প্রকাশকাল: 4 সেপ্টেম্বর, 2018

শিক্ষাবঞ্চিত ঝিনাইগাতীর বেদেপল্লীর শিশুরা

ঝিনাইগাতী (শেরপুর) প্রতিনিধি ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে উপজেলার নুলকুড়া ইউনিয়নের ডেফলাই গ্রামের বেদে পল্লীতে স্থায়ী ও অস্থায়ীভাবে বেদে সম্প্রদায়ের প্রায় ২ শতাধিক পরিবার বসবাস করে। আর এ পরিবারগুলোতে রয়েছে প্রায় ১শ শিশু। এ শিশুরা মৃত্যুঝুঁকি নিয়ে সাপ, বানর খেলার মতো ভয়ঙ্কর পেশায় জড়িয়ে পড়ছে। বেড়ে উঠছে অশিক্ষা-কুশিক্ষায়। শিক্ষা বলতে, সাপ ও বাঁদর খেলা শেখা। হাটে-বাজারে সাপ, বানর খেলায় বাবা-মাকে করে সহযোগিতা করা। দেশ উন্নত হলেও বেদে সম্প্রদায়ে পৌঁছায়নি শিক্ষার আলো। পরিচয় হয়নি অক্ষর-জ্ঞানের সঙ্গেও। ফলে এরা নিরক্ষরই থেকে যাচ্ছে বংশপরম্পরায়। আবার বেদে সম্প্রদায়ের লোকজন একেক সময় একেক স্থানে অবস্থান করার জন্যেও সুযোগ নেই শিক্ষা গ্রহণের। অক্ষর কী, স্কুল দেখতে কেমন, সেখানে কী হয়, তাও জানে না এসব শিশু। শিক্ষা গ্রহণের মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে তারা।
সরেজমিনে দেখা যায়, এসব শিশুরা বেদে পল্লীর চারপাশে দুরন্তপনা, সাপ খেলা, বানর খেলা, লুডু খেলা, কানামাছি, কুতকুত ও এক্কাদোক্কা খেলায় ব্যস্ত। আবার অনেকেই গ্রাম ঘুরতে বাবা-মার সঙ্গে বের হচ্ছে। কিন্তু এ সময় তাদের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ক্লাস করার কথা।
এ শিশুদের অভিভাবকরা বলছেন, তাদের জীবন-জীবিকা ও নিকটে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান না থাকায় শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে তাদের সন্তানেরা। শিক্ষা বঞ্চিত এই শিশুরা সরকারের নিকট শিক্ষা গ্রহণে সুযোগের আবেদন জানিয়েছেন।
বেদে শিশু কুড়িমা, শারমিনা, ঝণিকা, নুপুর, ইমনসহ অনেকেই এ প্রতিবেদকের নিকট বলেন, ‘তাদের পড়া-লেখার ইচ্ছে করে। কিন্তু পরিবারের সব সময় অভাব লেগেই থাকে। তাই বাবা-মার সঙ্গে ব্যবসায় নামতে হয়। এছাড়া তাদের বাড়ির আশ-পাশে কোন স্কুল নেই। তারা পড়া-লেখা করে এ পেশা ছেড়ে বড় কিছু করতে চায়। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দাবি জানিয়েছেন তারা।’
বেদে সর্দার মো. জামাল বলেন, ‘আমরা পেটের তাগিদে জায়গায় জায়গায় ঘুরে বেড়াই। সাপ বানর খেলা, শিঙ্গা লাগিয়ে, তাবিজ-কবচ বেচে যা পাই তা দিয়ে কোনোমতে সংসার চলে। আধুনিক যুগের এই সময়ে মানুষ আর আমাদের খেলা, শিঙ্গা লাগানো, তাবিজ-কবচ নিতে চায় না। বাপ-দাদার পেশা আঁকড়ে ধরে আছি। বাড়িতে রেখে এসে বাচ্চাদের লেখাপড়া শেখানো তাদের দেখাশোনা করা আর লেখাপড়ার খরচ জোগানোর মতো অবস্থা নেই। সরকার যদি আমাদের অন্য কোন কর্মের ব্যবস্থা করে দেয় তাহলে আমাদের সন্তানদের কপালে হয়ত শিক্ষা জুটবে।’
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ বলেন, খোঁজ নিয়ে তাদের শিক্ষার আওতায় আনার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মতামত দিন

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

অবাধে মাছ নিধন অমানবিক নির্যাতনে শিশুর মৃত্যু আত্মহত্যা আহত ইয়াবা উদ্ধার উড়াল সড়ক খুন গাছে বেঁধে নির্যাতন গাছের চারা বিতরণ ঘূর্ণিঝড় 'কোমেন' চাঁদা না পেয়ে স্কুলে হামলা ছিটমহল জাতির জনকের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জাতীয় শোক দিবস জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ ঝিনাইগাতী টেস্ট ড্র ড. গোলাম রহমান রতন পাঞ্জাবের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিহত প্রত্যেক বিভাগে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রধানমন্ত্রী বন্যহাতির তান্ডব বন্যহাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে নিহত বাল্যবিয়ের হার ভেঙে গেছে ব্রিজ মতিয়া চৌধুরী মাদারীপুর মির্জা ফখরুলের মেডিকেল রিপোর্ট রিমান্ডে লাশ উদ্ধার শাবলের আঘাতে শিশু খুন শাহ আলম বাবুল শিশু রাহাত হত্যা শেরপুর শেরপুরে অপহরণ শেরপুরে বন্যা শেরপুরের নবাগত জেলা প্রশাসক শ্যামলবাংলা২৪ডটকম’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সংঘর্ষে নিহত ৫ স্কুলছাত্র রাহাত হত্যা স্কুলছাত্রী অপহরণ হাতি বন্ধু কর্মশালা হুইপ আতিক হুমকি ২ স্কুলছাত্রী হত্যা
error: Content is protected !!