ads

বৃহস্পতিবার , ৩ জুলাই ২০১৪ | ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

বরেন্দ্র অঞ্চলের কৃষিতে নতুন সংযোজন : সাপাহারে পতিত জমিতে মুগডাল চাষ

রফিকুল ইসলাম আধার , সম্পাদক
জুলাই ৩, ২০১৪ ১২:০৯ অপরাহ্ণ

photo,sapahar,02-07-2014নয়ন বাবু, সাপাহার (নওগাঁ) : নওগাঁর সাপাহার উপজেলায় চলতি মৌসুমে পরীক্ষামূলকভাবে প্রায় ৭০ হেক্টর অনাবাদী পতিত জমিতে মুগডাল চাষাবাদ করা হয়েছে। 

Shamol Bangla Ads

নওগাঁ জেলার ঠাঁঠা বরেন্দ্র এলাকা হিসেবে সীমান্তবর্তী সাপাহার উপজেলা দেশবাসীর নিকট বেশ পরিচিত। এ উপজেলার শুস্ক এটেঁল অনাবাদী পতিত মাটিতে খরা মৌসুমে গভীর নলকুপ সহ পানির বিভিন্ন উৎস থেকে সেচ দিয়ে অল্প খরচে গম ফসলের চাষাবাদ করে আসছে। বিগত দিনে চাষিরা অধিক লাভের আশায় আমন ধান কাটার পর ওই জমিতে তরমুজের চাষাবাদ করে আসছিল। পর পর কয়েক বছর ধরে আবহাওয়া জনিত কারনে তরমুজের ফলন বিপর্যয় হয় ফলে উপজেলার কৃষকগণ অর্থনৈতিক ভাবে চরম ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়ে। পরবর্তী সময়ে ক্ষতি পুশিয়ে নিতে চাষিরা তরমুজ চাষাবাদ বাদ দিয়ে অল্প খরচে গম চাষাবাদে ঝুঁকে পড়ে। ফলে এ উপজেলায় ব্যপক হারে গমের চাষাবাদ শুরু হয়। গম কেটে নেওয়ার পর ওই জমি গুলো প্রায় ৩-৪ মাস ধরে পতিত পড়ে থাকে। বিপুল পরিমানের এ পতিত জমি গুলো হতে কৃষকগণ কি ভাবে অল্প সময়ে আবার ফসল উৎপাদন করে অর্থনৈতিক ভাবে লাভবান হতে পারে এমন সময় উপযোগী উদ্যেগ গ্রহণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: রুহুল আমিন মিঞা ও উপজেলা কৃষি অফিসার এএফএম গোলাম ফারুক হোসেন। বরেন্দ্র এলাকার পতিত জমি গুলোতে মুগডাল চাষাবাদ করার লক্ষে বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষনা ইনিষ্টিটিউট হতে উন্নত জাতের বিণা মুগ-৮ ও বাংলাদেশ কৃষি গবেষনা ইনিষ্টিটিউট হতে বারি মুগ-৬ জাতের মুগ ডালের বীজ সংগ্রহ করেন। চলতি মৌসুমে উপজেলায় প্রাথমিকভাবে চাষিদের মাঝে বিনা মুল্যে এ বীজ গুলো সরবরাহ দেওয়া হয়। এ উপজেলার পতিত ৭০ হেক্টর জমিতে এবার মুগডালের চাষাবাদ করা হয়েছে যার উৎপাদন লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে প্রায় ৮৪ মেঃ টন। উপজেলা কৃষি অফিসার এএফএম গোলাম ফারুক হোসেন জানান, এ বছর উৎপাদিত মুগডাল ক্ষীজ হিসেবে কৃষক পর্যায়ে সংরক্ষন করা হবে। আগামী বছর তা বিনামূল্যে কৃষকদের মাঝে বিতরণ করে মুগডাল চাষাবাদ সম্প্রসারণ করা হবে। বর্তমান আষাঢ় মাস আমন ধান চাষাবাদের জন্য জমি তৈরীর উপযুক্ত সময় এখন তাই উপজেলার মুগডাল চাষিরা জমি থেকে মুগডাল ফসল সংগ্রহে খুব ব্যস্ত সময় পার করছে।

error: কপি হবে না!