প্রকাশকাল: 28 জানুয়ারী, 2019

শ্রীবরদীতে বিদায় অনুষ্ঠানে হামলায় শিক্ষকসহ আহত ৪

শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি ॥ শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার টেঙ্গগরপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানে সন্ত্রাসী হামলায় শিক্ষক ও ছাত্রসহ ৪ জন আহত হয়েছে। ২৭ জানুয়ারি রবিবার দুপুরে নিজেদের আধিপত্য নিয়ে ওই হামলার ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা সৃষ্টি হলে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।
জানা যায়, রবিবার দুপুরে শ্রীবরদী উপজেলার টেঙ্গরপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান চলাকালে দশম শ্রেণির ছাত্র মেহেদী হাসান ও তার ঘনিষ্ঠ জুলকার আলীর সাথে বাদানুবাদে জড়ায় সোহেলসহ কয়েকজন বহিরাগত যুবক। এক পর্যায়ে তারা লাঠি-সোঁটা নিয়ে মেহেদী ও জুলকারের উপর হামলে পড়ে। ওইসময় জুলকার আলী কৌশলে পালিয়ে গেলেও মেহেদী আত্মরক্ষার জন্যে দৌড়ে ওই বিদ্যালয়ের লাইব্রেরীতে আশ্রয় নিলে হামলাকারীরা সেখানেই গিয়ে হামলা করে। এতে শিক্ষকরা বাঁধা দিলে হামলাকারীদের আক্রমণে মেহেদী, শিক্ষক শফিকুল ইসলাম, আনোয়ারসহ ৪ জন আহত হয়। ছাত্র-ছাত্রীরা হামলাকারীদের ভয়ে অনুষ্ঠানস্থল থেকে দূরে সরে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় মেহেদীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিদ্যালয়ে দু’গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু রায়হান বলেন, হামলাকারীরা শিক্ষকদের ওপরও হামলা করেছে। এতে কয়েকজন শিক্ষকও আহত হয়েছে। ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্যে পুলিশের কাছে অভিযোগ দেয়া হয়েছে।
এদিকে ওই ঘটনায় আহত শিক্ষার্থী মেহেদীর মা মরিয়ম বেগম বাদী হয়ে সোহেলসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে চাঁদা দাবি ও হামলার অভিযোগ থানায় একটি মামলা দায়ের করলেও এখনও গ্রেফতার হয়নি কোন আসামী।
এ ব্যাপারে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ওই ঘটনায় নিয়মিত মামলা রেকর্ড হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে জড়িতদের গ্রেফতার চেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত দিন

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

error: Content is protected !!