ads

বৃহস্পতিবার , ৬ জুলাই ২০১৭ | ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

নালিতাবাড়ীতে শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টা ॥ ২৫ হাজার টাকায় রফা!

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
জুলাই ৬, ২০১৭ ৯:৫৩ অপরাহ্ণ

নালিতাবাড়ী (শেরপুর) প্রতিনিধি ॥ শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে দ্বিতীয় শ্রেণি পড়–য়া ৮ বছর বয়সী এক কন্যা শিশুকে বিবস্ত্র করে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। ওই ঘটনা স্থানীয় মাতবররা ২৫ হাজার টাকায় রফার চেষ্টা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ ওঠেছে। ৪ জুলাই মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার নয়াবিল ইউনিয়নের মৌয়াকুড়া গ্রামে ওই ঘটনার পর বুধবার রাতে মিমাংসার চেষ্টা চালানো হয়।
জানা যায়, ৪ জুলাই মঙ্গলবার ভোরে স্থানীয় মক্তবে পড়তে যায় নয়াবিল ইউনিয়নের মৌয়াকুড়া গ্রামের ৯ বছর বয়সী ছেলে সাকিল, ৮ বছর বয়সী মেয়ে ও ফারুক নামে অপর এক শিশু। ওইসময় বৃষ্টি থাকায় উপস্থিতি কম দেখে ওই মক্তবের শিক্ষক আজিজুল হক (৬৫) সাকিল ও ফারুককে খাবার আনতে পাঠিয়ে দিয়ে কন্যা শিশুটিকে নিজ ঘরে ডেকে নেয়। পরে ওই কন্যা শিশুকে বিবস্ত্র করে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। ওই সময় শিশুটি চিৎকার করলে মুখ চেপে কাউকে বলতে মানা করে ছেড়ে দেয়।
পরদিন বুধবার ব্র্যাক পরিচালিত স্থানীয় প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়তে গেলে বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা কন্যা শিশুটির গালে কামড়ের চিহ্ন দেখে কারণ জানতে চান। ওই সময় শিশুটি কারণ খুলে বললে মুহূর্তেই অভিভাবকদের কান গড়িয়ে এলাকাবাসীর মধ্যেও ছড়িয়ে যায় ঘটনা। ফলে বুধবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত মক্তবের ওই শিক্ষককে ঘরে অবরুদ্ধ করে রাখে এলাকাবাসী। খবর পেয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও নেতৃস্থানীয়রা উপস্থিত হন এবং ২৫ হাজার টাকায় বিষয়টি রফা করেন। তবে মিমাংসার ওই ঘটনায় অসন্তোষ প্রকাশ করে ভুক্তভোগীর পরিবার ন্যায় বিচার দাবি করেছে। তারা জানায়, ন্যায় বিচারের স্বার্থে মিমাংসার টাকা এখনও তারা হাতে নেয়নি।
নালিতাবাড়ী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সারোয়ার জানান, বিষয়টি আমাদের জানা নেই। তবে খোঁজ-খবর নিয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছি।

error: কপি হবে না!