ads

রবিবার , ১০ জুন ২০১৮ | ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

শেখ হাসিনা জঙ্গি ও অগ্নি সন্ত্রাস নিয়ন্ত্রণ করেছেন, মাদকও নিয়ন্ত্রণ করবেন ॥ মতিয়া চৌধুরী

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
জুন ১০, ২০১৮ ৪:৩২ অপরাহ্ণ

নালিতাবাড়ী (শেরপুর) প্রতিনিধি ॥ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষ খেয়ে-পড়ে সুখেই আছে। শুধু অসুখ হলো জঙ্গি ও মাদক ব্যবসায়ীদের। আল্লাহর রহমতে আমরা জঙ্গি-সন্ত্রাস বন্ধ করেছি। নির্বাচন বানচাল করতে চেয়েছিল, সেটাও বন্ধ করেছি। কিন্তু সেই জঙ্গি ও মাদক ব্যবসায়ীরা এখন আর হুটহাট করতে পারে না। তবে তারাও থেমে নেই, আমরাও থেমে নেই। আর মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এই মাদক নিয়ে এরশাদ সাহেবও কম খেলা খেলেননি। আজকে শেখ হাসিনা মাদকের বিরুদ্ধেও লড়াইয়ে নেমেছেন। তিনি যেমন জঙ্গি ও অগ্নিসন্ত্রাস নিয়ন্ত্রণ করেছেন, ঠিক তেমনি মাদকও নিয়ন্ত্রণ করে একটি সুখী সমূদ্ধ বাংলাদেশ গড়বেন। মাদকের ব্যাপারে কোন আপস নেই। তিনি ১০ জুন রবিবার দুপুরে উপজেলার পলাশিকুড়া জনতা উচ্চবিদ্যালয় মাঠে ঈদ সামগ্রী বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওইসব কথা বলেন।
কৃষিমন্ত্রী বলেন, অনেকে অনেক কথা লেখেন, অনেক মানবাধিকার থেকে আর্টিকেল লিখে ফেলেছেন। কিন্তু মাদকের টাকা চাইতে গিয়ে মাকে খুন করলো, মায়ের কি মানবাধিকার নেই? সে খুন করলো আর তার মানবাধিকারের জন্য কাঁদতে হবে? অন্যদিকে ঐশি মাদকাসক্ত হয়ে তার বাবা-মাকে খুন করে ফেললো। কিন্ত ঐশির মানবাধিকারের জন্য কাঁদতে হবে? বাবা-মা যে খুন হয়ে গেল, তাদের কি মানবাধিকার নেই? মাদকব্যবসায়ী ও মাদকাসক্তরা শুধু তাদের সংসারকেই ধ্বংস করে না, দেশকেও ধ্বংস করে।
অনুষ্ঠানে মন্ত্রীর সাথে নবাগত পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জন কেনেডি জাম্বিল, উপজেলা চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমান রিপন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তরফদার সোহেল রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়াউল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হকসহ স্থানীয় প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তা ও দলীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এদিন মন্ত্রী উপজেলার ৩ ইউনিয়ন ও পৌরসভায় মেধাক্রম অনুসারে ৮ম শ্রেণির ২২৯ জনকে থ্রি-পিছ, নবম শ্রেণির ২১০ শিক্ষার্থীকে শাড়ি এবং দশম শ্রেণির ২১০ জনকে নগদ ৫শ টাকা করে বিতরণ করেন। এছাড়া, অসহায়-গরীব ও দুঃস্থদের মাঝে শাড়ি, লুঙ্গি ও ট্রাউজার বিতরণ করেন।

error: কপি হবে না!