ads

মঙ্গলবার , ১৫ জুলাই ২০১৪ | ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

রাজারহাটে সর্প দংশনে গৃহবধুর মৃত্যু : রাতভর ধরে ঝাড়-ফুঁক

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
জুলাই ১৫, ২০১৪ ৪:১৫ অপরাহ্ণ
রাজারহাটে সর্প দংশনে গৃহবধুর মৃত্যু : রাতভর ধরে ঝাড়-ফুঁক

মাহফুজার রহমান (মনু) রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) : কুড়িগ্রামের রাজারহাটে সাপের কামড়ে মৃত্যুবরণকারী দু’সন্তানের জননী বুলবুলী বেগম (৪০) কে রাতভর ঝাড়-ফুঁক করার ঘটনা প্রত্যক্ষ করতে শত শত মানুষ ভীড় জমাচ্ছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সদর ইউপি’র পুনকর গ্রামে। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের মৃত মানিক মিয়া ওরফে মানিক মিলিটারীর কন্যা দু’সন্তানের জননী বুলবুলী বেগম বিয়ের পর থেকে মেয়ে-জামাতা তার বাড়িতে বসবাস করে আসছিল। সোমবার সকাল ১১টার দিকে বাড়ির পার্শ্বে জমিতে ঢেঁড়শ তুলতে গেলে ওই সময় একটি বিষধর সাপ তাকে দংশন করলে বুলবুলি চিৎকার দেয়। পরে বাড়ির ও পার্শ্ববর্তী লোকজন তাকে উদ্ধার করে। বিভিন্ন এলাকা থেকে সাপের বিষ নামানোর জন্য ওঝা (কবিরাজ) নিয়ে ঝাঁড়-ফুঁক শুরু করে। বিকাল ৩টার দিকে বুলবুলী বেগমের অবনতি ঘটলে প্রথমে কুড়িগ্রাম এবং পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে। সোমবার রাত ৮টার দিকে বুলবুলীর লাশ তার পিতার বাড়িতে আনার পর থেকে পরিবারের লোকজন সে জীবিত বলে আবারও বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত ওঝা (কবিরাজ) দের নিয়ে মৃত বুলবুলী বেগমের ঝাড়-ফুঁক শুরু করে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শত শত লোকজন সোমবার গভীর রাত পর্যন্ত ওই বাড়িতে ভীড় জমায়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বুলবুলী বেগমের ঝাড়-ফুঁক অব্যাহত রয়েছে। এ ঘটনায় এলাকাজুড়ে দারুণ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

error: কপি হবে না!