ads

রবিবার , ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৩ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

কুড়িগ্রাম-৪ আসনে বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশী মোখলেছুর রহমান গণ-সংযোগ

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৩ ৭:১৯ অপরাহ্ণ
কুড়িগ্রাম-৪ আসনে  বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশী মোখলেছুর রহমান  গণ-সংযোগ

জিয়াউর রহমান জিয়া, রাজীবপুর (কুড়িগ্রাম) :সংসদীয় আসন পুর্নবিন্যাসের ফলে কুড়িগ্রাম-৪ (রৌমারী, রাজীবপুর) আসনে আগামি সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে এলাকায় সরগরম হয়ে উঠছে। এরই মধ্যে এলাকার আনাচে-কানাচে, হাটবাজারে এলাকাবাসিকে শুভেচ্ছা জানিয়ে মনোনয়ন প্রত্যার্শীদের পোস্টারে ছেয়ে গেছে। অনেকে সভা-সমাবেশের আয়োজন করে গণ-সংযোগ করেছেন। বিএনপি ,আ’লীগ ও জাতীয় পার্টি  থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী অসংখ্য প্রার্থী এখন মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। রাজীবপুর উপজেলা শাখার বিএনপির সভাপতি ও কুড়িগ্রাম জেলার বিএনপির সহ-সভাপতি  অধ্যাপক মো:মোখলেছুর রহমান ।
আসন পুর্নবিন্যাসের ফলে এ আসনে রাজপথের সৈনিক,সফল রাষ্টনায়ক,স্বাধীনতার ঘোষাক জিয়াউর রহমানের আর্দশের সংগ্রামী নেতা প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন প্রত্যাশী মোখলেছুর রহমান বহুদিন থেকে হাট-বাজারও গ্রাম-গঞ্জে সভা সমাবেশ করে যাচ্ছেন।
মোখলেছুর রহমান রাজীবপুর, মোহনগঞ্জ, কোদালকাটি, বালিয়ামারী, কর্তিমারী, রৌমারী, দাতভাঙ্গা, টাপুরচর, শৌলমারী, বড়াইবাড়ি কান্দি বাজারে সভা সমাবেশ,মিছিল মিটিং  করেছেন।
তিনি আরো জানান, রৌমারী, রাজীবপুর, চিলমারী উপজেলার নয়াহাট ও অষ্টমীচর এবং উলিপুর উপজেলার সাহেবের আলগা ইউনিয়নকে নিয়ে কুড়িগ্রাম-৪ আসন গঠন করায় এলাকাবাসির মাঝে আনন্দ উল্লাস চলছে। গত নির্বাচনে এই আসনে চার দলীয় জোটর প্রাথী হিসাবে ছিলেন জামায়াতে ইসলামীর চিলমারীর উপজেলার আমীর মো: মুকুল হোসেন কিন্তু এবার এই আসন পুর্নবির্ন্যাসের ফলে  রৌমারী ও রাজিবপুর, চিলমারী উপজেলার কিছু অংশ এবং উলিপুর উপজেলার একটি ইউনিয়ন নিয়ে কুড়িগ্রাম ৪ আসনটি গঠিত।
এই আসন টি আগে জামায়াতে ইসলামী ছিল । বর্তমানে এই আসনে জামায়াতে ইসলামীর তেমন কোন নেতা নেই । রাজিবপুর উপজেলার মোহনগঞ্জ ইউনিয়নের বিএনপির সভাপতি মো: আজিজুর রহমান বলেন, পরপর দুই বার এই আসনটি জামায়াতে ইসলামীর প্রার্থী ছিল কিন্তু কোন ফল আসেনি । এইবার আসনটিতে বিএনপির প্রার্থী অধ্যাপক মো:মোখলেছুর রহমান কে মনোয়ন দিলে ১৮ দল জোট এই আসনটি ফিরে পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে অভিজ্ঞমহলের বিশ্বাস ।
এদিকে এলাকায় খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, ১৮দল জোটের অধ্যাপক মো: মোখলেছুর রহমানকে প্রার্থী হিসেবে  পছন্দ করে এলাকাবাসি। আর এ কারনে রৌমারী ও রাজীবপুর উপজেলার বিএনপির সকল নেতাকর্মীরা অধ্যাপক মো: মোখলেছুর রহমানের  গন সংযোগ ও সমাবেশে অংশ নিচ্ছে বলে জানান উপজেলা বিএনপি সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিজুর রহমান। তিনি আরো জানান, অধ্যাপক মো: মোখলেছুর রহমান কে মনোনয়ন দিলে বিএনপির হারানো এ আসনটি আবার ফিলে পাবে। তাছাড়া  মোখলেছুর রহমান একজন সৎ, নিষ্ঠাবান রাজনীতিবিদ। এলাকার মানুষ তাকে ভালোবাসে। এলাকায় তার গনসংযোগ, মতবিনিময় ও সমাবেশে হাজারো মানুষের উপস্থিতি সেটাই প্রমাণ করে।

error: কপি হবে না!