ads

বৃহস্পতিবার , ১০ অক্টোবর ২০১৩ | ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

`নালিতাবাড়ীতে বিএনপির দু’গ্রুপে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া : শ্রমিক দলের সভাপন্ড : শহরে উত্তেজনা

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
অক্টোবর ১০, ২০১৩ ১১:২৩ অপরাহ্ণ

Songhorsho2জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার, নালিতাবাড়ী (শেরপুর) : গ্রুপিং-দ্বন্দ্বের জের ধরে ১০ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নালিতাবাড়ীতে বিএনপির দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে শহরে টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন মুহূের্ত ঘটে যেতে পারে রক্তক্ষয়ী ঘটনা। তবে ওই ঘটনার পর থেকেই আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় থানা পুলিশ তৎপর রয়েছে।
জানা যায়, ৭ অক্টোবর নালিতাবাড়ী উপজেলা শ্রমিক দলের ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহ্বায়ক কমিটি শেরপুর জেলা থেকে অনুমোদন পায়। এতে হুমায়ুন কবিরকে আহ্বায়ক ও মো: মানিক মিয়াকে যুগ্ম আহবায়ক করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি জেলা কমিটি অনুমোদন দেয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭ টায় পৌরশহরের হাসপাতাল মোড়ে ওই আহ্বায়ক কমিটির ডাকে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। অপর গ্রুপ বিক্ষুব্ধ হয়ে কবির গ্রুপের নেতা-কর্মীদের ধাওয়া করলে তারাও পাল্টা ধাওয়া করে। এ সময় ২ শতাধিক চেয়ার ভাঙচুর করে বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা।
এ বিষয়ে হুমায়ুন কবির জানান, জেলা কমিটি ৭ অক্টোবর তাদের কমিটির অনুমোদন দিয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আলোচনা সভার আয়োজন করলে উপজেলা বিএনপির সভাপতি নুরুল আমীন, শহর বিএনপির আহ্বায়ক ও নালিতাবাড়ী পৌর সভার মেয়র আনোয়ার হোসেন ও শহর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান লিটনের লোকজন তাদের ধাওয়া করে আলোচনা সভা পন্ড করে দেয়। পরে উভয় পক্ষের নেতা-কর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়।
উপজেলা বিএনপির সভাপতি নুরুল আমীন জানান, নালিতাবাড়ীর নেতা-কর্মীদের না জানিয়ে জেলা কমিটি ওই আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন দেয়। এতে উপজেলার নেতা কর্মীরা বিক্ষুব্ধ হয়। ওই কমিটির কার্যক্রম স্থগিত করার জন্য জেলা ও কেন্দ্রীয় কমিটিকে অবহিত করা হয়। তার পরেও ওই কমিটির কর্মকান্ড বন্ধ হয়নি। তাই বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা আলোচনা সভা পন্ড করে দেয়।
পৌর শহর বিএনপির আহ্বায়ক মেয়র আনোয়ার হোসেন জানান, অনুমোদিত ওই আহ্বায়ক কমিটির কর্মকান্ড না করার জন্য বলার পরও তারা আলোচনা সভা আহ্বান করায় বিক্ষুব্ধ নেতা কর্মীরা তাদের সভা পন্ড করে দিয়েছে।
নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম (পিপিএম) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান ধাওয়া-পাল্টা ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন পক্ষই মামলা করেনি। তবে এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

error: কপি হবে না!