ads

শনিবার , ৯ মার্চ ২০১৩ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত অনলাইন নিউজ পোর্টাল
  1. ENGLISH
  2. অনিয়ম-দুর্নীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আমাদের ব্লগ
  6. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-অগ্রগতি
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কৃষি ও কৃষক
  11. ক্রাইম
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. চাকরির খবর
  15. জাতীয় সংবাদ

বলিউডের চড় সমাচার

শ্যামলবাংলা ডেস্ক
মার্চ ৯, ২০১৩ ১০:২৯ অপরাহ্ণ
বলিউডের চড় সমাচার

2013-03-09-05-39-21-513acb09123b8-binoশাহরুখ খান, সালমান খান, গোবিন্দ, অক্ষয় কুমার এবং পূজা ভাটের পর এবার প্রতিপক্ষের গালে চড় মেরে খবরের শিরোনাম হয়েছেন বলিউডের অভিনেতা ও নির্মাতা সোহেল খান।
নির্মাতা ডেভিড ধাওয়ানের ছেলে ও অভিনেতা বরুণ ধাওয়ানের গালে চড় মেরেছেন সোহেল—গত কয়েকদিন ধরেই এমন খবরে সরগরম হয়ে আছে বলিউড কেন্দ্রিক বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম। অবশ্য সোহেল কিংবা বরুণের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করা হয়নি। তাঁরা দুজনই চেপে গেছেন এ খবর। তাঁরা স্বীকার না করলেও, ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাতে মিড-ডে জানিয়েছে, সম্প্রতি সোহেলের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েছিলেন বরুণ। এক পর্যায়ে তাঁর গালে কষে চড় বসিয়ে দেন সোহেল। রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে গায়ে হাত তোলায় এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকবারই রসালো খবরের জোগান দিয়েছেন বলিউডের একাধিক তারকা। ধর্মেন্দ্র, নূতন থেকে শুরু করে শাহরুখ খান, সালমান খান, গোবিন্দ, অক্ষয় কুমার এবং পূজা ভাটের নামও ঠাঁই পেয়েছে এই তালিকায়।
শাহরুখ খান-শিরীষ কুন্দার
গত বছর মুক্তি পাওয়া ‘অগ্নিপথ’ রিমেকে সঞ্জয় দত্তের আনকোরা অভিনয়-শৈলী দারুণ প্রশংসিত হয়েছিল। এ সাফল্য উদযাপন করতে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলেন সঞ্জয়। আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে ছিলেন ‘বলিউড বাদশাহ’খ্যাত শাহরুখ এবং ‘জোকার’খ্যাত চিত্র নির্মাতা শিরীষ কুন্দার। এমনিতেই ‘রা ওয়ান’ ছবি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ রক্ষার ওয়েবসাইটে উলটা-পালটা মন্তব্য করায় শিরীষের ওপর বেজায় চটে ছিলেন শাহরুখ। তার ওপর সেদিনের অনুষ্ঠানে শাহরুখের পেছনে লাগায় নিজের রাগকে আর সামলে রাখতে পারেননি কিং খান। কষে চড় বসিয়ে দিয়েছেন শিরীষের গালে। পরে অবশ্য শিরীষের স্ত্রী ও শাহরুখের বন্ধু ফারাহ খানসহ আরও কয়েকজনের উদ্যোগে ঘটনার কয়েকদিন পরই মিটমাট করে ফেলেন শাহরুখ-শিরীষ।
সালমান খান-সুভাষ ঘাই
২০০৮ সালে বলিউডের বর্ষীয়ান চিত্র নির্মাতা সুভাষ ঘাঁইয়ের ‘যুবরাজ’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন সালমান খান। তবে ছবিটিতে অভিনয়ের আগে তুঘলকি এক কাণ্ড ঘটিয়ে বসেছিলেন ‘ব্যাডবয়’ তকমা পাওয়া সালমান। ‘খলনায়ক’, ‘পরদেশ’, ‘তাল’-এর মতো ছবি উপহার দিয়ে অনেক আগেই বলিউডে সম্মানজনক একটি জায়গা করে নিয়েছিলেন সুভাষ ঘাই। একটি পার্টিতে বাবার বয়সী সেই নির্মাতার কিছু মন্তব্য হজম করতে না পেরে তাঁর গালে চড় মারার দুঃসাহস দেখিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে যান সালমান। বিষয়টি জানতে পেরে সুভাষের কাছে সালমানকে ক্ষমা চাইতে বলেন তাঁর বাবা সেলিম খান। পরে অবশ্য সবকিছু ভুলে সুভাষের পরিচালনায় ‘যুবরাজ’ ছবিতে অভিনয় করেন সালমান।
গোবিন্দ-নীরজ ভোরা
বেশ কয়েক বছর ধরে ঝুলে ছিল ‘ফির হেরা ফেরি’খ্যাত বলিউডের নির্মাতা ও অভিনেতা নীরজ ভোরা পরিচালিত ‘রান ভোলা রান’ ছবির শুটিংয়ের কাজ। সেই ২০০৭ সাল থেকে ছবিটির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন বলিউডের অভিনেতা গোবিন্দ। ২০১২ সালে ছবিটির শুটিং পর্ব শেষ হলেও, সম্পাদনার কাজ শেষ হয়নি। এমনিতেই বারবার ছবির শুটিংয়ের কাজ পিছিয়ে যাওয়ার নীরজের ওপর খ্যাপা ছিলেন গোবিন্দ। তার ওপর ছবিটির আরেক অভিনেতা আরিয়ান ভেদকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন নীরজ—এমনটা মনে হওয়ায় রাগ সামলাতে না পেরে শেষমেষ একদিন নীরজের গালে চড় বসিয়ে দেন গোবিন্দ। পরে তাঁরা দুজনই ঘটনাটি চেপে যাওয়ার চেষ্টা করলেও, হাটে হাঁড়ি ভেঙে দেন ছবির সেটে হাজির থাকা কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী। এ ছাড়া, ২০০৮ সালে মুক্তি পাওয়া ‘মানি হ্যায় তো হানি হ্যায়’ ছবির সেটেও এক ভক্তের গায়ে হাত তুলেছিলেন গোবিন্দ।
অক্ষয় কুমার-প্রকাশ জাজু
একবার প্রিয়াংকা চোপড়ার সঙ্গে অক্ষয় কুমারের প্রেমের গুজব ছড়িয়ে পড়লে তাঁর কর্মচারী প্রকাশ জাজুর ওপর দারুণ চটে যান ‘খিলাড়ি’ তারকা অক্ষয়। তাঁর মতে, এসব আজেবাজে গুজব রটানোর পেছনে হাত ছিল প্রকাশের। তিনিই (প্রকাশ) মিডিয়াতে অক্ষয় এবং প্রিয়াংকার প্রেমের গুজব ফাঁস করেছিলেন। এসব কারণে ফিল্মিস্তান স্টুডিওতে সবার সামনে প্রকাশের গালে চড় মেরে তাঁকে শাসন করেন অক্ষয়।
পূজা ভাট-মুজাম্মেল ইব্রাহিম
বলিউডের অভিনেত্রী ও নির্মাতা পূজা ভাট পরিচালিত ‘ধোঁকা’ (২০০৭) ছবির মাধ্যমে বলিউড অভিষেক হয়েছিল মডেল ও অভিনেতা মুজাম্মেল ইব্রাহিমের। ছবিটির শুটিং চলকালে একটি দৃশ্যে ঠিকমতো অভিব্যক্তি দিতে পারছিলেন না ইব্রাহিম। ব্যস, সামান্য এ কারণেই ভীষণ চটে যান পূজা। রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে ইব্রাহিমের গালে চড় মেরে বসেন তিনি।
চড় মারার প্রথা বলিউডে মোটেও নতুন নয়। একটি ফিল্ম স্টুডিওতে প্রখ্যাত অভিনেতা সঞ্জীব কুমারের গালে চড় মেরেছিলেন পঞ্চাশের দশকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী নূতন। প্রখ্যাত কবি ও গীতিকার আনন্দ বকশিও একই কাণ্ড ঘটিয়েছিলেন সংগীত পরিচালক লক্ষ্মীকান্তর সঙ্গে। এ ছাড়া, নির্মাতা, প্রযোজক ও অভিনেতা সঞ্জয় খানের গালে চড় মেরে হইচই ফেলে দিয়েছিলেন বলিউডের ‘অ্যাকশন কিং’ তকমা পাওয়া ধর্মেন্দ্র।

error: কপি হবে না!