ads

বৃহস্পতিবার , ২১ আগস্ট ২০১৪ | ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

আমতলীতে ছাত্র পেটানোর ঘটনায় মামলা

রফিকুল ইসলাম আধার , সম্পাদক
আগস্ট ২১, ২০১৪ ৪:১৫ অপরাহ্ণ
আমতলীতে ছাত্র পেটানোর ঘটনায় মামলা

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি : বরগুনার আমতলী উপজেলার ৫নং কালিবাড়ী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা মাহমুদা খানম সম্পা ও ম্যানেজিং কমিটি’র সভাপতি ও ইউপি সদস্য নিজমুল কাজী ৪ ছাত্রকে পিটিয়ে স্কুল থেকে বের করে দেয়। এ ঘটনায় বুধবার আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা হয়েছে। বিজ্ঞ বিচারক বৈজয়ন্তি বিশ্বাস মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ৩ সেপ্টেম্বর আসামীদেরকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।
জানা গেছে, ওই স্কুলের পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্র তানভির,সফিউল বাসার, আরিফ ও শাকুরকে স্কুলের সহকারী শিক্ষিকা মাহমুদা খানম সম্পা প্রাইভেট পড়ার প্রস্তাব দেয়। এতে তারা রাজি না হওয়াতে তাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়। সোমবার তানভিরসহ অন্যান্যরা বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় সাময়িক বাংলা পরীক্ষা দিতে আসে। পরীক্ষা চলাকালীন সময় শিক্ষিকা মাহমুদা খানম সম্পা ও সভাপতি নিজমুল কাজী তাদেরকে পিটিয়ে পরীক্ষার কক্ষ থেকে বের করে দেয় এবং কান ধরিয়ে উঠবস করায়। এ ঘটনায় বুধবার আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে তানভিরের মা শাহানারা বেগম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। বিচারক বৈজয়ন্তি বিশ্বাস মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ৩ সেপ্টেম্বর আসামীদেরকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

আমতলীতে নারীর অধিকার বিষয়ক কর্মশালা

Shamol Bangla Ads

বরগুনার আমতলীতে নারী স্বাস্থ্য অধিকার বিষয়ক এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে আমতলী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে “নারীপক্ষের পার্টনাশিপ ”প্রকল্পের আওতায় এনএসএসর সহযোগিতায় কর্মশালায় উপজেলা নাগরিক ফোরামের সভাপতি এ্যাডঃ এম এ কাদের মিয়ার সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন নারী পক্ষের প্রকল্প পরিচালক সামিয়া আফরিন, মাকসুদা বেগম, দেওয়ান মজিবুর রহমান, আনোয়ার হোসেন আকন, নজরুল ইসলাম তালুকদার, রেজাউল করিম, একেএম খায়রুল বাশার বুলবুল, এস এম নাসির মাহমুদ প্রমূখ।

আমতলীতে কোর্টের রায় পাওয়ার পর ও জমিতে যেতে পারছেনাএকটি অসহায় পরিবার

বরগুনার আমতলী উপজেলার উত্তর টেপুরা গ্রামের জাহানারা বেগম হাইকোর্ট থেকে রায় পাওয়ার পরও প্রভাবশালী মহলের কারণে জমি ভোগ দখলে যেতে পারছেন না। জমি ভোগ দখলে গেলেই প্রভাবশালীরা লাঠি-শোঠা, রামদার ভয় দেখিয়ে জমিতে যেতে দিচ্ছেন না তারা। জমি দখলের জন্য জাহানারা বিভিন্ন মহলে এমন কি থানায় ধর্না ধরেও কোন ফল পাচ্ছে না। জাহানারা জানায় টেপুরা মৌজায় সি,এস-৩৬ নং খতিয়ানে ৮ একর ৯৮.৫০ শতাংশ জমির দখল স্বত্ত্ব আদায়ের জন্য বরগুনা জেলা জজ আদালতে মামলা দায়ের করেন। জেলা জজ আদালত উক্ত জমি জাহানারা বেগমের পক্ষে রায় দিলে বিরোধী পক্ষ রায়ের বিরুদ্ধে মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগ এ আপিল করলে মহামান্য হাইকোর্টও জাহানারার পক্ষে রায় প্রদান করেন। উক্ত রায়ের পর জাহানারা গং তাদের জমিতে গেলে এলাকার প্রভাবশালী কালাম মাতুব্বর, বশির মাতুব্বর, আলম মাতুব্বর, আলমগীর মাতুব্বর এদের বাধা ও হুমকীর কারনে জাহানারা জমিতে যেতে পারছে না। জাহানারা উক্ত জমি ফিরে পাওয়ার জন্য সকলের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে।

তালতলীতে জাল দলিলের মাধ্যমে সংখ্যালগুর জমি দখলের পায়তারা

Shamol Bangla Ads

তালতলী উপজেলার ছোটভাইজোড়া গ্রামে সংখ্যালগু একটি রাখাইন পরিবারের পৈত্রিক ও কবলাকৃত জমি জ্বাল দলিলের মাধ্যমে স্থানীয় কতিপয় বাঙ্গালী দখলের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার বড়বগী ইউনিয়নের তালুকদার পাড়ার রাখাইন নেত্রী গৃহবধূ মাচেজেন এ অভিযোগ করেন। লিখিত অভিযোগে প্রকাশ, একই গ্রামের শাহআলম, শামসুল আলম ও আবদুর রশিদ হাওলাদার গংরা জ¦াল দলিল তৈরি করে বড়বগী মৌজায় ১৯৪ ও ১৯৫ নং দাগে দু অংশীদারের ৮ একর জমি দখলের চেষ্টা করছে। জমি চাষ করতে গেলে একাধিকবার তাদের বাঁধা দেয়। মাচেজেন তার অভিযোগে উল্লেখ করেন, পুলিশ অবৈধ দখল দারদের পক্ষ নিয়ে তাদের সাথে অশোভন আচরণ করে। আদিবাসী দিবসে ৯ আগষ্ট পুলিশের সহযোগিতায় প্রতিপক্ষ অবৈধ ভাবে জমি দখলের চেষ্টা করেছে বলে অভিযোগ করে মাচেজেন। এ ব্যাপারে তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান মাচেজেনের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, পুলিশ শান্তি শৃংখলা ঠিক রাখার জন্যই ঐ দিন ঘটনাস্থলে অবস্থান নিয়েছিল। কারো পক্ষে জমি দখলের জন্য নয়। স্থানীয় একাধিক বাসিন্দাদের সাথে আলাপ করে জানা গেছে, রাখাইনরা তাদের পূর্ব পুরুষ থেকে এই জমি ভোগ দখল করে আসছে। শাহআলম, শামসুল আলম ও রশিদ হাওলাদার গংদের বিরুদ্ধে এ ধরনের জ্বাল জালিয়াতির অভিযোগ ইতিপুর্বে আরো অনেক রয়েছে। অভিযুক্ত শাহআলম সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আদালতের সকল রায় আমার পক্ষে, আমি কারো জমি জোর পূর্বক দখল করতে যাইনি।

সর্বশেষ - ব্রেকিং নিউজ

error: কপি হবে না!