ভোর ৫:০১ | সোমবার | ২৫শে মে, ২০২০ ইং | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শেরপুরে ৩টি আসনে মাঠ গুছানোর কাজে এগিয়ে আ’লীগের একক প্রার্থীরা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেরপুরের ৩টি আসনে মাঠ গুছানোর কাজে এগিয়ে রয়েছেন আওয়ামী লীগের একক প্রার্থীরা। নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে বিশেষ সভা ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠনসহ কেন্দ্র কমিটি গঠনের কাজ প্রায় ৮০ ভাগই শেষ হয়েছে। অন্যদিকে এখনও প্রার্থী চূড়ান্ত না হওয়ায় কেন্দ্রে দৌড়-ঝাঁপ ও আপীলের ঝামেলা পোহাতেই ব্যস্ত বিএনপির প্রার্থীরা। যে কারণে মাঠ গুছানোর কাজে তারা এখনও অনেকটাই পিছিয়ে।
জানা যায়, শেরপুর-১ (সদর) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, ৪ বারের সংসদ সদস্য হুইপ আতিউর রহমান আতিক টানা পঞ্চম দফায় দলের মনোনয়ন পেয়ে দাখিল করেন। ২ নভেম্বর যাচাই-বাছাই শেষে তার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষিত হয়। অন্যদিকে বিএনপির ৪ প্রার্থীর মধ্যে ঋণ খেলাপির দায়ে একাধিক মামলায় কারাগারে থাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ হযরত আলী এবং দলীয় মনোনয়নের চিঠি দিতে ব্যর্থ হওয়ায় সদর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ফজলুল কাদের লুটু ও জেলা যুবদল সভাপতি শফিকুল ইসলাম মাসুদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। তবে বাছাইয়ে টিকে যান বিকল্প প্রার্থী মোঃ হযরত আলীর মেয়ে ডাঃ সানসিলা জেবরিন প্রিয়াঙ্কাসহ জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী আলহাজ মোঃ ইলিয়াস উদ্দিন, কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগের প্রার্থী জহির রায়হান, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী এডভোকেট মোঃ মতিউর রহমান ও সিপিবির প্রার্থী আফিল শেখসহ ৫ জন। এ আসনে বিএনপির বাদ পড়া প্রার্থীদের তরফ থেকে কোন আপীল না হলেও রাজনীতির মাঠে নবীন ও কনিষ্ঠ প্রার্থী ডাঃ প্রিয়াঙ্কার পক্ষে নির্বাচনে এখনও জোরালো তৎপরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। অন্যদিকে আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থী আতিউর রহমান আতিকের পক্ষে ইতোমধ্যে জেলা ও উপজেলা নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠনসহ ইউনিট নেতাদের দায়িত্ব বন্টনের পাশাপাশি প্রায় সকল কেন্দ্র কমিটি গঠনের কাজ শেষ হয়েছে। বেড়েছে তৃণমূল থেকে জেলা পর্যায় পর্যন্ত সাংগঠনিক ও নির্বাচনী তৎপরতা। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় নৌকার বিজয়ে বিভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার পরিবেশ তৈরি হচ্ছে নেতা-কর্মীদের মাঝে।
শেরপুর-২ (নালিতাবাড়ী-নকলা) আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী, দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য, ৪ বারের সংসদ সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী এবার ষষ্ঠ দফায় দলের একক মনোনয়ন নিয়ে দাখিল করেন এবং তারটাও বৈধভাবে গৃহীত হয়। অন্যদিকে বিএনপি মনোনীত ৩ প্রাথীর মধ্যে ব্যারিস্টার এম হায়দার আলী ও প্রকৌশলী ফাহিম চৌধুরীর মনোনয়নপত্র বৈধ হলেও একেএম মোখলেছুর রহমান রিপন উপজেলা চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগপত্র গৃহীত হওয়ার কোন কপি দাখিলে ব্যর্থ হওয়ায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। এরপর মোখলেসুর রহমান রিপন নির্বাচন কমিশনে আপীল দায়ের করে সেদিকে দৌড়-ঝাঁপে এবং দলের অপর ২ প্রার্থীর মধ্যে দু’জনই মনোনয়ন চূড়ান্ত করতে কেন্দ্রে দৌড়-ঝাঁপে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ফলে এ আসনেও বিএনপির নির্বাচন পরিচালনা কমিটি বা কেন্দ্র কমিটি গঠনের তেমন কোন তৎপরতাই চোখে পড়ছে না। অন্যদিকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বেগম মতিয়া চৌধুরীর পক্ষে দু’টি উপজেলাতেই ইতোমধ্যে উপজেলা ও শহর ইউনিটের বিশেষ সভা এবং নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠনের পাশাপাশি অধিকাংশ কেন্দ্র কমিটি গঠনের কাজ শেষ হয়েছে। নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে তৃণমূল থেকে উপজেলা পর্যন্ত শক্ত অবস্থান নিতে প্রস্তুত হয়ে উঠছেন দলের নেতা-কর্মীরা। এ আসনে আরও লড়ছেন ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী নুরুল ইসলাম।
শেরপুর-৩ (শ্রীবরদী-ঝিনাইগাতী) আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী টানা ২ বারের সংসদ সদস্য প্রকৌশলী একেএম ফজলুল হক চাঁন এবার তৃতীয় দফায় দলের একক মনোনয়ন পেয়েছেন। যাচাই-বাছাইয়ে তার মনোনয়নপত্রটিও বৈধ বলে গৃহীত হওয়ায় জেলার অন্য দুটি আসনের মতো তিনিও নির্বাচনের মাঠ গুছাতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ইতোমধ্যে দু’টি উপজেলা কমিটির সাথে দূরত্ব কমিয়ে সবাইকে রাগ-ক্ষোভ ভুলিয়ে কাছে টানার চেষ্টার পাশাপাশি কেন্দ্র কমিটি গঠনের কার্যক্রমও চালিয়ে যাচ্ছেন। অন্যদিকে এ আসনে অপর দু’টি আসনের চেয়ে বিএনপির সাংগঠনিক অবস্থা তুলনামূলকভাবে মজবুত। ফলে আওয়ামী লীগ প্রার্থী চাঁনের আপন ভাতিজা ৩ বারের সংসদ সদস্য মাহমুদুল হক রুবেলের পাশাপাশি মেজর (অবঃ) মাহমুদুল হাসানও দলের মনোনয়ন পাওয়ায় এবং দু’জনের মনোনয়নপত্র বৈধ বলে গৃহীত হলেও শেষ পর্যন্ত যে রুবেলই চূড়ান্ত মনোনয়ন পাচ্ছেন- তা নিয়ে কোন সংশয় নেই। এ আসনে আরও লড়ছেন জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী আবু নাছের বাদল ও ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী আব্দুস সাত্তার।

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে ঈদ পালন করুন : কাদের

» তিনটি জীবন্ত ‘করোনা ভাইরাস’ ছিল উহানের ল্যাবে!

» ঘরে বসেই ঈদের আনন্দ উপভোগ করার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর

» শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে, কাল ঈদ

» সাধারণ ছুটি বাড়বে কিনা সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

» শেরপুরে বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করলেন হুইপ আতিক

» শেরপুরের ৭ গ্রামে আগাম ঈদুল ফিতর পালিত

» সাবেক এমপি শ্যামলী ॥ মানবতার এক অনন্য ফেরীওয়ালা

» শেরপুরে পত্রিকার হকারদের মাঝে পুলিশের ঈদ উপহার

» শেরপুরে আরও দুইজনের করোনা শনাক্ত ॥ জেলায় মোট আক্রান্ত ৭৭

» ঈদে শবনম ফারিয়ার চমক

» করোনায় একদিনে রেকর্ড ২৮ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৩২

» শেরপুরে ৩ হাজার দরিদ্র ও অসহায় পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার পৌঁছে দিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

» শেরপুরের সূর্যদীর সেই শহীদ পরিবার ও যুদ্ধাহত পরিবারগুলোর পাশে জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব

» শেরপুরে ৯৬ শিক্ষার্থীর ভাড়া মওকুফ করে দিলেন ছাত্রাবাসের মালিক

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  ভোর ৫:০১ | সোমবার | ২৫শে মে, ২০২০ ইং | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শেরপুরে ৩টি আসনে মাঠ গুছানোর কাজে এগিয়ে আ’লীগের একক প্রার্থীরা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেরপুরের ৩টি আসনে মাঠ গুছানোর কাজে এগিয়ে রয়েছেন আওয়ামী লীগের একক প্রার্থীরা। নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে বিশেষ সভা ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠনসহ কেন্দ্র কমিটি গঠনের কাজ প্রায় ৮০ ভাগই শেষ হয়েছে। অন্যদিকে এখনও প্রার্থী চূড়ান্ত না হওয়ায় কেন্দ্রে দৌড়-ঝাঁপ ও আপীলের ঝামেলা পোহাতেই ব্যস্ত বিএনপির প্রার্থীরা। যে কারণে মাঠ গুছানোর কাজে তারা এখনও অনেকটাই পিছিয়ে।
জানা যায়, শেরপুর-১ (সদর) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, ৪ বারের সংসদ সদস্য হুইপ আতিউর রহমান আতিক টানা পঞ্চম দফায় দলের মনোনয়ন পেয়ে দাখিল করেন। ২ নভেম্বর যাচাই-বাছাই শেষে তার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষিত হয়। অন্যদিকে বিএনপির ৪ প্রার্থীর মধ্যে ঋণ খেলাপির দায়ে একাধিক মামলায় কারাগারে থাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ হযরত আলী এবং দলীয় মনোনয়নের চিঠি দিতে ব্যর্থ হওয়ায় সদর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ফজলুল কাদের লুটু ও জেলা যুবদল সভাপতি শফিকুল ইসলাম মাসুদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। তবে বাছাইয়ে টিকে যান বিকল্প প্রার্থী মোঃ হযরত আলীর মেয়ে ডাঃ সানসিলা জেবরিন প্রিয়াঙ্কাসহ জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী আলহাজ মোঃ ইলিয়াস উদ্দিন, কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগের প্রার্থী জহির রায়হান, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী এডভোকেট মোঃ মতিউর রহমান ও সিপিবির প্রার্থী আফিল শেখসহ ৫ জন। এ আসনে বিএনপির বাদ পড়া প্রার্থীদের তরফ থেকে কোন আপীল না হলেও রাজনীতির মাঠে নবীন ও কনিষ্ঠ প্রার্থী ডাঃ প্রিয়াঙ্কার পক্ষে নির্বাচনে এখনও জোরালো তৎপরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। অন্যদিকে আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থী আতিউর রহমান আতিকের পক্ষে ইতোমধ্যে জেলা ও উপজেলা নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠনসহ ইউনিট নেতাদের দায়িত্ব বন্টনের পাশাপাশি প্রায় সকল কেন্দ্র কমিটি গঠনের কাজ শেষ হয়েছে। বেড়েছে তৃণমূল থেকে জেলা পর্যায় পর্যন্ত সাংগঠনিক ও নির্বাচনী তৎপরতা। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় নৌকার বিজয়ে বিভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার পরিবেশ তৈরি হচ্ছে নেতা-কর্মীদের মাঝে।
শেরপুর-২ (নালিতাবাড়ী-নকলা) আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী, দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য, ৪ বারের সংসদ সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী এবার ষষ্ঠ দফায় দলের একক মনোনয়ন নিয়ে দাখিল করেন এবং তারটাও বৈধভাবে গৃহীত হয়। অন্যদিকে বিএনপি মনোনীত ৩ প্রাথীর মধ্যে ব্যারিস্টার এম হায়দার আলী ও প্রকৌশলী ফাহিম চৌধুরীর মনোনয়নপত্র বৈধ হলেও একেএম মোখলেছুর রহমান রিপন উপজেলা চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগপত্র গৃহীত হওয়ার কোন কপি দাখিলে ব্যর্থ হওয়ায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। এরপর মোখলেসুর রহমান রিপন নির্বাচন কমিশনে আপীল দায়ের করে সেদিকে দৌড়-ঝাঁপে এবং দলের অপর ২ প্রার্থীর মধ্যে দু’জনই মনোনয়ন চূড়ান্ত করতে কেন্দ্রে দৌড়-ঝাঁপে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ফলে এ আসনেও বিএনপির নির্বাচন পরিচালনা কমিটি বা কেন্দ্র কমিটি গঠনের তেমন কোন তৎপরতাই চোখে পড়ছে না। অন্যদিকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বেগম মতিয়া চৌধুরীর পক্ষে দু’টি উপজেলাতেই ইতোমধ্যে উপজেলা ও শহর ইউনিটের বিশেষ সভা এবং নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠনের পাশাপাশি অধিকাংশ কেন্দ্র কমিটি গঠনের কাজ শেষ হয়েছে। নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে তৃণমূল থেকে উপজেলা পর্যন্ত শক্ত অবস্থান নিতে প্রস্তুত হয়ে উঠছেন দলের নেতা-কর্মীরা। এ আসনে আরও লড়ছেন ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী নুরুল ইসলাম।
শেরপুর-৩ (শ্রীবরদী-ঝিনাইগাতী) আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী টানা ২ বারের সংসদ সদস্য প্রকৌশলী একেএম ফজলুল হক চাঁন এবার তৃতীয় দফায় দলের একক মনোনয়ন পেয়েছেন। যাচাই-বাছাইয়ে তার মনোনয়নপত্রটিও বৈধ বলে গৃহীত হওয়ায় জেলার অন্য দুটি আসনের মতো তিনিও নির্বাচনের মাঠ গুছাতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ইতোমধ্যে দু’টি উপজেলা কমিটির সাথে দূরত্ব কমিয়ে সবাইকে রাগ-ক্ষোভ ভুলিয়ে কাছে টানার চেষ্টার পাশাপাশি কেন্দ্র কমিটি গঠনের কার্যক্রমও চালিয়ে যাচ্ছেন। অন্যদিকে এ আসনে অপর দু’টি আসনের চেয়ে বিএনপির সাংগঠনিক অবস্থা তুলনামূলকভাবে মজবুত। ফলে আওয়ামী লীগ প্রার্থী চাঁনের আপন ভাতিজা ৩ বারের সংসদ সদস্য মাহমুদুল হক রুবেলের পাশাপাশি মেজর (অবঃ) মাহমুদুল হাসানও দলের মনোনয়ন পাওয়ায় এবং দু’জনের মনোনয়নপত্র বৈধ বলে গৃহীত হলেও শেষ পর্যন্ত যে রুবেলই চূড়ান্ত মনোনয়ন পাচ্ছেন- তা নিয়ে কোন সংশয় নেই। এ আসনে আরও লড়ছেন জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী আবু নাছের বাদল ও ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী আব্দুস সাত্তার।

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!