[bangla_time] | [bangla_day] | [english_date] | [bangla_date]

শেরপুরে ঐতিহাসিক কাটাখালি যুদ্ধ দিবস পালিত

শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ, স্বাধীনতা উদ্যান প্রতিষ্ঠা ও ইতিহাস লিপিবদ্ধ করতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ঐতিহাসিক কাটাখালি-রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধ দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে ৬ জুলাই শনিবার বিকেলে স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত শহীদ নাজমুল আহসান, তার সহযোদ্ধাসহ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আমরা ১৮ বছর’ এর উদ্যোগে কাটাখালি সেতু অঙ্গণে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব। ওইসময় তিনি কাটাখালি-রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধের স্মৃতি ও চেতনা ভাস্বর করে রাখার লক্ষ্যে কাটাখালি ব্রিজ অঙ্গনে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ, স্বাধীনতা উদ্যান প্রতিষ্ঠা ও ইতিহাস লিপিবদ্ধ করার কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণে বিভিন্ন বক্তা দাবি জানালে ওই বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেবেন বলে আশ্বস্ত করেন।
আমরা ১৮ বছর সংগঠনের ঝিনাইগাতী শাখার আহ্বায়ক তুষার আল নূরের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য রাখেন সেই সময়ে কাটাখালি ও তিনআনী ব্রিজ ধ্বংসে অংশগ্রহণকারী কোম্পানী কমান্ডার আব্দুল গণি ও নালিতাবাড়ী পৌরসভার সাবেক মেয়র মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিম উকিল। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ, বিশিষ্ট সমাজসেবী রাজিয়া সামাদ ডালিয়া, সাংবাদিক এমএ হাকাম হীরা, কৃষক লীগ নেতা আব্দুল কাদির, জাসদ নেতা এ.কে.এম ছামেদুল হক প্রমুখ। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সদর উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান শামীম আরা, আওয়ামী লীগ নেতা আনিসুর রহমান, শহীদ পরিবারের সদস্য প্রকৌশলী আশরাফুল আলম সেলিম, মানবাধিকার নেতা এডভোকেট শক্তিপদ পাল ও শামীম হোসেনসহ মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ পরিবারের সদস্য, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের ৫ জুলাই রাতে শেরপুর-ঝিনাইগাতী সড়কের কাটাখালি সেতুতে অপারেশন শেষে ৬ জুলাই ঝিনাইগাতীর রাঙ্গামাটিয়া গ্রামে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে পাক হানাদার বাহিনীর সম্মুখ যুদ্ধ হয়। এতে কোম্পানী কমান্ডার নাজমুল আহসান ও তাঁর পরিবারের ২ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মোফাজ্জল হোসেন ও মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেনসহ ১২ জন শহীদ হন। ওই সময় হানাদার বাহিনী অর্ধ-শতাধিক ঘরবাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দেয় এবং নিরীহ নারীদের ধর্ষণ করে। স্বাধীনতার দীর্ঘদিন পরে হলেও গত বছর রাঙ্গামাটিয়া গ্রামের ৩ নারীকে সরকার বীরাঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়েছে। কিন্তু শহীদ পরিবারগুলোর কোন স্বীকৃতি মেলেনি আজও। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে ‘অপারেশন কাটাখালি’ ও ‘রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধ’ এক অনন্য স্থান দখল করে আছে। প্রতি বছর ৬ জুলাই ওই দিবসটি পালন করা হয়। স্বাধীনতা অর্জনের পর শহীদ নাজমুলের নামে ময়মনসিংহ কৃষি বিদ্যালয়ে একটি হল, নালিতাবাড়ীতে একটি কলেজ প্রতিষ্ঠা হয়েছে। আর মুক্তিযুদ্ধে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে গত বছর শহীদ নাজমুলকে স্বাধীনতা পদক প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে ‘অপারেশন কাটাখালি’ ও রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধের সরকারি স্বীকৃতি মিলেছে। এছাড়া স্থানীয়দের দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে নৌ-পরিবহন সচিব ও নালিতাবাড়ীর কৃতি সন্তান আবদুস সামাদ ফারুকের সহযোগিতায় সেখানকার যুদ্ধের স্মৃতি ও চেতনা ভাস্বর করে রাখার জন্য পুরোনো সেই সেতুটি সংরক্ষণে ইতোমধ্যে সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। সেইসাথে পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে কাটাখালি ব্রিজ অঙ্গনে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ, স্বাধীনতা উদ্যান প্রতিষ্ঠা ও ইতিহাস লিপিবদ্ধ করার।

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» নয়া বিজ্ঞাপনে নুসরাত ফারিয়া

» তিতের মুখ বন্ধ রাখতে ধমক মেসির!

» ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের ১৬ দল চূড়ান্ত

» শেরপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হতদরিদ্রদের মাঝে রোটারী ক্লাবের ঢেউটিন বিতরণ

» হলি আর্টিসান হামলা : রায় ২৭ নভেম্বর

» ময়মনসিংহে পেঁয়াজের বাজারে পুলিশ সুপারের অভিযান, দাম কমলো ৫০ টাকা

» মোহাম্মদ রবিউল আলম (টুকু)’র পদ্য ‘হায় রে পিঁয়াজ!’

» মইনুল হোসেন প্লাবন’র পদ্য ‘অনন্য পৃথিবী’

» ওষুধের মতো কাজ করে যেসব শাক-সবজি

» সুরের পাখি ‘রুনা লায়লা’র ৬৭তম জন্মদিন আজ

» চট্টগ্রামে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে নিহত ৭

» বিপিএলের নিলাম আজ সন্ধ্যায় : প্লেয়ার্স ড্রাফটে ২১ দেশের ৪৩৯ ক্রিকেটার

» বিপিএলের নিলামে জার্মানির ক্রিকেটার!

» সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়স ৬০

» নতুন সড়ক পরিবহন আইন আজ থেকে কার্যকর : কাদের

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

কারিগরি সহযোগিতায় BD iT Zone

,

শেরপুরে ঐতিহাসিক কাটাখালি যুদ্ধ দিবস পালিত

শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ, স্বাধীনতা উদ্যান প্রতিষ্ঠা ও ইতিহাস লিপিবদ্ধ করতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ঐতিহাসিক কাটাখালি-রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধ দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে ৬ জুলাই শনিবার বিকেলে স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত শহীদ নাজমুল আহসান, তার সহযোদ্ধাসহ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আমরা ১৮ বছর’ এর উদ্যোগে কাটাখালি সেতু অঙ্গণে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব। ওইসময় তিনি কাটাখালি-রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধের স্মৃতি ও চেতনা ভাস্বর করে রাখার লক্ষ্যে কাটাখালি ব্রিজ অঙ্গনে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ, স্বাধীনতা উদ্যান প্রতিষ্ঠা ও ইতিহাস লিপিবদ্ধ করার কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণে বিভিন্ন বক্তা দাবি জানালে ওই বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেবেন বলে আশ্বস্ত করেন।
আমরা ১৮ বছর সংগঠনের ঝিনাইগাতী শাখার আহ্বায়ক তুষার আল নূরের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য রাখেন সেই সময়ে কাটাখালি ও তিনআনী ব্রিজ ধ্বংসে অংশগ্রহণকারী কোম্পানী কমান্ডার আব্দুল গণি ও নালিতাবাড়ী পৌরসভার সাবেক মেয়র মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিম উকিল। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ, বিশিষ্ট সমাজসেবী রাজিয়া সামাদ ডালিয়া, সাংবাদিক এমএ হাকাম হীরা, কৃষক লীগ নেতা আব্দুল কাদির, জাসদ নেতা এ.কে.এম ছামেদুল হক প্রমুখ। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সদর উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান শামীম আরা, আওয়ামী লীগ নেতা আনিসুর রহমান, শহীদ পরিবারের সদস্য প্রকৌশলী আশরাফুল আলম সেলিম, মানবাধিকার নেতা এডভোকেট শক্তিপদ পাল ও শামীম হোসেনসহ মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ পরিবারের সদস্য, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের ৫ জুলাই রাতে শেরপুর-ঝিনাইগাতী সড়কের কাটাখালি সেতুতে অপারেশন শেষে ৬ জুলাই ঝিনাইগাতীর রাঙ্গামাটিয়া গ্রামে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে পাক হানাদার বাহিনীর সম্মুখ যুদ্ধ হয়। এতে কোম্পানী কমান্ডার নাজমুল আহসান ও তাঁর পরিবারের ২ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মোফাজ্জল হোসেন ও মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেনসহ ১২ জন শহীদ হন। ওই সময় হানাদার বাহিনী অর্ধ-শতাধিক ঘরবাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দেয় এবং নিরীহ নারীদের ধর্ষণ করে। স্বাধীনতার দীর্ঘদিন পরে হলেও গত বছর রাঙ্গামাটিয়া গ্রামের ৩ নারীকে সরকার বীরাঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়েছে। কিন্তু শহীদ পরিবারগুলোর কোন স্বীকৃতি মেলেনি আজও। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে ‘অপারেশন কাটাখালি’ ও ‘রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধ’ এক অনন্য স্থান দখল করে আছে। প্রতি বছর ৬ জুলাই ওই দিবসটি পালন করা হয়। স্বাধীনতা অর্জনের পর শহীদ নাজমুলের নামে ময়মনসিংহ কৃষি বিদ্যালয়ে একটি হল, নালিতাবাড়ীতে একটি কলেজ প্রতিষ্ঠা হয়েছে। আর মুক্তিযুদ্ধে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে গত বছর শহীদ নাজমুলকে স্বাধীনতা পদক প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে ‘অপারেশন কাটাখালি’ ও রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধের সরকারি স্বীকৃতি মিলেছে। এছাড়া স্থানীয়দের দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে নৌ-পরিবহন সচিব ও নালিতাবাড়ীর কৃতি সন্তান আবদুস সামাদ ফারুকের সহযোগিতায় সেখানকার যুদ্ধের স্মৃতি ও চেতনা ভাস্বর করে রাখার জন্য পুরোনো সেই সেতুটি সংরক্ষণে ইতোমধ্যে সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। সেইসাথে পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে কাটাখালি ব্রিজ অঙ্গনে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ, স্বাধীনতা উদ্যান প্রতিষ্ঠা ও ইতিহাস লিপিবদ্ধ করার।

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

কারিগরি সহযোগিতায় BD iT Zone

error: Content is protected !!