ads

মঙ্গলবার , ৮ জুলাই ২০১৪ | ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

বগুড়ায় যমুনার ভাঙ্গনে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় নদীগর্ভে

রফিকুল ইসলাম আধার , সম্পাদক
জুলাই ৮, ২০১৪ ৯:৪১ অপরাহ্ণ

Bogra Jomuna River Vangon (01) 08.07.14প্রতীক ওমর, বগুড়া: যমুনা নদীর ভয়াবহ ভাঙ্গনে বগুড়ার সারিয়াকান্দির চরচালুয়াবাড়ী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র নামে দ্বিতল ভবনটি অবশেষে যমুনার গর্ভে বিলীন হয়ে গেল। এতে বিদ্যালয় অধ্যয়নরত প্রায় ৪শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীর শিক্ষা জীবনের ভবিষ্যত নিয়ে অভিভাবকরা উদ্বেক-উদ্বকন্ঠায় পড়েছেন। উপজেলা প্রকৌশলীর দপ্তর ও স্থানীয়রা জানান, এলজিইডির বাস্তবায়নে ১৮ বছর পূর্বে প্রায় ২৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র কাম বিদ্যালয় ভবন হিসাবে দ্বিতল পাকা ভবনটি নির্মান করা হয়েছিল। গত ৩ বছর ধরে এভবনটি যমুনার তীরে হুমকীর মুখে দাঁড়িয়ে থাকে। কিন্তু চলতি মৌসুমে হঠাৎ যমুনার ভয়াবহ ভাঙ্গনে ভবনটি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যায়। অভিযোগ রয়েছে কোন সম্ভাবতা যাচাই ছাড়াই চরাঞ্চলে ব্যয় বহুল ভবনটি করা হয়েছে। এর পরেও যদি উপজেলা প্রশাসন সময় মত নিলাম ডাকের ব্যবস্থা করত, তবে সরকারের কোষাগারে কমকরেও হলে ১০-১৫ লক্ষ টাকা জমা পড়ত। এ ব্যাপারে উপজেলার নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ জিল্লুর রহমান খান জানান, স্থানীয়দের আপত্তির কারনে ভবনটি সময়মত নিলাম ডাকের ব্যবস্থা করা সম্ভব হয়নি। তবে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির রির্পোট অনুযারি গত ২৬ জুন নিলাম ডাক দেয়া হয়, ডাকে জনৈক সাইনট্রিস ৬২ হাজার টাকায় ডেকে নেয়। তবে পরে ভবনটি ঝুঁকি পূর্ণ হওয়ায় সে আর ভবনটি ভেঙ্গে নিতে সাহস পাননি। নিয়ম অনুযায়ী তার জামানতের ৫ হাজার টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

error: কপি হবে না!