ads

বুধবার , ৫ জুলাই ২০১৭ | ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

শেরপুরে ম্যাজিস্ট্রেটের মোবাইল ছিনতাই মামলায় ৩ যুবকের কারাদণ্ড

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
জুলাই ৫, ২০১৭ ২:৩৯ অপরাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শেরপুরে ম্যাজিস্ট্রেট দম্পতির মোবাইল ছিনতাইয়ের চাঞ্চল্যকর মামলায় ৩ যুবকের ৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও ৩ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। ৫ জুলাই বুধবার দুপুরে যুগ্ম জেলা জজ-১ হারুন-অর-রশিদ জনাকীর্ণ আদালতে ওই রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডিতরা হচ্ছে সদর উপজেলার বড়ইতা গ্রামের মোঃ মাসুদ (২৭), সজবরখিলা মহল্লার শরিফ মোঃ জন (২৪) ও ঝিনাইগাতী উপজেলার মোল্লাপাড়া গ্রামের ফয়সাল আহমেদ (২৩)। এদের প্রত্যেকের উপস্থিতিতে ওই রায় ঘোষণা করা হয়। তবে মামলার অপর আসামী সজবরখিলা মহল্লার মোঃ উল্লাস (২৫) এর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়।
রাষ্ট্রপক্ষের সিনিয়র এপিপি অরুণ কুমার সিংহ রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ২০১২ সালের ৬ আগস্ট রাত সাড়ে ৯টার দিকে শেরপুর শহর থেকে তৎকালীন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সুদীপ্তা সরকার ও তার স্বামী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের তৎকালীন এনডিসি রাজীব সরকার রিকশাযোগে শহরের বাগরাকসা এলাকাস্থ সরকারি বাসভবনে পৌঁছার পথে অজ্ঞাতনামা ৩ যুবক সুদীপ্তা সরকারের হাতে থাকা কিছু নগদ টাকা, একটি নকিয়া মোবাইল ফোন, বাসার চাবি ও কিছু কাগজপত্রসহ একটি ভ্যানিটি ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়। ওই ঘটনায় সুদীপ্তা সরকারের বেঞ্চ সহকারী মোঃ রুকনুজ্জামান বাদী হয়ে সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে থানা পুলিশ উল্লাস নামে এক যুবককে ছিনতাইকৃত মোবাইলসহ গ্রেফতার করে। পরে তার দেওয়া তথ্য মোতাবেক মোঃ মাসুদ নামে অপর এক যুবককে গ্রেফতার করা হলে সে নিজের দায়সহ অপর ২ যুবক শরিফ মোঃ ভূইয়া জন ও ফয়সাল আহমেদকে জড়িয়ে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। পরবর্তীতে তদন্ত শেষে ডিবির এসআই মিঠু মিয়া ২০১৩ সালের ২২ জানুয়ারি আদালতে ওই ৪ যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। দীর্ঘ বিচারিক প্রক্রিয়ায় মামলার ভিকটিম ব্যতীত বাদী ও ম্যাজিস্ট্রেটসহ ৮ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য ও জেরা শেষে আদালত ৩ জনকে দোষী সাব্যস্ত করে ওই সাজার আদেশ দেন।

সর্বশেষ - ব্রেকিং নিউজ

error: কপি হবে না!