ads

শুক্রবার , ৮ জুন ২০১৮ | ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

আরেকবার সুযোগ চান মুশফিক

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
জুন ৮, ২০১৮ ৮:৪৬ অপরাহ্ণ

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : আফগানিস্তনের কাছে ৩ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ হোয়াইটওয়াশ হয়ে লজ্জায় ডুবতে হলো বাংলাদেশকে। প্রথম দুই ম্যাচে প্রায় একপেশে খেলে জিতে নিয়েছিল আফগানরা। শেষ ম্যাচে বেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতা জমিয়ে ফেলেছিল মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ এবং মুশফিকুর রহিমের ভায়রা-ভাই জুটি। ৮৪ রানের উটি গড়ে মুশফিক আউট হতেই বদলে যায় দৃশ্যপট। রশিদ খানের করা শেষ ওভারের শেষ বলে ৪ রান তুলতে না পেরে ১ রানের পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় সাকিব আল হাসানের দলকে।
শেষ ৩ ওভারে যখন প্রয়োজন ৩৩ রান, রশিদ খানের এক ওভার ম্যাচ থেকে অনেকটাই দূরে ঠেলে দিয়েছিল বাংলাদেশকে। সেই ওভারে এসেছিল মাত্র ৩ রান। পরের ওভারে করিম জানাতকে টানা পাঁচ বাউন্ডারি হাঁকান মুশফিক। ম্যাচ চলে আসে হাতের মুঠোয়। শেষ ওভারে দরকার ছিল ৯ রান। বোলার সেই রশিদ খান। কিন্তু উড়িয়ে মারতে গিয়ে প্রথম বলেই আউট মুশফিক। যদিও ৩৭ বলে ৪৬ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হয়েছেন তিনি। তবুও দলের পরাজয়ে তার কণ্ঠে হতাশা ঝরল।
ম্যাচ শেষে মুশি বললেন, ‘১ রানে হারাটা অবশ্যই হতাশার। সিরিজ যদিও আগেই হেরে গিয়েছিলাম, একটি জয় তবু দলকে স্বস্তি দিতে পারত। দূর্ভাগ্যজনক ভাবে সেটি হয়নি। পরেরবার যদি সুযোগ আমার কাছে আসে, আশা করি আমি কাজে লাগাব। জানতাম এই উইকেট রান তাড়া কঠিন হবে। একই উইকেটে তিনটি ম্যাচ, শেষ ইনিংসে ব্যাট করা কঠিন। শেষ দুই ওভারে ২-৩ রানের ঘাটতি ছিল আমাদের। সত্যি বলতে, ১৯তম ওভারে ২০ রানের বেশি আসাটাই তো অপ্রত্যাশিত।’

সর্বশেষ - ব্রেকিং নিউজ

error: কপি হবে না!