ads

বুধবার , ৯ জুলাই ২০১৪ | ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

তালায় এতিমের বসতভিটা ভাংচুর ও উচ্ছেদের চেষ্টা : আহত ৩

রফিকুল ইসলাম আধার , সম্পাদক
জুলাই ৯, ২০১৪ ৪:৩৬ অপরাহ্ণ
তালায় এতিমের বসতভিটা ভাংচুর ও উচ্ছেদের চেষ্টা : আহত ৩

নজরুল ইসলাম সাতক্ষীরা : তালা উপজেলার পাটকেলঘাটায় এক এতিমের সম্পত্তি আত্মসাতের চেষ্টায় লিপ্ত স্থানীয় একটি কুচক্রী মহল। এতিম লিটন শেখ (১৭)কে গাছের সাথে বেঁধে নির্মম নির্যাতন চালানোও হয়েছে। এখনও সম্পত্তি লোভীরা পরিবারটির উপর প্রান নাশের হুমকি অব্যহত রেখেছে।
সূত্রে জানা যায়, তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার শার্শা গ্রাম ও কুটিঘাটা বাজার সংলগ্ন ১৩২৭ দাগের , ৩২৬ খতিয়ানের ৪৭ শতক জমির উপর ৩০/৪০ বছর ধরে বসবাস করে আসছিল তব্বার গাজীর মেয়ে মোমেনা বেগম, তার স্বামী ইউসুফ আলী, পুত্র লিটন, কন্যা পারভীন আক্তার। গত বছর মোমেনা মারা যাওয়ার পরে লিটন শেখ এতিম হয়ে পড়ে। এই সুযোগ কে কাজে লাগানোর জন্য স্থানীয় ইসলামের পুত্র ফারুক গাজী (৫২), মান্নান গাজী (৫০), ওহাব গাজী (৫৫) ও ফারুক গাজীর পুত্র জাহাঙ্গীর(২৬)মিলে এতিম লিটন কে ঐ জায়গা থেকে বাড়ী ঘরে ভেঙ্গে অন্যত্র চলে যেতেও বলে। সে তাদের কথা না শোনায় গত শুক্রবার সকালে তার বাড়ী ঘর ভেঙ্গে দেয় ও লিটন কে রাস্তার পাশের একটি নারকেল গাছের সাথে বেঁধে অমানবিক নির্যাতন চালায়। এসময় লিটনের বোন পারভীন আক্তার (২৪) ও মামী তহমিনা খাতুন (২৭) তাকে রক্ষা করতে গেলে তারাও মারাতœক আহত হয়। পরে স্থানীয়রা লিটন কে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে একটি ক্লিনিকে ভর্তি করে চিকিৎসা সেবা দেয়। এঘটনায় স্থানীয় এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা লিটনের সাথে এধরনের ব্যবহারকে ধিক্কার জানিয়েছেন। এদিকে স্থানীয় আ’লীগের সভাপতি সাহেব আলী মেম্বর জানান, লিটনের সাথে যে ধরনের আচারন করা হয়েছে সে বিষয়ে আমারা এলাকার সবাই খুবই মর্মাহত, মোমেনা বেগম দীর্ঘ ৩০/৪০ বছর জমির একাংশে বসবাস করে। এছাড়া জমিটি বর্তমানে খাস খতিয়ানে চলে গেছে। এবং সামছুদ্দিন গাজীর নামে বন্দোবস্ত নেওয়া আছে। এ বিষয়ে পাটকেলঘাটা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এদিকে নিরাপত্তা হীনতায় ভূগছে লিটনের পরিবারটি। আবারো যে কোন মুহুর্তে তার বাড়ী থেকে উচ্ছেদ করা হতে পারে বলে আশংখা করা হচ্ছে।

তালার ঘোষনগর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে সোচ্ছার মানবধিকার সংগঠন ঃ অভিযোগের তদন্ত শুরু
রিপোর্ট পেশ করার আগেই অভিযুক্ত শিক্ষকের আষ্ফলন “রিপোর্ট আমার পক্ষেই নিয়েছি”

Shamol Bangla Ads

তালা উপজেলার ঘোষনগর সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিশালকান্তি দাসের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘন সহ নানাবিধ অনিয়মের অভিযোগের তদন্ত শুরু হয়েছে। এ ঘটনায় সোচ্ছার মানবধিকার সংগঠন গুলো দ্রুত আন্দোলনে নামছে। বিষয়টি নিয়ে সম্প্রতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে ঘটনার তদন্তে নেমেছে শিক্ষা অফিসের দু কর্মকর্তা।
তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তর বরাবর অভিযোগে জানযায়,œ তালা উপজেলার ঘোষনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিশাল কান্তি দাশ স্কুল চলাকালীন সময়ে অন্ত্যজ সম্প্রদায়ের কয়েক শিক্ষার্থীদের দিয়ে স্কুলের ময়লা- আবর্জনা ও মল-মূত্র পরিস্কার করতে বাধ্য করে। এ ছাড়া তার বাড়ীর ব্যক্তিগত বাগানের আম কাঠাল, সুপারী, নারকেল পাড়ানো কাজে কোমলমতি শির্ক্ষার্থীদের বব্যহার করার মত অভিযোগ রয়েছে উক্ত প্রধান শিক্ষক বিশাল কান্তির বিরুদ্ধে। উক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ডিসটিনি প্রতারনা, কোচিং বানিজ্য, নারী কেলেংকারী সহ নানা অপকর্মের অভিযোগ ও রয়েছে । এলাকার সহজ-সরল মানুষকে প্রতারনার ফঁদে ফেলে উক্ত বিশাল মাষ্টার কয়েক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন বলে সাংবাদিকদের কাছে জানান, প্রতারণার স্বীকার স্বপন দাস, প্রভাত দাস, আব্দুল্লা, অমিত সহ অনেকে । মানবাধিকার সংগঠন “ভুমিজ” ফাউন্ডেশনের প্রধান সমন্বয়কারী অচিন্ত্য সাহা জানায়, এ ধরণের ঘটনা মানবাধিকারের সুস্পষ্ট লংঘন। আমরা ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত দাবী করছি এবং এর বিরুদ্ধে মানবধিকার সংগঠনকে এগিয়ে আসার আহব্বান জানাচ্ছি।
কেন্দ্রীয় অন্ত্যজ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক বলেন, আমরা ন্যায় বিচারের অপেক্ষাতেই আছি। ন্যায় বিচার না পেলে বাংলাদেশ অন্ত্যজ পরিষদ কঠোর আন্দোলনে যাবে।
অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক বিশাল কান্তি দাশ আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ডিসটিনিতে বহু টাকা গচ্চা গেছে । আর তদন্ত রিপোর্ট আমার পক্ষেই হবে এতে সন্দেহ নেই।তালা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা প্রনব কুমার জানান, আমাদের দুজন গেজেটেট কর্মকর্তা করছেন , আশাকরি সঠিক তদন্ত হবে। তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান জানান, বিষয়টি তদন্ত চলছে, সুষ্ঠ তদন্ত না হলে পুণঃতদন্তের ব্যবস্থা করা যাবে।

সমুদ্র জয়ে সাতক্ষীরায় ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল

ভারতের সাথে সমুদ্র বিরোধে জয় পাওয়ায় সাতক্ষীরায় আনন্দ মিছিল করেছে ছাত্রলীগ। গতকাল বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সাতক্ষীরা জেলা শাখা শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্ক থেকে মিছিলটি বের করে। মিছিলটি সাতক্ষীরা শহরের পাকাপোল, নিউমার্কেট, তুফান কোম্পানির মোড়, কেস্ট ময়রার মোড়সহ বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে গিয়ে শেষ হয়।
সেখানে অনুষ্ঠিত সমাবেশে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর হুসাইন সুজানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি আমিনুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এহসান হাবিব অয়ন, যুগ্ম সম্পাদক মাসুম বিল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক রেজানুল হক, সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ শাখার সভাপতি মাহমুদুজ্জামান নিলু প্রমুখ।
বক্তারা ভারতের সাথে সমুদ্র বিরোধের রায়ে প্রায় সাড়ে ১৯ হাজার বর্গ কিলোমিটার পাওয়ায় সরকারের কূটনৈতিক তৎপরতার ভূয়সী প্রশংসা করেন ও সরকারকে অভিনন্দন জানান

বিদ্যুৎ পেল সাতক্ষীরা সদর উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের ৪৫ পরিবার

Shamol Bangla Ads

বিদ্যুৎ পেল সাতক্ষীরা সদর উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের ৪৫ পরিবার। গতকাল বুধবার সকালে এ বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধন করা হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধন করেন সাতক্ষীরা-২ সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কহিনুর ইসলাম, সাতক্ষীরা পল্লী বিদ্যুতের জেনারেল ম্যানেজার শংকর কুমার কর, ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার রেজাইল করিম খান, এজিএম নিশিত কুমার কর্মকার ও আলিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ছোটসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।
উল্লেখ্য, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের ১.১৯৩ কিলোমিটার এলাকায় ৪৫ পরিবারকে এ বিদ্যুৎ সংযোগের আওতায় আনা হয়েছে। এতে নির্মান ব্যায় হয়েছে ১১ লাখ ৯৩ হাজার টাকা।##

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সাতক্ষীরায় ভিজিএফ’র চাল বিতরণ

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ১১নং ঝাউডাঁঙ্গা ইউনিয়নে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে গরীব ও দুস্থদের মধ্যে ভিজিএফ’র চাউল বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে সাতক্ষীরা-২ সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি প্রধান অতিথি হিসেবে চাল বিতরণ করেন।
এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কহিনুর ইসলাম, ঝাউডাঁঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, ঝাউডাঁঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রজব আলীসহ ইউপি সদস্যবৃন্দ।অনুষ্ঠানে ঝাউডাঁঙ্গা ইউনিয়নের নয়টি ওয়ার্ডের দুই হাজার তিনশ ৭৭ জন ব্যক্তির মাঝে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হচ্ছে।

error: কপি হবে না!