ads

শুক্রবার , ৬ জুলাই ২০১৮ | ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

ব্রাজিল-বেলজিয়ামের শক্তিমত্তা ও দুর্বলতা

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
জুলাই ৬, ২০১৮ ৪:২০ অপরাহ্ণ

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : ল্যাটিন আমেরিকার দুই দল ব্রাজিল এবং উরুগুয়ে সেমিফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে মাঠে নামছে আজ শুক্রবার। রাশিয়া বিশ্বকাপের রোমাঞ্চকর ম্যাচ বলতে গেলে শুরু হচ্ছে শুক্রবারের ম্যাচ দিয়েই। একদিকে ফ্রান্স-উরুগুয়ের গতির ম্যাচ। অন্যদিকে ব্রাজিলের সাম্বা এবং বেলজিয়ামের ‘গোল্ডেন জেনারেশনের’ খেলা। সাম্প্রতিক ব্রাজিল-বেলজিয়ামের পারফর্মের বিচারে কোন দলকে এগিয়ে রাখা দুষ্কর। কিন্তু বড় আসরের ম্যাচ বলেই ব্রাজিলকে ফেবারিট ধরছে সবাই।
ব্রাজিল এবং বেলজিয়াম এ পর্যন্ত মুখোমুখি হয়েছে মাত্র পাঁচবার। এরমধ্যে বেলজিয়াম জয়ের দেখা পেয়েছে সেই ১৯৬৩ সালে। সেবার অবশ্য সেলেকাওদের ৫-১ গোলে পরাজয়ের স্বাদ দিয়েছিল বেলজিয়াম। আর দু’দলের সর্বশেষ দেখা ২০০২ বিশ্বকাপে। সেবার রেড ডেভিলসদের ২-০ গোলে হারিয়ে শেষ আটে পৌছে যায় ব্রাজিল। এছাড়া বাকি তিন ম্যাচের দুটিতে ব্রাজিলের জয় এবং একটি সমতায় শেষ হয়।
রাশিয়া বিশ্বকাপ দিয়ে ব্রাজিল তাদের সর্বশেষ সাত বিশ্বকাপেই কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার কীর্তি গড়েছে। এর মধ্যে ২০০৬ এবং ২০১০ সালে তারা কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নেয়। বিশ্বকাপে ব্রাজিলের শেষ ছয় পরাজয়ের সবকটি ইউরোপের দেশের বিপক্ষে।
বেলজিয়াম সর্বশেষ ২০০২ এবং ২০১৪ বিশ্বকাপে দক্ষিণ আমেরিকার দলের বিপক্ষে হেরে বিদায় নেয়। এছাড়া বিশ্বকাপে বেলজিয়ামের সেরা সাফল্য ১৯৮৬ সালে। সেবার ম্যারাডোনার কাছে হেরে সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নেয় বেলজিয়াম। ম্যারাডোনা ওই ম্যাচে দুই গোল করেছিলেন। রাশিয়া বিশ্বকাপে এরইমধ্যে বেলজিয়াম ১২ গোল করে ফেলেছে। যা বিশ্বকাপে যৌথভাবে বেলজিয়ামের সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড।
এছাড়া বেলজিয়াম তাদের সর্বশেষ ২৩ ম্যাচেই অপরাজিত। এরমধ্যে ১৮ ম্যাচে জয় পেয়েছে তারা। তবে তাদের সর্বশেষ হারটা আবার পীড়াদায়ক। ওয়েলেসের কাছে হেরে ২০১৬ ইউরোর দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে বিদায় নিয়েছিল তারা।
বিশ্বকাপে বেলজিয়াম সর্বশেষ নয় ম্যাচের আটটিতেই জয় পেয়েছে। তবে বিশ্বকাপে কখনো পরপর পাঁচ ম্যাচে জয় পায়নি বেলজিয়াম। এবার ব্রাজিলকে হারাতে পারলে সেই বৃত্ত পূর্ণ হবে। অন্যদিকে বিশ্বকাপের নক আউট পর্বে ব্রাজিলের সর্বশেষ জয় জার্মানির বিপক্ষে ২০০২ সালে। জার্মানিকে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তুলেছিল ব্রাজিল। এরপর বিশ্বকাপের আসরে ইউরোপের দলের বিপক্ষে আর জয়ের মুখ দেখেনি ব্রাজিল।
নেইমার ব্রাজিলের হয়ে তার খেলা সর্বশেষ ১৯ ম্যাচে ২০ গোলে অবদান রেখেছেন। এরমধ্যে নেইমার গোল করেছেন ১১টি। বাকি নয়টি গোলে সহায়তা করেছেন তিনি। অন্যদিকে বেলজিয়াম তারকা এডেন হ্যাজার্ড ১৮ ম্যাচে ১৯ গোলে অবদান রেখেছেন। এরমধ্যে নিজের নামের পাশে ১০ গোল লিখিয়েছেন। বাকি আট গোল সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন তিনি।

error: কপি হবে না!