজ্জ্বলন

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
/ ৬৯০ বার পঠিত
প্রকাশকাল : মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শেরপুরে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের রাখের উৎসব উপলক্ষে ঘৃত প্রদীপ প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১২ নভেম্বর মঙ্গলবার বিকেলে শহরের রঘুনাথ জিউর মন্দিরে শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারীর নির্দেশে হিন্দু ভক্তরা এক দিন উপবাস থেকে সন্ধ্যায় ওই প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন।
দেশব্যাপী বিভিন্ন স্থানে লোকনাথ ব্রহ্মচারী মন্দিরে ভক্তরা একযোগে পুরো কার্তিক মাসের প্রতিটি শনিবার ও মঙ্গলবার ওই উপবাস উৎসবরূপে পালন করে থাকেন। ওই উপবাস উৎসবের আনুষ্ঠানিকতা বেশ জমকালো। উপবাস শেষে সন্ধ্যায় শুরু হয় ঘৃত প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও আরতি অনুষ্ঠান। ওইসময় ভক্তরা মন্দিরের সামনে মোম এবং আগরবাতি জ্বালিয়ে উলুধ্বনির মাধ্যমে ভক্তি নিবেদন ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন।
বিপদ-আপদ থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য এই প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করা হয়। শ্রী শ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারীর ভক্তরা কলাপাতা, ফুল, ধানদূর্বা, মাটির প্রদীপ, ঘি, ডাব, দুধসহ আরও অনেক ধরনের নৈবেদ্য নিয়ে আসেন এখানে। তাদের এসকল নৈবেদ্য শ্রী শ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারীর সামনে রেখে দুধ ঢালা ও আগরবাতি জ্বালানোর মধ্যদিয়ে উৎসবের সূচনা করা হয়। তারপর ভক্তরা সারিবদ্ধভাবে উন্মুক্ত ময়দানের সামনে কলাপাতার উপর রাখা ঘিয়ের প্রদীপ নিয়ে বসে বিপদ থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য বিভিন্ন আত্মীয়-স্বজন ও দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনায় প্রার্থনা করেন এবং সেই উদ্দেশ্যে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন। সারিবদ্ধভাবে জ্বালানো ওই শতশত প্রদীপ কার্তিকের হালকা হিম আবহাওয়ার সাথে মিশে এক অনিন্দ্য সুন্দর অপার্থিব আবহ তৈরি করে। প্রদীপ প্রজ্জ্বলন শেষে তা জলে ভাসিয়ে দেয়া হয়।


এই বিভাগের আরও খবর