ads

বৃহস্পতিবার , ২৪ অক্টোবর ২০১৩ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

২৫ অক্টোবর থেকে মহাজোট সরকার অবৈধ : দাবি খালেদা জিয়ার

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
অক্টোবর ২৪, ২০১৩ ৯:৩২ অপরাহ্ণ

Khaleda 54শ্যামলবাংলা ডেস্ক : ২৫ অক্টোবর থেকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার অবৈধ বলে দাবি করেছেন বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া। তিনি বলেন, নির্বাচনের দিন গণনা শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মহাজোট সরকার অবৈধ হয়ে যাবে এবং দুর্বার আন্দোলনের মাধ্যমে তাদের ক্ষমতায় থেকে নামাতে হবে।  তিনি ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপি সমর্থক শিক্ষকদের সমাবেশে ওই কথা বলেন। এসময় তিনি শুক্রবার ঢাকায় আহূত বিএনপির সমাবেশে যোগ দিতে পেশাজীবীসহ সবার প্রতি আহ্বান জানান।
সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া বলেন, এতদিন তারা বলেছে, ফর্মুলা দেন, ফর্মুলা দেন। এখন আমরা প্রস্তাব দিয়েছি, আর তারা ধানাই-পানাই করছে। বল এখন সরকারের কোর্টে।
বিএনপি বাদ দিয়ে নির্বাচনের যে কোনো চেষ্টার বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, একক নির্বাচনের চিন্তা ছেড়ে দেন, এটা ভুলে যান। এই সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন হবে না, হতে দেয়াও হবে না।’ তিনি সরকারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আপনারা জনপ্রিয়তার বড়াই করেন। তাহলে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন করে জনপ্রিয়তা যাচাই করুন। নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে ভয় কেন। চিরস্থায়ীভাবে ক্ষমতায় থাকার জন্য ১৯৭৩ সালে একদলীয় বাকশাল কায়েম করা হয়েছিল, কিন্তু আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকতে পারেনি। এবারও তারা এককভাবে নির্বাচন করে ক্ষমতায় চিরস্থায়ীভাবে থাকার পাঁয়তারা করছে।
বিএনপি চেয়ারপারসন ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ও জামায়াতে ইসলামীর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আন্দোলনের কথা এবং ২০০৬ সালে লগি-বৈঠার মিছিল থেকে মানুষ হত্যাকাণ্ডের কথাও তুলে ধরে বর্তমান সরকারের ৫ বছরের শাসনের সমালোচনা করে বলেন, সরকার জনগণের মৌলিক অধিকার, সভা-সমাবেশের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। টক শো করতে দিচ্ছে না। বিরোধী নেতা-কর্মীদের বাড়িতে বাড়ি পুলিশ হানা দিয়ে গ্রেপ্তার করছে। এটা কি গণতন্ত্র?  সমাবেশে বক্তব্যে সরকারের সমালোচনার পাশাপাশি বিএনপি ক্ষমতায় গেলে শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্য জোটের দাবিগুলো বাস্তবায়নের অঙ্গীকারও করেন তিনি।
বিকাল পৌনে ৫টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত সমাবেশে ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিএনপি নেতাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস, আমান উল্লাহ আমান, বরকত উল্লাহ বুলু, মাহবুবউদ্দিন খোকন, ফজলুল হক মিলন, আ ন ম এহছানুল মিলন, খায়রুল কবীর খোকন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, সানাউল্লাহ মিয়া প্রমুখ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি কামাল উদ্দিন সবুজ, ডক্টরস অ্যসোসিয়েশনের যুগ্ম মহাসচিব রফিকুল ইসলাম, শিক্ষক নেতা রেজাউল করীম, শামসুল হক, মাহবুবুর রহমান মোল্লা, দেলোয়ার হোসেন, তোফাজ্জল হোসেন, আলমগীর হোসেন, জাকারিয়া শরীফ, মঞ্জুরুল ইসলাম,জাকির হোসেন প্রমুখ।

error: কপি হবে না!