ads

মঙ্গলবার , ২২ জুলাই ২০১৪ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

জীবনের সংশয় থাকায় কলকাতায় এসেছি : নূর হোসেন

রফিকুল ইসলাম আধার , সম্পাদক
জুলাই ২২, ২০১৪ ২:০১ অপরাহ্ণ

1400r.জয়দেব দাস, কলকাতাঃ নারায়ণগঞ্জের আলোচিত ৭ খুন মামলার প্রধান অভিযুক্ত নূর হোসেন খুনের হাত থেকে বাঁচতে বাংলাদেশ থেকে গোপণে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় পালিয়ে এসেছে। পুলিশি হেফাওজতে থেকে পুলিশের প্রিজন ভ্যন থেকে আদালতে নিয়ে যাওয়ার পথে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নূর হোসেন এ কথা জানিয়েছে।
সে আরও জানায়, ‘শিগগিরই তার স্বজনরা ভারতে আসবেন। তারা এসে তার (নূর হোসেনের) জামিনের জন্য আবেদন করবেন। নূর দাবি করেন নারায়ণগঞ্জের ৭ খুনের ঘটনায় তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক চার্জশিট দেওয়া হচ্ছে। নূর বলেন, ৬ কোটি টাকা যাদেরকে দেওয়া হয়েছে তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট যাচাই করলেই বেরিয়ে আসবে আসলে কার সঙ্গে তাদের লেনদেন হয়েছে।’
নূর হোসেন বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের আদালতে বন্দি রয়েছে। ১৪ দিন কারাবাস শেষে ২ সহযোগীসহ ৩য় দফায় সোমবার তাকে উত্তর ২৪ পরগনার বারাসত জেলা দায়রা জজ আদালতে হাজির করা হয়। এদিন দুপুরে তাকে কলকাতার দমদম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে নূর হোসেন, অহিদুজ্জামান ও খান সুমনকে নিয়ে কড়া নিরাপত্তায় আদালতের উদ্দেশে রওনা দেয় পুলিশ। এদিনও নূরের হয়ে কোনো আইনজীবী আদালতে আইনি লড়াইয়ে অংশ নেবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার আইনজীবীরা। তবে খান সুমনের হয়ে আদালতে আইনি লড়াই করবেন তারক দাস নামের এক আইনজীবী।
প্রসঙ্গত, ১৪ জুন সন্ধ্যায় নূর গংদের দমদম এয়ারপোর্টসংলগ্ন কৈখালির একটি বহুতল আবাসিক ভবনের ৪ তলার ফ্ল্যাট থেকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। বাগুইআটি থানার পুলিশ নূরের বিরুদ্ধে অবৈধ উপায়ে ভারতে প্রবেশের মামলা করে। এরপর তাদের ৮ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। রিমান্ড শেষে ২৩ জুন তাদের আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় আদালতকে জানানো হয়, বাংলাদেশে ৭ খুনের মামলাসহ একাধিক অপরাধে নূর অভিযুক্ত। বাংলাদেশ সরকার তার বিরুদ্ধে ইন্টারপোলে রেড অ্যালার্ট জারি করেছে। এরপর নূর অবৈধভাবে কলকাতায় আশ্রয় নেন।

error: কপি হবে না!