ads

বুধবার , ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৪ | ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

বগুড়ায় আ’লীগ কার্যালয়ে সামনে হাতবোমা বিস্ফোরণ, আহত ১০ : যুবদল সভাপতি গ্রেফতার

রফিকুল ইসলাম আধার , সম্পাদক
সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৪ ৮:০৭ অপরাহ্ণ

প্রতিবাদে অর্ধদিবস হরতাল

Bogra_District_Map_Bangladesh-73প্রতীক ওমর, বগুড়া : বগুড়ায় আওয়ামীলীগ অফিসের সামনে ককটেল বিস্ফোরনে ১০ নেতাকর্মি আহত হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিক্ষুব্ধ আ’লীগ কর্মিরা শহরের বিভিন্ন স্থানে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের ছবি সম্বলিত ব্যানার ফেস্টুন ভাংচুর ও জেলা বিএনপি অফিসে হামলা করেছে। এঘটনার পর পুলিশ জেলা যুবদলের সভাপতি সিপার আল বখতিয়ারসহ ১৩ বিএনপি নেতাকর্মিকে গ্রেফতার করেছে। এদিকে, ঢাকায় বেগম খালেদা জিয়ার গাড়ী বহরে হামলা, বগুড়ায় বিএনপি অফিসে হামলা ও নেতাকর্মি গ্রেফতারের প্রতিবাদে ৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বগুড়া জেলায় অর্ধদিবস হরতাল ডেকেছে ২০ দলীয় জোট। তবে, বন্যা কবলিত এলাকা সমূহ হরতালের আওতামুক্ত থাকবে। শহরজুড়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

Shamol Bangla Ads

জানা যায়, ঢাকায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলার প্রতিবাদে বগুড়া জেলা বিএনপি বুধবার দুপুর সোয়া ১টায় শহরে মিছিল বের করে। মিছিলটি শহরের সাতমাথা প্রদক্ষিন করে। মিছিল শেষে কে বা কারা শহরের টেম্পল রোডে অবস্থিত জেলা আওয়ামীলীগ অফিস লক্ষ্য করে পরপর ৫টি ককটেল নিক্ষেপ করলে ৩টি বিস্ফোরিত হয়। ককটেলের আঘাতে শহর আ’লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক সুলতান মাহমুদ খান রনিবসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। আহতদের বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতাল ও বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনার পর বিক্ষুদ্ধ আ’লীগ কর্মিরা গালাপট্রি এলাকায় অবস্থিত জেলা শ্রমিক দল ও শহর বিএনপি অফিসে হামলা চালায়। এসময় সেখানে থাকা একটি মোটর সাইকেল ও ফুটপাতে থাকা কয়েকটি দোকান ভাংচুর করা হয়। এরপর বিকেল আনুমানিক ৪টার দিকে আওয়ামীলীগ নেতাকর্মিরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিল থেকে শহরের জিরোপয়েন্ট সাতমাথা ও তার আশেপাশের সড়কের দুইধারে টানানো খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের ছবি সম্বলিত ব্যানার, ফেস্টুন ভাংচুর করে। এসময় আতংক ছড়িয়ে পড়ে। মিছিলটি থানা মোড় হয়ে নবাববাড়ি সড়কে গিয়ে জেলা বিএনপি অফিসে হামলা চালায়। এসময় বিএনপি অফিসে অবস্থানরত নেতাকর্মীরা প্রতিহত করতে গেলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। আধাঘন্টা ব্যাপী ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া চলাকালে শহরের থানা মোড়, নবাববাড়ি সড়ক, সাতমাথা, কাঠালতলা মোড়, গালাপট্টি মোড় রনক্ষেত্রে পরিনত হয়। ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকর্মীরা মিছিল ও ভাংচুর শেষ করে দলীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয়। বিকেল ৪টার দিকে জেলা যুবদল সভাপতি ও পৌরসভার ১১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সিপার আল বখতিয়ার কয়েকজন নেতাকর্মী সাথে নিয়ে নবাববাড়ি সড়কে মিছিল বের করলে জেলা বিএনপি অফিসের সামনে পুলিশ মিছিলে বাধা দেয়। এসময় পুলিশের সাথে যুবদল নেতাকর্মীদের ধস্তাধস্তি হয়। পুলিশ একপর্যায়ে যুবদল সভাপতিসহ নেতাকর্মীদেরকে দলীয় কার্যালয়ের ভিতরে পাঠিয়ে দেয়। পরে পুলিশের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে যুবদল সভাপতি সিপার আল বখতিয়ারকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর সেখান থেকেই তাকে আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়। গ্রেফতারকৃত অপর ১২ জনকে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।
আওয়ামীলীগ অফিসে ককটেল হামলার ঘটনায় জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম বলেন, আওয়ামীলীগের অভ্যন্তরীন কোন্দলের কারনে তাদের অফিসের সামনে ককটেল বিস্ফোরন ঘটানো হয়েছে। এদিকে, বিকেলে এক জরুরী সভায় আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বগুড়া জেলায় হরতাল আহবান করেছে ২০ দলীয় জোট।
শহরের সর্বত্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও র‌্যাব সদস্য শহরে টহল দিচ্ছে।

সর্বশেষ - ব্রেকিং নিউজ

error: কপি হবে না!