বিকাল ৪:২৭ | রবিবার | ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

লেবুর খোসার যত উপকারিতা

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : করোভাইরাস মহামারি পরিস্থিতিকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বেশি বেশি করে ভিটামিন সি খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। এই ভিটামিনের অন্যতম ভালো উৎস হচ্ছে লেবু। বেশিরভাগ মানুষ লেবু চিপে রস বের করে এর খোসা ফেলে দেন। কিন্তু অনেকেরই জানা নেই, লেবুর খোসা স্বাস্থ্য এবং ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। পুষ্টিতে পরিপূর্ণ লেবুর খোসা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে। এছাড়াও, লেবু ও এর খোসা থেকে যেসব উপকারিতা পাওয়া যায়-
পুষ্টি সরবরাহ করে : লেবুর রসের মতো এর খোসাতেও প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, ক্যালসিয়াম, ফাইবার, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং বিটা ক্যারোটিন আছে। লেবুর খোসা এর রসের চেয়ে প্রায় ৫ থেকে ১০ গুণ বেশি পুষ্টি সরবরাহ করতে পারে। প্রায় ১০০ গ্রাম লেবুর খোসায় ১৩৪ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ১৬০ মিলিগ্রাম পটাশিয়াম, ১২৯ মিলিগ্রাম ভিটামিন-সি এবং ১০ দশমিক ৬ গ্রাম ফাইবার রয়েছে।
হাড়কে মজবুত করে : ভিটামিন-সি এবং ক্যালসিয়াম হাড়কে মজবুত করতে এবং হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সহায়তা করে। লেবুর খোসার এ পুষ্টিগুলো প্রদাহজনিত পলি আর্থ্রাইটিস, অস্টিওপোরোসিস, রিউম্যাটয়েড আর্থ্রাইটিসের মতো রোগও প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে।
ছত্রাক ও ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ প্রতিরোধ করে : লেবু ও এর খোসায় থাকা ভিটামিন-সি এর অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল ক্ষমতা অন্ত্রের ভেতরে থাকা কৃমি এবং পরজীবী জীবাণু মেরে শরীর ভালো রাখতে সাহায্য করে।
ক্যান্সার প্রতিরোধ করে : লেবুর রসের মতো এর খোসাও সাইট্রাস বায়োফ্লাভোনয়েড সমৃদ্ধ। এছাড়াও এতে থাকা বিভিন্ন উপাদান দেহকে ক্ষারীয় করে তোলে। এটি ক্যান্সার প্রতিরোধেও ভূমিকা রাখে।

img-add

কীভাবে খাবেন লেবুর খোসা?
লেবুর থেকে ছাড়ানো খোসা জমিয়ে শুকিয়ে রাখতে পারেনযাতে এগুলোকে ভালোভাবে গুড়ো করে নিতে পারেন।ওভেন ব্যবহার করে ২০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রায় লেবুর খোসাগুলোকে ভাজাভাজা করা নিতে পারেন এবং সেঁকা খোসাগুলোকে পরে গুঁড়ো করে নিন। লেবুর খোসার গুঁড়ো বিভিন্নভাবে খাওয়া যেতে পারে। দৈনন্দিন খাবার, পানীয়, অর্গানিক চা এবং স্যুপে লেবুর খোসার গুঁড়ো মিশিয়ে খেতে পারেন।
ত্বকের যত্নে লেবু খোসার ব্যবহার : লেবুর খোসা ত্বকের স্ক্র্যাবার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এক মুঠো লেবুর খোসার পেস্ট করে নিন। এরপর তাতে ১ থেকে ২ কাপ চিনি দিয়ে পেস্টটি ভালো করে মেশান। পরে ত্বকের ধরন বুঝে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল মিশিয়ে নিন। শুষ্ক ত্বকের জন্য তৈরি পেস্টে তৈলাক্ত ত্বকের চেয়ে বেশি তেল দিয়ে মিশ্রণটি তৈরি করতে হবে। মিশ্রণটি তৈরি করার পরে, ভেজা ত্বকে আলতোভাবে ঘষে ঘষে লাগিয়ে নিন। এবার পরিষ্কার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এ স্ক্রাব ব্যবহারের ফলে ত্বক আরও উজ্জ্বল দেখাবে। সপ্তাহে একবার লেবুর খোসার স্ক্রাব লাগাতে পারেন।
ফেস মাস্ক হিসেবে ব্যবহার : এক চিমটি লেবুর খোসার গুঁড়োর সাথে ২ টেবিল চামচ চালের গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এবার এ মিশ্রণটিতে ঠাণ্ডা দুধ দিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। ত্বকের মৃত কোষগুলোকে জীবিত করে তুলতে এ পেস্টটি ব্যবহার করতে পারেন।
পা ফাটার চিকিৎসায় : লেবুর খোসার গুঁড়োতে পেট্রোলিয়াম জেলি দিয়ে মিশ্রণের মতো পেস্ট তৈরি করুন। এবার তৈরি করা এ পেষ্টটি আপনার ফাটা পায়ে লাগিয়ে নিন। এর পরে পায়ে মোজা পড়ে নিন এবং পেস্টটি কয়েক ঘণ্টা রেখে দিন। পা ধুয়ে ফেলার পায়ের ত্বক নরম এবং স্বাস্থ্যকর দেখাবে।
গৃহস্থালির কাজে লেবুর খোসার ব্যবহার: ঘরের আসবাব, মেঝে এবং অন্যান্য ব্যবহার্য তৈজসপত্র জীবাণুমুক্ত রাখতে পরিষ্কারক হিসেবে লেবুর খোসা ব্যবহার করতে পারেন। প্রথমে লেবুর খোসাগুলোকে পানি দিয়ে সেদ্ধ করে নিন এবং পরে ছেঁকে নিন। এবার অ-বিষাক্ত ডিআইওয়াই ক্লিনার তৈরি করতে এ পানির সাথে প্রয়োজন মতো ভিনেগার বা বেকিং সোডা মিশিয়ে নিন। লেবুর খোসায় থাকা রাসায়নিক পদার্থগুলোর দাগ তুলে ফেলার ক্ষমতা রয়েছে।
দুর্গন্ধ দূর করতে : লেবুর খোসাগুলো প্রায়শই ফ্রিজ, বদ্ধ ড্রয়ার, ট্র্যাশ ক্যান ইত্যাদির ভেতরে তৈরি হওয়া দুর্গন্ধ দূর করে দিতে পারে। লেবুর খোসা আপনার মাইক্রোওয়েভ, কাটার বোর্ড এবং অন্যান্য ব্যবহার্য পাত্র পরিষ্কার করার ক্ষেত্রে যাদুর মতো কাজ করতে পারে। বাটির পানিতে কয়েকটি লেবুর খোসা রেখে বাটিটি কিছু সময়ের জন্য আপনার মাইক্রোওয়েভের ভেতরে রাখুন। এটি মাইক্রোওয়েভের ভেতরের দুর্গন্ধকে সতেজ গন্ধে পরিণত করবে।
রুম ফ্রেশনার হিসেবে : লেবুর খোসা ব্যবহার করে ঘরেই প্রাকৃতিক রুম ফ্রেশনার তৈরি করতে পারবেন। এজন্য শুকনো ফুল এবং প্রয়োজনীয় তেলের সাথে লেবুর খোসা মেশান। এবার এ সাইট্রাস-সুগন্ধযুক্ত মিশ্রণটি একটি পরিষ্কার স্প্রে বোতলে রাখুন। এরপর এটি ঘরে স্প্রে করতে পারেন।
পোকা-মাকড় তাড়ানোর ওষুধ : পোকামাকড়ের উপদ্রব কমানোর বিকল্প হতে পারে লেবুর খোসার ব্যবহার। বিশেষ করে পিঁপড়া, তেলাপোকা ইত্যাদি লেবুর গন্ধকে সহ্য করতে পারে না। সুতরাং, ঘরের কোণে বা কোণার মতো জায়গা যেমন- বইয়ের তাক, আলমারি, রান্নাঘরের তাক, স্টোর রুম ইত্যাদিতে লেবুর খোসা ছড়িয়ে রাখতে পারেন। মশার মতো পোকার হাত থেকে ত্বককে বাঁচাতে লেবুর খোসার ব্যবহার করতে পারেন।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শেখ হাসিনা দাবা টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন এক ইন্দোনেশিয়ান

» স্ত্রীর মামলায় কারাগারে শওকত আলী ইমন

» শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন কাল : দেশজুড়ে আ’লীগের নানা কর্মসূচি

» পাপিয়া দম্পতির অস্ত্র মামলার রায় ১২ অক্টোবর

» করোনায় বিশ্বে ২০ লাখ মৃত্যুর আশঙ্কা ডব্লিউএইচওর

» সিলেটে এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে ধর্ষণের আসামি সাইফুর গ্রেপ্তার

» নালিতাবাড়ীতে উন্নত জাতের আম ও মিশ্র ফল চাষে কৃষক প্রশিক্ষণ

» লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, বাংলাদেশিসহ উদ্ধার ২২, নিখোঁজ আরও ১৬ জন

» ‘সাকিব কেন আড়তদার?’

» তারা দলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে : ড. কামাল

» সব দেশ যাতে একসঙ্গে করোনা ভ্যাকসিন পায় তা নিশ্চিত করুন : জাতিসংঘের ভাষণে শেখ হাসিনা

» ঝিনাইগাতীতে হুইপ আতিকের রোগমুক্তির কামনায় আওয়ামী লীগের দোয়া মাহফিল

» দেশে করোনায় আরও ৩৬ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১১০৬

» সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ধর্ষণের ঘটনায় ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

» শ্রীবরদীতে শিশু গৃহকর্মীকে বর্বরোচিত নির্যাতন ॥ গৃহকর্ত্রী গ্রেফতার

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  বিকাল ৪:২৭ | রবিবার | ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

লেবুর খোসার যত উপকারিতা

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : করোভাইরাস মহামারি পরিস্থিতিকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বেশি বেশি করে ভিটামিন সি খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। এই ভিটামিনের অন্যতম ভালো উৎস হচ্ছে লেবু। বেশিরভাগ মানুষ লেবু চিপে রস বের করে এর খোসা ফেলে দেন। কিন্তু অনেকেরই জানা নেই, লেবুর খোসা স্বাস্থ্য এবং ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। পুষ্টিতে পরিপূর্ণ লেবুর খোসা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে। এছাড়াও, লেবু ও এর খোসা থেকে যেসব উপকারিতা পাওয়া যায়-
পুষ্টি সরবরাহ করে : লেবুর রসের মতো এর খোসাতেও প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, ক্যালসিয়াম, ফাইবার, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং বিটা ক্যারোটিন আছে। লেবুর খোসা এর রসের চেয়ে প্রায় ৫ থেকে ১০ গুণ বেশি পুষ্টি সরবরাহ করতে পারে। প্রায় ১০০ গ্রাম লেবুর খোসায় ১৩৪ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ১৬০ মিলিগ্রাম পটাশিয়াম, ১২৯ মিলিগ্রাম ভিটামিন-সি এবং ১০ দশমিক ৬ গ্রাম ফাইবার রয়েছে।
হাড়কে মজবুত করে : ভিটামিন-সি এবং ক্যালসিয়াম হাড়কে মজবুত করতে এবং হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সহায়তা করে। লেবুর খোসার এ পুষ্টিগুলো প্রদাহজনিত পলি আর্থ্রাইটিস, অস্টিওপোরোসিস, রিউম্যাটয়েড আর্থ্রাইটিসের মতো রোগও প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে।
ছত্রাক ও ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ প্রতিরোধ করে : লেবু ও এর খোসায় থাকা ভিটামিন-সি এর অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল ক্ষমতা অন্ত্রের ভেতরে থাকা কৃমি এবং পরজীবী জীবাণু মেরে শরীর ভালো রাখতে সাহায্য করে।
ক্যান্সার প্রতিরোধ করে : লেবুর রসের মতো এর খোসাও সাইট্রাস বায়োফ্লাভোনয়েড সমৃদ্ধ। এছাড়াও এতে থাকা বিভিন্ন উপাদান দেহকে ক্ষারীয় করে তোলে। এটি ক্যান্সার প্রতিরোধেও ভূমিকা রাখে।

img-add

কীভাবে খাবেন লেবুর খোসা?
লেবুর থেকে ছাড়ানো খোসা জমিয়ে শুকিয়ে রাখতে পারেনযাতে এগুলোকে ভালোভাবে গুড়ো করে নিতে পারেন।ওভেন ব্যবহার করে ২০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রায় লেবুর খোসাগুলোকে ভাজাভাজা করা নিতে পারেন এবং সেঁকা খোসাগুলোকে পরে গুঁড়ো করে নিন। লেবুর খোসার গুঁড়ো বিভিন্নভাবে খাওয়া যেতে পারে। দৈনন্দিন খাবার, পানীয়, অর্গানিক চা এবং স্যুপে লেবুর খোসার গুঁড়ো মিশিয়ে খেতে পারেন।
ত্বকের যত্নে লেবু খোসার ব্যবহার : লেবুর খোসা ত্বকের স্ক্র্যাবার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এক মুঠো লেবুর খোসার পেস্ট করে নিন। এরপর তাতে ১ থেকে ২ কাপ চিনি দিয়ে পেস্টটি ভালো করে মেশান। পরে ত্বকের ধরন বুঝে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল মিশিয়ে নিন। শুষ্ক ত্বকের জন্য তৈরি পেস্টে তৈলাক্ত ত্বকের চেয়ে বেশি তেল দিয়ে মিশ্রণটি তৈরি করতে হবে। মিশ্রণটি তৈরি করার পরে, ভেজা ত্বকে আলতোভাবে ঘষে ঘষে লাগিয়ে নিন। এবার পরিষ্কার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এ স্ক্রাব ব্যবহারের ফলে ত্বক আরও উজ্জ্বল দেখাবে। সপ্তাহে একবার লেবুর খোসার স্ক্রাব লাগাতে পারেন।
ফেস মাস্ক হিসেবে ব্যবহার : এক চিমটি লেবুর খোসার গুঁড়োর সাথে ২ টেবিল চামচ চালের গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এবার এ মিশ্রণটিতে ঠাণ্ডা দুধ দিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। ত্বকের মৃত কোষগুলোকে জীবিত করে তুলতে এ পেস্টটি ব্যবহার করতে পারেন।
পা ফাটার চিকিৎসায় : লেবুর খোসার গুঁড়োতে পেট্রোলিয়াম জেলি দিয়ে মিশ্রণের মতো পেস্ট তৈরি করুন। এবার তৈরি করা এ পেষ্টটি আপনার ফাটা পায়ে লাগিয়ে নিন। এর পরে পায়ে মোজা পড়ে নিন এবং পেস্টটি কয়েক ঘণ্টা রেখে দিন। পা ধুয়ে ফেলার পায়ের ত্বক নরম এবং স্বাস্থ্যকর দেখাবে।
গৃহস্থালির কাজে লেবুর খোসার ব্যবহার: ঘরের আসবাব, মেঝে এবং অন্যান্য ব্যবহার্য তৈজসপত্র জীবাণুমুক্ত রাখতে পরিষ্কারক হিসেবে লেবুর খোসা ব্যবহার করতে পারেন। প্রথমে লেবুর খোসাগুলোকে পানি দিয়ে সেদ্ধ করে নিন এবং পরে ছেঁকে নিন। এবার অ-বিষাক্ত ডিআইওয়াই ক্লিনার তৈরি করতে এ পানির সাথে প্রয়োজন মতো ভিনেগার বা বেকিং সোডা মিশিয়ে নিন। লেবুর খোসায় থাকা রাসায়নিক পদার্থগুলোর দাগ তুলে ফেলার ক্ষমতা রয়েছে।
দুর্গন্ধ দূর করতে : লেবুর খোসাগুলো প্রায়শই ফ্রিজ, বদ্ধ ড্রয়ার, ট্র্যাশ ক্যান ইত্যাদির ভেতরে তৈরি হওয়া দুর্গন্ধ দূর করে দিতে পারে। লেবুর খোসা আপনার মাইক্রোওয়েভ, কাটার বোর্ড এবং অন্যান্য ব্যবহার্য পাত্র পরিষ্কার করার ক্ষেত্রে যাদুর মতো কাজ করতে পারে। বাটির পানিতে কয়েকটি লেবুর খোসা রেখে বাটিটি কিছু সময়ের জন্য আপনার মাইক্রোওয়েভের ভেতরে রাখুন। এটি মাইক্রোওয়েভের ভেতরের দুর্গন্ধকে সতেজ গন্ধে পরিণত করবে।
রুম ফ্রেশনার হিসেবে : লেবুর খোসা ব্যবহার করে ঘরেই প্রাকৃতিক রুম ফ্রেশনার তৈরি করতে পারবেন। এজন্য শুকনো ফুল এবং প্রয়োজনীয় তেলের সাথে লেবুর খোসা মেশান। এবার এ সাইট্রাস-সুগন্ধযুক্ত মিশ্রণটি একটি পরিষ্কার স্প্রে বোতলে রাখুন। এরপর এটি ঘরে স্প্রে করতে পারেন।
পোকা-মাকড় তাড়ানোর ওষুধ : পোকামাকড়ের উপদ্রব কমানোর বিকল্প হতে পারে লেবুর খোসার ব্যবহার। বিশেষ করে পিঁপড়া, তেলাপোকা ইত্যাদি লেবুর গন্ধকে সহ্য করতে পারে না। সুতরাং, ঘরের কোণে বা কোণার মতো জায়গা যেমন- বইয়ের তাক, আলমারি, রান্নাঘরের তাক, স্টোর রুম ইত্যাদিতে লেবুর খোসা ছড়িয়ে রাখতে পারেন। মশার মতো পোকার হাত থেকে ত্বককে বাঁচাতে লেবুর খোসার ব্যবহার করতে পারেন।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!