সকাল ৯:৩৮ | বুধবার | ২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শেরপুরে তৃণমূলের ভোট প্রত্যাখান করলেন মেয়র মনোনয়নপ্রত্যাশী আ’লীগ নেতা আধার

কেন্দ্রীয় নির্দেশনা উপেক্ষার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন আজ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অবশেষে তৃণমূলের ভোট প্রত্যাখান করেছেন ঐতিহ্যবাহী শেরপুর পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র মনোনয়নপ্রত্যাশী জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক, জেলা আইনজীবী সমিতি ও প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার। দলের কেন্দ্রীয় নির্দেশনা উপেক্ষা করে তৃণমূলের ভোট অনুষ্ঠানের প্রতিবাদে ২ ডিসেম্বর বুধবার সন্ধ্যায় তিনি শেরপুর পৌরসভায় মেয়র পদে দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ে গঠিত কমিটির প্রধান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট চন্দন কুমার পাল পিপির কাছে দেওয়া এক পত্রে ওই সিদ্ধান্ত জানান। একই সাথে কেন্দ্রীয় নির্দেশনা উপেক্ষা করার বিষয়টি দলীয় প্রধানসহ সংশ্লিষ্ট সকল মহলকে অবহিত করেছেন।
জানা যায়, শেরপুর পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের ৫ মনোনয়নপ্রত্যাশীর মধ্যে বর্তমান মেয়র জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন, জেলা আইনজীবী সমিতি ও প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার ও শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আরিফ রেজা প্রথম থেকেই তৃণমূল ব্যতীত সকলের নাম কেন্দ্রে পাঠানোর প্রস্তাব দিয়ে আসলেও অপর ২ প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ারুল হাসান উৎপল ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক আনিসুর রহমান তৃণমূলের পক্ষেই অবস্থান নিয়ে আসছিলেন।

img-add

ওই অবস্থায় গত ২৮ নভেম্বর আওয়ামী লীগ সভাপতি দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশনা মোতাবেক দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এমপি সাক্ষরিত এক পত্রে মেয়াদোত্তীর্ণ পৌরসভাগুলোর প্রার্থী বাছাইয়ে শেরপুরসহ সংশ্লিষ্ট সকল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদকদের বলা হয়, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গঠনতান্ত্রিক নিয়ম-নীতি এবং তৃণমূলের ভিত্তিতে পৌরসভার মেয়র পদে প্রার্থী মনোনয়ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা একটি সময়সাপেক্ষ ব্যাপার।’ তাই ‘দলীয় গঠনতন্ত্রের ২৮ (৫) ধারা অনুযায়ী জেলা-উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের পরামর্শ গ্রহণপূর্বক কমপক্ষে ৩ জনের একটি প্যানেল প্রস্তাব’ ওই সময়ের মধ্যে প্রেরণের নির্দেশনা দেওয়া হয়। কিন্তু কেন্দ্রীয় সেই নিদের্শনা গোপন রেখে এবং উপেক্ষা করে ৩ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার পৌরসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভোট এবং প্রাপ্ত ভোটের ক্রমানুসারে শেরপুর পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় প্রার্থীদের তালিকা কেন্দ্রে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আর সেই সিদ্ধান্ত মোতাবেক শেরপুরে তৃণমূলের ভোট অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়। এর প্রতিবাদে প্রথমে ২ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার লিখিতভাবে তৃণমূল বর্জনের বিষয়টি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট চন্দন কুমার পালকে জানান। সেইসাথে তিনি কেন্দ্রের নির্দেশনা মোতাবেক তৃণমূলের ভোট অনুষ্ঠান বাদ দিয়ে জ্যেষ্ঠতা অনুযায়ী বা নামের আদ্যক্ষর অনুযায়ী বা লটারির মাধ্যমে নির্ধারিত ক্রমানুযায়ী তালিকা কেন্দ্রে পাঠানোর প্রস্তাবও করেন। একইসাথে তিনি বিষয়টি দলীয় প্রধান ও সাধারণ সম্পাদকসহ সংশ্লিষ্টদেরকেও অবহিত করেন। পরে অপর মনোনয়নপ্রত্যাশী আরিফ রেজাও লিখিতভাবে তা বর্জনের ঘোষণা দেন। কিন্তু এরপরও আজ ৩ ডিসেম্বর সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত শহরের জিকে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে ওই ভোট অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। অন্যদিকে ওই ভোট অনুষ্ঠানের প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় শহরের কালিরবাজারস্থ নিজ চেম্বারে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছেন দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার।
এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট চন্দন কুমার পাল পিপি জানান, দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার ও আরিফ রেজা তৃণমূলের ভোট বর্জনে লিখিত চিঠি দিয়েছেন। তবে তালিকা প্রেরণের সময় হাতে থাকায় তৃণমূলের ভোট হচ্ছে। এরপরও ৫ জনের নামই কেন্দ্রে পাঠানোর সম্ভাবনা রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শেরপুর পৌরসভা নির্বাচনে শেষ লড়াইয়ে রয়ে গেলেন ৭ জন

» প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পেলেই যে কোনো দিন এইচএসসির ফল প্রকাশ

» নকলা পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী হয়েছেন এক ভিক্ষুক!

» প্রাথমিকের ঝড়ে পড়া শিশুদের শিক্ষার সুবর্ণ সুযোগ

» শেরপুরে জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ

» শেরপুরে গরু হৃষ্টপুষ্টকরণ জনসচেতনতামুলক সেমিনার

» ময়মনসিংহ বিভাগীয় নারী সাংবাদিক ফোরামের মিমি সভাপতি, সম্পাদক নূরজাহান

» ফিটনেসবিহীন গাড়ি ৪ লাখ ৮১ হাজার: সেতুমন্ত্রী

» প্রধানমন্ত্রীর ঘর উপহার পেল শ্রীবরদীর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ১০টি অসহায় পরিবার

» প্রধানমন্ত্রীর বাইসাইকেল পেল শ্রীবরদীর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীরা

» শ্রীবরদীতে ওয়ার্ল্ড ভিশনের শিক্ষা উপকরণ পেল শিশুরা

» শেরপুরে এনএসআই’র জেলা কার্যালয়ের অধিগ্রহণকৃত জমির দখল হস্তান্তর ও চেক বিতরণ

» দেশে এলো ভারত থেকে কেনা ৫০ লাখ ডোজ টিকা

» সকালে কলা খাবেন যেসব কারণে

» উচ্চরক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে খান টমেটো

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  সকাল ৯:৩৮ | বুধবার | ২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শেরপুরে তৃণমূলের ভোট প্রত্যাখান করলেন মেয়র মনোনয়নপ্রত্যাশী আ’লীগ নেতা আধার

কেন্দ্রীয় নির্দেশনা উপেক্ষার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন আজ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অবশেষে তৃণমূলের ভোট প্রত্যাখান করেছেন ঐতিহ্যবাহী শেরপুর পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র মনোনয়নপ্রত্যাশী জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক, জেলা আইনজীবী সমিতি ও প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার। দলের কেন্দ্রীয় নির্দেশনা উপেক্ষা করে তৃণমূলের ভোট অনুষ্ঠানের প্রতিবাদে ২ ডিসেম্বর বুধবার সন্ধ্যায় তিনি শেরপুর পৌরসভায় মেয়র পদে দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ে গঠিত কমিটির প্রধান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট চন্দন কুমার পাল পিপির কাছে দেওয়া এক পত্রে ওই সিদ্ধান্ত জানান। একই সাথে কেন্দ্রীয় নির্দেশনা উপেক্ষা করার বিষয়টি দলীয় প্রধানসহ সংশ্লিষ্ট সকল মহলকে অবহিত করেছেন।
জানা যায়, শেরপুর পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের ৫ মনোনয়নপ্রত্যাশীর মধ্যে বর্তমান মেয়র জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন, জেলা আইনজীবী সমিতি ও প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার ও শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আরিফ রেজা প্রথম থেকেই তৃণমূল ব্যতীত সকলের নাম কেন্দ্রে পাঠানোর প্রস্তাব দিয়ে আসলেও অপর ২ প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ারুল হাসান উৎপল ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক আনিসুর রহমান তৃণমূলের পক্ষেই অবস্থান নিয়ে আসছিলেন।

img-add

ওই অবস্থায় গত ২৮ নভেম্বর আওয়ামী লীগ সভাপতি দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশনা মোতাবেক দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এমপি সাক্ষরিত এক পত্রে মেয়াদোত্তীর্ণ পৌরসভাগুলোর প্রার্থী বাছাইয়ে শেরপুরসহ সংশ্লিষ্ট সকল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদকদের বলা হয়, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গঠনতান্ত্রিক নিয়ম-নীতি এবং তৃণমূলের ভিত্তিতে পৌরসভার মেয়র পদে প্রার্থী মনোনয়ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা একটি সময়সাপেক্ষ ব্যাপার।’ তাই ‘দলীয় গঠনতন্ত্রের ২৮ (৫) ধারা অনুযায়ী জেলা-উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের পরামর্শ গ্রহণপূর্বক কমপক্ষে ৩ জনের একটি প্যানেল প্রস্তাব’ ওই সময়ের মধ্যে প্রেরণের নির্দেশনা দেওয়া হয়। কিন্তু কেন্দ্রীয় সেই নিদের্শনা গোপন রেখে এবং উপেক্ষা করে ৩ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার পৌরসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভোট এবং প্রাপ্ত ভোটের ক্রমানুসারে শেরপুর পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় প্রার্থীদের তালিকা কেন্দ্রে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আর সেই সিদ্ধান্ত মোতাবেক শেরপুরে তৃণমূলের ভোট অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়। এর প্রতিবাদে প্রথমে ২ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার লিখিতভাবে তৃণমূল বর্জনের বিষয়টি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট চন্দন কুমার পালকে জানান। সেইসাথে তিনি কেন্দ্রের নির্দেশনা মোতাবেক তৃণমূলের ভোট অনুষ্ঠান বাদ দিয়ে জ্যেষ্ঠতা অনুযায়ী বা নামের আদ্যক্ষর অনুযায়ী বা লটারির মাধ্যমে নির্ধারিত ক্রমানুযায়ী তালিকা কেন্দ্রে পাঠানোর প্রস্তাবও করেন। একইসাথে তিনি বিষয়টি দলীয় প্রধান ও সাধারণ সম্পাদকসহ সংশ্লিষ্টদেরকেও অবহিত করেন। পরে অপর মনোনয়নপ্রত্যাশী আরিফ রেজাও লিখিতভাবে তা বর্জনের ঘোষণা দেন। কিন্তু এরপরও আজ ৩ ডিসেম্বর সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত শহরের জিকে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে ওই ভোট অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। অন্যদিকে ওই ভোট অনুষ্ঠানের প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় শহরের কালিরবাজারস্থ নিজ চেম্বারে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছেন দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার।
এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট চন্দন কুমার পাল পিপি জানান, দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার ও আরিফ রেজা তৃণমূলের ভোট বর্জনে লিখিত চিঠি দিয়েছেন। তবে তালিকা প্রেরণের সময় হাতে থাকায় তৃণমূলের ভোট হচ্ছে। এরপরও ৫ জনের নামই কেন্দ্রে পাঠানোর সম্ভাবনা রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!