ads

রবিবার , ২৮ মে ২০১৭ | ২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

দেশে কর্মসংস্থান বেড়েছে ১৪ লাখ

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
মে ২৮, ২০১৭ ৮:২১ অপরাহ্ণ

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : দেশে নতুন করে ১৪ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস)। ২০১৫ সালের জুন শেষে দেশে কর্মসংস্থান পাওয়া মানুষের সংখ্যা বেড়ে ৫ কোটি ৯৫ লাখে দাঁড়িয়েছে, যা ২০১৩ সাল শেষে ছিল ৫ কোটি ৮১ লাখ। ২৮ মে রবিবার প্রকাশিত ত্রৈমাসিক শ্রম শক্তি জরিপ ২০১৫-১৬ প্রতিবেদনে ওইসব তথ্য তুলে ধরা হয়।
রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বিবিএসের সম্মেলনকক্ষে সাংবাদিকদের সামনে প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করেন পরিচালক কবির উদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, ২০১৫ সালের জুলাই থেকে ২০১৬ সালের জুন পর্যন্ত একবছরব্যাপী একলাখ ২৩ হাজার খানা থেকে বিবিএস তথ্য সংগ্রহ করেছে। এর আগে ২০১৩ সালের জরীপে মাত্র ৩৬ হাজার খানা থেকে তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল। নতুন জরিপটি কলেবর বাড়িয়ে পরিচালনা করা হয়েছে।
বিবিএস নতুন জরিপ অনুযায়ী, দেশে মোট ৬ কোটি ২১ লাখ শ্রমশক্তির মধ্যে ২৬ লাখ লোক বেকার রয়েছে। বাকি ৫ কোটি ৯৫ লাখ মানুষের হাতে কাজ আছে। কবির উদ্দিন বলেন, আগের জরিপের তুলনায় বেকারের সংখ্যা বাড়েনি, অপরিবর্তিতই রয়েছে। ২০১৩ ও ২০১০ সালের শ্রম শক্তি জরিপে বাংলাদেশে বেকারের সংখ্যা ২৬ লাখ দেখানো হয়েছিল।
সর্বশেষ জরিপ অনুযায়ী, দেশে ১৫ বছরের বেশি বয়সী জনসংখ্যা ১০ কোটি ৬১ লাখ, যাদের মধ্যে ৬ কোটি ২১ লাখ কর্মক্ষম। বাকি ৪ কোটি ৪০ লাখ মানুষ শ্রম শক্তির আওতার বাইরে রযেছে।
কবির উদ্দিন আহমেদ বলেন, ২০১৩ সালের শ্রম জরিপের তুলনায় ৪ দশমিক ২ শতাংশ শ্রমশক্তি বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০১৫ সালে শ্রমবাজারে কর্মক্ষম মানুষের সংখ্যা ১৪ লাখ বেড়ে ৬ কোটি ২১ লাখে বেড়ে দাঁড়িয়েছে।

error: কপি হবে না!