ads

বুধবার , ৭ আগস্ট ২০১৩ | ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

সাভারে বেতন-ভাতার দাবিতে শ্রমিক অসন্তোষ,পুলিশের লাঠিচার্জ : আহত ১২০

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
আগস্ট ৭, ২০১৩ ১১:০১ অপরাহ্ণ

savarশ্যামলবাংলা ডেস্ক : সাভারে বকেয়া বেতন-ভাতার দাবিতে বিক্ষোভ ও ভাঙচুর করেছে প্রাইড গ্রুপের শ্রমিকরা। ৭ আগস্ট বুধবার দুপুরে সাভার পৌর এলাকার উলাইল বাসস্ট্যান্ডে অবস্থিত প্রাইড গ্রুপের এইচআর টেক্সটাইলস কারখানায় ওই ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অন্তত: ২০ জন শ্রমিক আহত হয়েছেন।
কারখানার শ্রমিকরা জানায়, সরকার ৭ তারিখের মধ্যে সকল শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করার ঘোষণা দিলেও প্রাইড গ্রুপের মালিকপক্ষ শ্রমিকদের বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধ করেনি। গতকালও কর্তৃপক্ষ বেতন দেয়ার কথা বলে তাদের দিয়ে ৮ ঘণ্টার পরিবর্তে ১৬ ঘণ্টা কাজ করিয়েছে। মঙ্গলবার সকালে বেতন-ভাতা দেয়ার কথা থাকলেও দেয়নি। এইচআর টেক্সটাইলস কারখানা কর্তৃপক্ষ এটিএম বুথের মাধ্যমে বেতন দেয়া হবে বলে শ্রমিকদের সাথে এক অভিনব প্রতারণার আশ্রয় নিলে শ্রমিকরা এর বিরোধিতা করে। এটিএম বুথের বিভিন্ন অসুবিধার কথা ভেবে  হাতে হাতে বেতন দেয়ারও দাবি জানান।
এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা বেতন-ভাতা না পেয়ে কারখানার সিকিউরিটি লাইট, সিসি ক্যামেরা, কারখানা মূল ফটক ও সামনে থাকা বেশ কয়েকটি গাড়িতে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে ভাঙচুর করে। একপর্যায়ে শ্রমিকরা ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করার চেষ্টা করলে পুলিশ তাদেরকে লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ  করে দেয়।
সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক শেখ ফরিদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, শ্রমিক বিক্ষোভের আশঙ্কায় কারখানার সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েনের পাশাপাশি কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করা হচ্ছে।
অন্যদিকে, আশুলিয়ার ইয়াছিনবাগ এলাকার ল্যান্ডমার্ক গ্রুপের কয়েকটি কারখানায় বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ করছে শ্রমিকরা । এঘটনায় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা কারখানায় ব্যাপক ভাঙচুর করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। এ সময় কমপক্ষে ১০০ জন শ্রমিক আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। বর্তমানে ওই এলাকায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

error: কপি হবে না!