ads

বুধবার , ৪ জুন ২০১৪ | ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

বুড়িচংয়ে ছিনতাইকারির ছুরিকাঘাতে ব্যবসায়ী নিহত : মহাসড়ক অবরোধ

রফিকুল ইসলাম আধার , সম্পাদক
জুন ৪, ২০১৪ ৮:১২ অপরাহ্ণ
বুড়িচংয়ে ছিনতাইকারির ছুরিকাঘাতে ব্যবসায়ী নিহত : মহাসড়ক অবরোধ

তাপস চন্দ্র সরকার, কুমিল্লা : কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের সৈয়দপুর নামক স্থানে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে গত রোববার রাত সাড়ে ৯ টায় মাসুদুল ইসলাম মাসুদ (৩৫) নামের এক ব্যবসায়ী নিহত হওয়ার দুইদিন পরও আর কোন নতুন আসামী পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি। ঘটনার দিন রাতে স্থানীয় জনসাধারন এক হানিফ নামের এক ছিনতাইকারীকে আটক করে গনধোলাই দিয়ে পুলিশে সোর্পদ করে। এ সময় ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ জনতা পুলিশের গাড়ি ভাঙ্গচুর ও মহাসড়ক ৩ ঘন্টা অবরোধ করে রাখে। এতে মহসড়কের দু’পাশে অন্তত ২৫ কিলোমিটারেরও বেশি যানজটের সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই মফিজুল ইসলাম বাদি হয়ে ৫ জনকে নামীয় আসামী করে বুড়িচং থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।
স্থানীয় সূত্র ও পুলিশ জানায়, বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের কোরপাই গ্রামের মৃত সাহাদত মিয়ার ছেলে মাসুদুল ইসলাম (৩৫) গত রোববার রাত সাড়ে ৯ টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক দিয়ে মোটর সাইকেল যোগে গ্রামের বাড়ি বুড়িচং উপজেলার কোরপাই থেকে কুমিল্লা শহরের বাসায় যাচ্ছিল, যাওয়ার পথে সৈয়দপুর এলাকায় নুর ফিলিং ষ্টেশনের সামনে পৌঁছলে ছিনতাইকারীরা দুটি মোটর সাইকেল দিয়ে তার পথ অবরুদ্ধ করে। তখন তার কাছ থেকে মোটর সাইকেল, মোবাইল ও টাকা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। মাসুদ তখন বাঁধা দিয়ে চিৎকার করলে ছিনতাইকারীরা তাকে উপর্যপুরি ছুরিকাঘাত করে। ছিনতাইকারীরা তার মোটর সাইকেল, মোবাইল ও টাকা ছিনিয়ে নেয়। তার চিৎকার শুনে স্থানীয় জনতা ধাওয়া
করে হানিফ নামের একজন ছিনতাইকারীকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। আহত অবস্থায় মাসুদকে বুড়িচং এর কাবিলার ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘেষণা করে। এ ঘটনার পর উত্তেজিত স্থানীয় জনতা পুলিশের গাড়িতে ভাংচুর চালায়। এ সময় তারা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে প্রায় ৩ঘন্টা অবরোধ করে রাখে। এ সময় মহাসড়কের দু’পাশে অন্তত ২৫ কিলোমিটারেরও বেশি যানজটের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে কুমিল্লা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, ময়নামতি হাইওয়ে ক্রসিং পুলিশ ফাঁড়ির ওসি মশিউর রহমান, বুড়িচং থানা ও দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই দেবাশীষ সরকার সঙ্গীয় ফোর্স সহ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে পুলিশ আহত অবস্থায় ছিনতাইকারীকে উদ্ধার করে। আটক হওয়া ছিনতাইকারীর নাম হানিফ মিয়া (৩২) তার বাড়ি জেলার আদর্শ সদর উপজেলার উত্তর বিষ্ণপুর বাটপাড়া গ্রামের হারুনুর রশীদের ছেলে। ৫ জনের একটি ছিনতাইকারী দল এ ছিনতাইয়ে অংশ নেয় বলে প্রাথমিক ভাবে জানায় আটক হওয়া ছিনতাইকারী। এদিকে সোমবার সকালে নিহতের বড় ভাই মফিজুল ইসলাম বাদী হয়ে বুড়িচং থানায় ৫ জন কে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামীরা হল আটক হওয়া কুমিল্লা কোতয়ালীর আদর্শ উপজেলার উত্তর বিষ্ণুপুর বাটপাড়া এলাকার হারুনুর রশীদের ছেলে হানিফ মিয়া (৩২), উত্তর বিষ্ণুপুর বাটপাড়া এলাকার ফরিদ মোল্লার ছেলে, হাবিব (৩০), একই এলাকার আবদুস সাত্তারের ছেলে কুদ্দুস মিয়া (৩০), আবদুস কুদ্দুসের ছেলে টিটু মিয়া (৩২) ও অশোকতলার হেলাল উদ্দিন মোটা হেলাল (৩২)।
এ ছাড়া নিহত ব্যবসায়ী মাসুদুল ইসলামের লাশ ময়নাতদšত শেষে তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করলে গত সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টায় গ্রামের বাড়িতে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়। ঘটনার ২ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ নতুন করে কোন আসামী গ্রেফতার করতে পারেনি।
এ বিষয়ে বুড়িচং থানার দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই দেবাশীষ সরকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আহত অবস্থায় পুলিশ এক আসামীকে আটক করে। অন্য আসামীদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

error: কপি হবে না!