ads

বুধবার , ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ | ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগে শেরপুরের শ্রীবরদী পৌর মেয়রসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা : ব্যাপক তোলপাড়

রফিকুল ইসলাম আধার , সম্পাদক
সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৩ ৬:৫৮ অপরাহ্ণ

Mamlaশ্রীবরদী (শেরপুর) সংবাদদাতা : শেরপুরের শ্রীবরদী পৌরসভার হিসাব সহকারী নিয়োগ প্রদানে অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগে পৌর মেয়র ও উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি আব্দুল হাকিমসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে। শ্রীবরদী পৌর এলাকার তাতীহাটি পূর্বপাড়া গ্রামের হাসেন আলীর পুত্র মাজেদুল ইসলাম সুজন ১৬ সেপ্টেম্বর সোমবার সহকারী জজ আদালতে ওই মামলাটি দায়ের করেন।  মামলায় অন্যান্য বিবাদীরা হলেন শেরপুরের জেলা প্রশাসক, শ্রীবরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা,  স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের পরিচালক, হিসাব সহকারী পদে নিয়োগ পাওয়া তারেক হাসান, শ্রীবরদী পৌরসভার সচিব আবু আহম্মেদ সেলিম, পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী মঞ্জুর হোসেন ও পৌরসভার কমিশনার আবিদ হোসেন নতুন।
এদিকে, বুধবার খোজ নিয়ে জানা গেছে, ওই মামলার পর থেকে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় চলছে । বিষয়টি শ্রীবরদী শহরে ‘টক অব দি টাউন’ এ পরিণত হয়েছে।
মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে প্রকাশ, শেরপুর জেলার স্থায়ী বাসিন্দাদের কাছ থেকে দরখাস্ত আহ্বান করা হলেও পৌর মেয়র আব্দুল হাকিম পৌর বিধিমালা অনুসরন না করে বেআইনী ও খামখেয়ালীভাবে তার অধিনস্থ ব্যক্তিদের দ্বারা নিয়োগ কমিটি গঠন করে জামালপুর সদরের বেলটিয়া ভেলাপিঙ্গলহাটি গ্রামের বাসিন্দা আবেদ আলীর পুত্র তারেক হাসানকে হিসাব সহকারী পদে নিয়োগ প্রদান করেন। মামলার বাদী মাজেদুল ইসলাম সুজন ২৩ আগস্ট যথারীতি নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিয়ে হিসাব সহকারী পদে প্রথম স্থান অধিকার করেন। এরপর মৌখিক পরীক্ষাতেও তিনি প্রথম স্থান অধিকার করেন। কিন্তু পৌর মেয়র আব্দুল হাকিম চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশে কয়েকদিন গড়িমসি করেন। অবশেষে ৩০ আগস্ট ফলাফল পরিবর্তন করে বেআইনীভাবে তাকে দ্বিতীয় স্থান অধিকারী দেখিয়ে জামালপুর জেলার বাসিন্দা তারেক হাসানকে হিসাব সহকারী পদে নিয়োগ প্রদান করেন।

error: কপি হবে না!