দুপুর ২:৩৯ | সোমবার | ৯ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

হামলায় ছাত্রলীগ নেতা আহত ॥ শেরপুর সরকারি কলেজ হঠাৎ উত্তপ্ত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আধিপত্য ও কর্তৃত্ব নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে শেরপুর সরকারি কলেজে হামলায় হাফিজুর রহমান বিপুল (২০) নামে এক ছাত্রলীগ নেতা আহত হয়েছে। ১৯ মে রবিবার বিকেলে শেরপুর সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে ওই হামলার ঘটনা ঘটে। আহত বিপুল শহরের কসবা বারাকপাড়া মহল্লার সুন্নত আলীর ছেলে এবং সে শেরপুর সরকারি কলেজের ডিগ্রী ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী ও কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। হামলায় রক্তাক্ত ক্ষত নিয়ে সে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এদিকে ওই হামলার ঘটনায় মামলা ও পাল্টা মামলা দায়ের হলেও সোমবার পর্যন্ত গ্রেফতার হয়নি কেউ। অন্যদিকে ওই ঘটনায় দীর্ঘদিন শান্ত থাকা শেরপুর সরকারি কলেজ ক্যাম্পাস হঠাৎ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে কলেজে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
জানা যায়, আওয়ামী লীগের বিবদমান দু’গ্রুপের মধ্যে পশ্চিমাঞ্চলের নেতাদের সাথে থাকা মীরগঞ্জসহ অন্যান্য এলাকার ছাত্রলীগের একটি অংশ বেশ কিছুদিন যাবত এককভাবে শেরপুর সরকারি কলেজে দলীয় রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করে আসছে। কয়েকদিন আগে ওই কর্তৃত্বে ভাগ বসাতে বিবদমান অপর অংশের আশির্বাদ নিয়ে বাগরাকসা এলাকার ছাত্রলীগ নেতা দীন ইসলাম দীপনের নেতৃত্বে অপর একটি অংশ তৎপর হয়ে উঠে। এ নিয়ে শুরু হয় কলেজ ছাত্রলীগের রাজনীতিতে কর্তৃত্ব ও আধিপত্য বিস্তারের লড়াই। ওই অবস্থায় ১৯ মে রবিবার বিকেল ৩টার দিকে কলেজের শহীদ মিনারের সামনের রাস্তায় একা পেয়ে ছাত্রলীগ নেতা হাফিজুর রহমানর বিপুলের উপর হামলা হয়। হামলায় বিপুলের পিঠে, কাঁধেসহ শরীরে কয়েকটি গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়। পরে তাকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। ওই ঘটনায় উত্তেজন ছড়িয়ে পড়লে হামলাকারীরা সটকে পড়ে। অভিযোগ উঠেছে, কলেজে কতৃত্ব প্রতিষ্ঠার জন্য বাগরাকসা এলাকার কতিপয় ছাত্রলীগ কর্মী স্থানীয় ছাত্রদল কর্মীদের নিয়ে ওই হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। অন্যদিকে পাল্টা হামলার কথাও দাবি করছে প্রতিপক্ষ।
এদিকে ছাত্রলীগ নেতা বিপুলের উপর হামলার ঘটনায় তার ছোটভাই বাদী হয়ে রবিবার রাতে দীপন ও বাবুসহ ১১ জনকে স্বনামে এবং আরও অজ্ঞাতনামা ১০/১৫ জনের বিরুদ্ধে সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।
এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম সোমবার সন্ধ্যায় শ্যামলবাংলা২৪ডটকমকে জানান, শেরপুর সরকারি কলেজে হামলার ঘটনায় রবিবার রাতে পরস্পরবিরোধী দু’টি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনার বিষয়ে তদন্ত চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অন্যদিকে কলেজ ক্যাম্পাসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ মোতায়েনসহ নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শেরপুরে দুর্নীতিবিরোধী দিবসে র‌্যালি, মানববন্ধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

» আজ নকলা হানাদার মুক্ত দিবস

» মানবাধিকার সংস্থা ‘আমাদের আইন’ শ্রীবরদী উপজেলা শাখার কমিটি গঠন

» বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী

» বিএনপির নেতৃত্ব এখন অস্তিত্ব সংকটে : ওবায়দুল কাদের

» ড. আবদুল আলীম তালুকদার’র পদ্য ‘জননী জন্মভূমি’

» প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার নিলেন তারকারা

» ফেসবুক ও পোর্টাল থেকে মিথিলা-ফাহমির ব্যক্তিগত ছবি সরাতে নির্দেশ

» শেরপুরে যানজট নিয়ে জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় উদ্বেগ প্রকাশ

» মহিউদ্দিন বিন্ জুবায়েদ’র ‘বিজয়ের ছড়া’

» মহান বিজয় দিবস উ্দযাপন ও কিছু কথা

» ঝিনাইগাতীতে কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের শান্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত

» ঢাকা রেঞ্জ সম্মেলন কক্ষে অনলাইন জিডি সফটওয়্যার প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

» নারী ক্রিকেটে স্বর্ণ জিতল বাংলাদেশ

» নকলায় মৎস্য চাষীদের নিয়ে মাঠ দিবস

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  দুপুর ২:৩৯ | সোমবার | ৯ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

হামলায় ছাত্রলীগ নেতা আহত ॥ শেরপুর সরকারি কলেজ হঠাৎ উত্তপ্ত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আধিপত্য ও কর্তৃত্ব নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে শেরপুর সরকারি কলেজে হামলায় হাফিজুর রহমান বিপুল (২০) নামে এক ছাত্রলীগ নেতা আহত হয়েছে। ১৯ মে রবিবার বিকেলে শেরপুর সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে ওই হামলার ঘটনা ঘটে। আহত বিপুল শহরের কসবা বারাকপাড়া মহল্লার সুন্নত আলীর ছেলে এবং সে শেরপুর সরকারি কলেজের ডিগ্রী ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী ও কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। হামলায় রক্তাক্ত ক্ষত নিয়ে সে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এদিকে ওই হামলার ঘটনায় মামলা ও পাল্টা মামলা দায়ের হলেও সোমবার পর্যন্ত গ্রেফতার হয়নি কেউ। অন্যদিকে ওই ঘটনায় দীর্ঘদিন শান্ত থাকা শেরপুর সরকারি কলেজ ক্যাম্পাস হঠাৎ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে কলেজে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
জানা যায়, আওয়ামী লীগের বিবদমান দু’গ্রুপের মধ্যে পশ্চিমাঞ্চলের নেতাদের সাথে থাকা মীরগঞ্জসহ অন্যান্য এলাকার ছাত্রলীগের একটি অংশ বেশ কিছুদিন যাবত এককভাবে শেরপুর সরকারি কলেজে দলীয় রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করে আসছে। কয়েকদিন আগে ওই কর্তৃত্বে ভাগ বসাতে বিবদমান অপর অংশের আশির্বাদ নিয়ে বাগরাকসা এলাকার ছাত্রলীগ নেতা দীন ইসলাম দীপনের নেতৃত্বে অপর একটি অংশ তৎপর হয়ে উঠে। এ নিয়ে শুরু হয় কলেজ ছাত্রলীগের রাজনীতিতে কর্তৃত্ব ও আধিপত্য বিস্তারের লড়াই। ওই অবস্থায় ১৯ মে রবিবার বিকেল ৩টার দিকে কলেজের শহীদ মিনারের সামনের রাস্তায় একা পেয়ে ছাত্রলীগ নেতা হাফিজুর রহমানর বিপুলের উপর হামলা হয়। হামলায় বিপুলের পিঠে, কাঁধেসহ শরীরে কয়েকটি গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়। পরে তাকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। ওই ঘটনায় উত্তেজন ছড়িয়ে পড়লে হামলাকারীরা সটকে পড়ে। অভিযোগ উঠেছে, কলেজে কতৃত্ব প্রতিষ্ঠার জন্য বাগরাকসা এলাকার কতিপয় ছাত্রলীগ কর্মী স্থানীয় ছাত্রদল কর্মীদের নিয়ে ওই হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। অন্যদিকে পাল্টা হামলার কথাও দাবি করছে প্রতিপক্ষ।
এদিকে ছাত্রলীগ নেতা বিপুলের উপর হামলার ঘটনায় তার ছোটভাই বাদী হয়ে রবিবার রাতে দীপন ও বাবুসহ ১১ জনকে স্বনামে এবং আরও অজ্ঞাতনামা ১০/১৫ জনের বিরুদ্ধে সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।
এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম সোমবার সন্ধ্যায় শ্যামলবাংলা২৪ডটকমকে জানান, শেরপুর সরকারি কলেজে হামলার ঘটনায় রবিবার রাতে পরস্পরবিরোধী দু’টি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনার বিষয়ে তদন্ত চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অন্যদিকে কলেজ ক্যাম্পাসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ মোতায়েনসহ নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!