[bangla_time] | [bangla_day] | [english_date] | [bangla_date]

শেরপুরে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের হামলায় আহত ২

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শেরপুর সরকারি কলেজে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের বিবদমান দু’পক্ষের মধ্যে ফের হামলার ঘটনা ঘটেছে। ২৯ জুন শনিবার দুপুরে শহরের সজবরখিলা এলাকায় ওই হামলার ঘটনায় জুনুন তানভির (১৭) ও আশরাফুল ইসলাম (২২) নামে ২ কলেজ শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ কর্মী গুরুতর আহত হয়েছে। তাদেরকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদিকে শহরে প্রকাশ্যে ওই হামলার প্রতিবাদে সজবরখিলা মহল্লার ব্যবসায়ীরা দোকান-পাট বন্ধ করে বিক্ষোভ মিছিল ও তাদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন। ওই ঘটনায় সন্ধ্যা পর্যন্ত থানায় কোন অভিযোগ দায়ের হয়নি। তবে বিবদমান দুপক্ষের মাঝে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কলেজ এলাকাসহ শহরে পুলিশী টহল বাড়ানো হয়েছে।
জানা যায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে শেরপুর সরকারি কলেজে ছাত্রলীগের বিবদমান দু’গ্রুপের মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। শনিবার দুপুর ২ টার দিকে শহরের সজবরখিলাস্থ টিভিএস মোটরসাইকেল শো-রুমে শেরপুর বিএম কলেজের শিক্ষার্থী ও শহরের কাজীবাড়ি পুকুরপাড় এলাকার মৃত আলমগীর হোসেনের পুত্র জুনুন তানভির তার ২ বন্ধু ইমরান ও অন্তরকে নিয়ে মোটরসাইকেল মেরামত করতে যায়। ওইসময় হঠাৎ করেই কলেজ ছাত্রলীগের অপর একটি অংশের নেতা-কর্মীরা তাদের উপর হামলা চালায়। হামলায় জুনুন তানভির গুরুতর আহত হয়। পরে তানভিরকে তার বন্ধু ও স্থানীয়রা উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। এর পরপরই শহরের কসবা কাচারিপাড়া এলাকায় শাহ কামাল (রা:) মাজারের সামনে আশরাফুল ইসলাম নামে আরও এক ছাত্রলীগ কর্মী হামলার শিকার হয়। হামলার শিকার ছাত্রলীগ কর্মীদের দাবি, প্রতিপক্ষের জহির পিস্তল নিয়ে ও নয়ন, পাপ্পু, শাহীন, বাবুসহ আরও বেশ কয়েকজন লোহার এসএস পাইপ নিয়ে তানভিরের উপর চড়াও হয়। ওই ঘটনায় নিন্দা প্রকাশ করে জড়িতদের গ্রেফতার দাবি করে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা বলেন, ছাত্রলীগ কর্মীদের উপর যারা হামলা করেছে, তারা দলছুট।
অন্যদিকে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে কলেজ ছাত্রলীগের অপর অংশের নেতা আব্দুল কুদ্দুস মোয়াজ জানায়, আহত তানভির ছাত্রলীগের কেউ নয়। বরং ছাত্রদলের সাথে তার সম্পৃক্ততা রয়েছে এবং সে ছাত্রদলের গ্রুপিং এর শিকার হয়েছে। একই কথা জানিয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম সম্রাট বলেন, এক সময়ের ছাত্রদল কর্মী তানভির ও আশরাফকে ছাত্রলীগের একটি অংশ ব্যবহার করছে। তাদের কারণেই সম্প্রতি বিপুল নামে এক ছাত্রলীগ কর্মীকে হামলার শিকার হতে হয়েছে।
এ ব্যাপারে শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, হামলার ঘটনাটি শোনার পর পরই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয় এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। তবে একটি পক্ষ গুলি ছোড়ার দাবি করলেও তার কোন আলামত পাওয়া যায়নি। সেইসাথে ওই ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি।

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» মোহাম্মদ রবিউল আলম (টুকু)’র পদ্য ‘হায় রে পিঁয়াজ!’

» মইনুল হোসেন প্লাবন’র পদ্য ‘অনন্য পৃথিবী’

» ওষুধের মতো কাজ করে যেসব শাক-সবজি

» সুরের পাখি ‘রুনা লায়লা’র ৬৭তম জন্মদিন আজ

» চট্টগ্রামে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে নিহত ৭

» বিপিএলের নিলাম আজ সন্ধ্যায় : প্লেয়ার্স ড্রাফটে ২১ দেশের ৪৩৯ ক্রিকেটার

» বিপিএলের নিলামে জার্মানির ক্রিকেটার!

» সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়স ৬০

» নতুন সড়ক পরিবহন আইন আজ থেকে কার্যকর : কাদের

» শ্রীলংকার নয়া প্রেসিডেন্ট রাজাপাকসে

» শেরপুরে সাবেক ফারমার্স ব্যাংকের কর্মকর্তাদের দুর্নীতির প্রতিবাদে ঋণগ্রহীতাদের সংবাদ সম্মেলন

» মিসর থেকে কার্গো বিমানে পেঁয়াজের প্রথম চালান আসছে মঙ্গলবার

» প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা শুরু

» ঢাকাস্থ ‘শেরপুর জেলা সমিতি’র নয়া সভাপতি নজরুল, মহাসচিব রাজ্জাক

» মওলানা ভাসানীর ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

কারিগরি সহযোগিতায় BD iT Zone

,

শেরপুরে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের হামলায় আহত ২

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শেরপুর সরকারি কলেজে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের বিবদমান দু’পক্ষের মধ্যে ফের হামলার ঘটনা ঘটেছে। ২৯ জুন শনিবার দুপুরে শহরের সজবরখিলা এলাকায় ওই হামলার ঘটনায় জুনুন তানভির (১৭) ও আশরাফুল ইসলাম (২২) নামে ২ কলেজ শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ কর্মী গুরুতর আহত হয়েছে। তাদেরকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদিকে শহরে প্রকাশ্যে ওই হামলার প্রতিবাদে সজবরখিলা মহল্লার ব্যবসায়ীরা দোকান-পাট বন্ধ করে বিক্ষোভ মিছিল ও তাদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন। ওই ঘটনায় সন্ধ্যা পর্যন্ত থানায় কোন অভিযোগ দায়ের হয়নি। তবে বিবদমান দুপক্ষের মাঝে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কলেজ এলাকাসহ শহরে পুলিশী টহল বাড়ানো হয়েছে।
জানা যায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে শেরপুর সরকারি কলেজে ছাত্রলীগের বিবদমান দু’গ্রুপের মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। শনিবার দুপুর ২ টার দিকে শহরের সজবরখিলাস্থ টিভিএস মোটরসাইকেল শো-রুমে শেরপুর বিএম কলেজের শিক্ষার্থী ও শহরের কাজীবাড়ি পুকুরপাড় এলাকার মৃত আলমগীর হোসেনের পুত্র জুনুন তানভির তার ২ বন্ধু ইমরান ও অন্তরকে নিয়ে মোটরসাইকেল মেরামত করতে যায়। ওইসময় হঠাৎ করেই কলেজ ছাত্রলীগের অপর একটি অংশের নেতা-কর্মীরা তাদের উপর হামলা চালায়। হামলায় জুনুন তানভির গুরুতর আহত হয়। পরে তানভিরকে তার বন্ধু ও স্থানীয়রা উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। এর পরপরই শহরের কসবা কাচারিপাড়া এলাকায় শাহ কামাল (রা:) মাজারের সামনে আশরাফুল ইসলাম নামে আরও এক ছাত্রলীগ কর্মী হামলার শিকার হয়। হামলার শিকার ছাত্রলীগ কর্মীদের দাবি, প্রতিপক্ষের জহির পিস্তল নিয়ে ও নয়ন, পাপ্পু, শাহীন, বাবুসহ আরও বেশ কয়েকজন লোহার এসএস পাইপ নিয়ে তানভিরের উপর চড়াও হয়। ওই ঘটনায় নিন্দা প্রকাশ করে জড়িতদের গ্রেফতার দাবি করে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা বলেন, ছাত্রলীগ কর্মীদের উপর যারা হামলা করেছে, তারা দলছুট।
অন্যদিকে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে কলেজ ছাত্রলীগের অপর অংশের নেতা আব্দুল কুদ্দুস মোয়াজ জানায়, আহত তানভির ছাত্রলীগের কেউ নয়। বরং ছাত্রদলের সাথে তার সম্পৃক্ততা রয়েছে এবং সে ছাত্রদলের গ্রুপিং এর শিকার হয়েছে। একই কথা জানিয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম সম্রাট বলেন, এক সময়ের ছাত্রদল কর্মী তানভির ও আশরাফকে ছাত্রলীগের একটি অংশ ব্যবহার করছে। তাদের কারণেই সম্প্রতি বিপুল নামে এক ছাত্রলীগ কর্মীকে হামলার শিকার হতে হয়েছে।
এ ব্যাপারে শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, হামলার ঘটনাটি শোনার পর পরই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয় এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। তবে একটি পক্ষ গুলি ছোড়ার দাবি করলেও তার কোন আলামত পাওয়া যায়নি। সেইসাথে ওই ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি।

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

কারিগরি সহযোগিতায় BD iT Zone

error: Content is protected !!