ads

রবিবার , ২০ জুলাই ২০১৪ | ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

ঝালকাঠিতে কলেজছাত্রী অপহরণ : থানায় মামলা আহত : ২

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
জুলাই ২০, ২০১৪ ২:৪২ অপরাহ্ণ

ঝালকাঠিতে কলেজছাত্রী অপহরণ : থানায় মামলা  আহত  : ২ অপহরণকারী আটক

jhalakaTHI ,news-20.07.2014ঝালকাঠি প্রতিনিধি : অপহণের ৫ ঘন্টা পর বামনা থেকে অপহৃত কলেজছাত্রী সাবরিনা আক্তার কেয়া (১৮) সহ অপহরণকারীকে আটক করেছে কাঠালিয়া থানা পুলিশ। রবিবার সকালে উপজেলা সদরের বাসষ্টার্ন্ড থেকে ওই ছাত্রীসহ অপহরণকারী নেছার উদ্দিন আহম্মেদ হৃদয় (২৬) কে আটক করেন কাঠালিয়া থানা পুলিশ। এ সময় মুল অপহরণকারী ইমরান হোসেন (২৬) পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। বরগুনা জেলার বামনা উপজেলার চেচাং গ্রামের স্কুল শিক্ষক সেলিনা বেগমের মেয়ে সাবরিনা আক্তার কেয়াকে অপহরণের উদেশ্যে গত শনিবার গভীর রাতে ১২/১৪ জন মুখোশধারী সিদ কেটে ঘরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে কেয়াকে তুলে নেয়ার চেষ্টা চালায়। প্রতিরোধ করলে গৃহকর্তা মঞ্জুরুল ইসলাম (৫৭) ও তার স্ত্রী স্কুল শিক্ষক সেলিনা বেগম (৫৩) কে কুপিয়ে জখম করে ফেলে রেখে মেয়ে সাবরিনা আক্তার কেয়াকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। অপহরণকারীরা কাঠালিয়া হয়ে কোথাও যাচ্ছে এমন খবর পেয়ে কাঠালিয়া থানা পুলিশ বাসস্টান্ডে বসে তাদের আটক করেন। আহত কেয়ার পিতা-মাতাকে বামনা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়। এ ঘটনায় ছাত্রীর পিতা মঞ্জুরুল ইসলাম বাদী হয়ে বামনা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। কেয়ার পিতা মঞ্জুরুল ইসলাম জানান,অপহরণকারী মেয়েকে নিয়ে যাওয়ার সময় স্বর্নালংকার ও টাকাসহ বিভিন্ন মালামাল লুটে নেয়। বামনা থানার অফিসার ইনচার্জ ওমর ফারুক খান জানান, অপহণের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত নেছার নামের এক আসামীকে গ্রেফতার হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারে জোর প্রচেষ্টা চলছে।

error: কপি হবে না!