ads

রবিবার , ২৯ অক্টোবর ২০১৭ | ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

শেরপুরে জেলা পরিষদ সদস্যের ওপর হামলাকারীদের বিচার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল-স্মারকলিপি প্রদান

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
অক্টোবর ২৯, ২০১৭ ৩:৫৩ অপরাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শেরপুরে জেলা পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মোঃ জাকারিয়া বিষু’র ওপর বর্বরোচিত হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলা রেকর্ড না করার প্রতিবাদে এবং ওই ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবিতে শহরে বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। ২৯ অক্টোবর রবিবার দুপুরে ‘বিক্ষুদ্ধ নবীনগর এলাকাবাসী’র ব্যানারে আয়োজিত ওই বিশাল বিক্ষোভ মিছিলটি শহর প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্ত্বরে গিয়ে জড়ো হয়। পরে মিছিলে অংশ নেওয়া নেতৃবৃন্দ জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খালিদ বিন নুরের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন। এলাকাবাসীর পক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোঃ সিরাজুল ইসলাম মাস্টার সাক্ষরিত স্মারকলিপিতে ওই হামলার জন্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন কবীর রুমানকে দায়ী করে তাকেসহ ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবি করা হয়।

Shamol Bangla Ads

পরে শহরের নবীনগর মোড়ে আয়োজিত সমাবেশে ঘোষণা দেওয়া হয়, অবিলম্বে ওই হামলার ঘটনায় জেলা পরিষদ সদস্য জাকারিয় বিষুর দায়েরকৃত মামলা রেকর্ড করা না হলে এবং মূল ঘটনাকে আড়াল করতে জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে দিয়ে বিষুসহ তার এলাকার কয়েকজনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার না হলে বৃহত্তর আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করে শহর অচল করে দেওয়া হবে। ওইসময় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএমএ’র সভাপতি ডাঃ এমএ বারেক তোতা, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফখরুল মজিদ খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ারুল হাসান উৎপল, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হাজী দুলাল মিয়া, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আ স ম নাসিম কাকন, জেলা আওয়ামী আইনজীবী যুব পরিষদের সদস্য সচিব এডভোকেট মমতাজ উদ্দিন মুন্না, জেলা ট্রাকচালক শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান, হামলার শিকার জেলা পরিষদ সদস্য জাকারিয়া বিষু প্রমুখ।

উল্লেখ্য, নানা বিষয় নিয়ে বাদানুবাদের জের ধরে ২৩ অক্টোবর হামলার শিকার হন জেলা পরিষদ সদস্য জাকারিয়া বিষু। ওই ঘটনায় রাতেই জাকারিয়া বিষু বাদী হয়ে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রুমান, তার চাচাতো ভাই কামাল-হাসানসহ কয়েকজনকে আসামী করে থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেন। কিন্তু আজও সেই অভিযোগটি নিয়মিত মামলা হিসেবে রেকর্ড হয়নি।

error: কপি হবে না!