ads

মঙ্গলবার , ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৩ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

চট্ট্রগ্রাম ইপিজেডে ২ কারখানায় পিস রেট নিয়ে শ্রমিক অসন্তোষ : কর্মকর্তারা অবরুদ্ধ

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৩ ১:১০ অপরাহ্ণ

CEPZশ্যামলবাংলা ডেস্ক :  সোয়েটার প্রতি উৎপাদন মূল্য নির্ধারণ নিয়ে চট্টগ্রাম রপ্তানি প্রক্রিয়াজাতকরণ অঞ্চলে দেশি-বিদেশি দু’টি কারখানার শ্রমিকদের মধ্যে ১০ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার ব্যাপক উত্তেজনা হয়েছে। কারখানা দু’টি হচ্ছে সিইপিজেডের ২নং সড়কে বাংলাদেশি মালিকানাধীন মিলেনিয়াম সোয়েটার্স লিমিটেড ও ৪নং সড়কে সিঙ্গাপুরের বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান মালিকানাধীন সুপার ফাইন নিটিং লিমিটেড।
পিস রেট অনুসারে মূল্য নির্ধারণে শ্রমিকদের মাঝে উত্তেজনা ও অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়লে কারখানা কর্তৃপক্ষ বেশ কয়েকজন শ্রমিককে লাঞ্ছিত করে। এরই জের ধরে শ্রমিকরা দু’টি কারখানার উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের ভেতরে অবরুদ্ধ করে কারখানা দু’টির মূল ফটক বন্ধ করে ভেতরে দফায় দফায় শ্লোগান দিয়ে মিছিল করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ও বেপজা’র কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গেলেও বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা তাদের কারখানার ভেতরে প্রবেশ করতে দিচ্ছেনা।
জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে কারখানা দু’টিতে উত্তেজনা শুরু হয়। এক পর্যায়ে সব শ্রমিক কারখানা থেকে বেরিয়ে এসে বিক্ষোভ শুরু করেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, কারখানার মালিকরা কেউ দেশে না থাকায় শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনা শুরু করা যাচ্ছে না।
সিইপিজেডের মহাব্যবস্থাপক এস এম আব্দুর রশিদ জানান, পিস রেট শ্রমিকদের মন:পুত না হওয়ায় তাদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। ঘটনাস্থলে থাকা নগর পুলিশের বন্দর জোনের অতিরিক্ত উপ কমিশনার মনজুর মোর্শেদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, প্রায় ৩/৪ হাজার শ্রমিক কারখানার সামনে অবস্থান নিয়ে মূল ফটকের ভেতরের ফটকে তালা দিয়ে ব্যবস্থাপকসহ কয়েকজন উদ্ধর্তন কর্মকর্তাকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে।
ঘটনাস্থলে শিল্প পুলিশ ও সাধারণ পুলিশের প্রায় দেড়’শ সদস্য অবস্থান করলেও তারা ভেতরে ঢুকতে পারেননি। বেপজার মহাব্যবস্থাপকসহ কর্মকর্তারা গিয়েও শ্রমিকদের বাধায় ভেতরে ঢুকতে পারেননি।

error: কপি হবে না!