সকাল ৬:২০ | সোমবার | ১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ১লা পৌষ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

যত্ন হোক নতুন মায়েরও

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : সদ্য জন্ম নেওয়া মানব শিশুকে নিয়ে আমাদের চিন্তার অন্ত থাকে না। কী করতে হবে তার সুস্থতার জন্য, সে কীভাবে ভালো থাকবে এ সব নিয়েই চিন্তায় থাকেন নতুন মা। কিন্তু এই কর্মযজ্ঞে বেমালুম ভুলে যান যে, তিনিও নতুন মা হয়েছেন। একজন নারী যতবার মা হন, ততবার তার নতুন করে জন্ম হয়। সন্তানকে যেমন অনেক যত্নে আর খেয়ালে গড়ে তুলতে হয়, ঠিক তেমনি এই চেষ্টাটুকু প্রয়োজন পড়ে একজন মায়ের জন্যও। নতুন মায়ের খেয়াল রাখবেন কীভাবে? সুস্থতা নিশ্চিত করবেন কীভাবে? জেনে নেয়া যাক কিছু উপায় :

img-add

পরিমাণমতো বিশ্রাম নেওয়া : নতুন শিশু সাধারণত তিন ঘণ্টা পরপর ঘুম থেকে জেগে ওঠে। তার নিয়মিত খাবারের দরকার হয়। রাতের বেলায় তার কান্নাটাও কোনো ঘড়ি না ধরেই চলতে থাকে। তাই এর সাথে মিলিয়ে নতুন মা হিসেবে নিজের বিশ্রামের সময়টাও নিশ্চিত করুন। এমন যেন না হয় যে, শিশুর যত্ন করতে গিয়ে আপনি নিজেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। এক্ষেত্রে-
১। প্রথম কয়েক সপ্তাহে শিশুর দেখভালের জন্য সাথে কাউকে রাখুন
২। শিশু যে কয় মিনিটের জন্যই ঘুমাক না কেন, তখন আপনিও ঘুমিয়ে নিন
৩। সময় করে একটু বাইরে থেকে বেড়িয়ে আসুন
৪। শিশুকে দেখতে অনেকেই আসতে পারে। তবে তাদের আপ্যায়নে ব্যস্ত হয়ে নিজেকে অতিরিক্ত চাপ দেবেন না।

পুষ্টিকর খাবার খাওয়া : শিশুর মতো নতুন মায়েরও দরকার পুষ্টিকর খাবার। তাই সন্তান জন্মের পরবর্তী সময়ে নিয়মিত পুষ্টিকর খাবার খান। এক্ষেত্রে আপনার খাদ্যতালিকায় শস্য, প্রোটিন, ফল, দুগ্ধজাত খাবার এবং সবজি রাখুন। এতে করে আপনি যেমন পুষ্টি পাবেন, তেমনই পুষ্টি পাবে আপনার সন্তানও। যদিও তেল পুষ্টির উৎস নয়। তবে বাদাম এবং সূর্যমুখী তেলের মতো তেলগুলো আপনাকে পুষ্টি প্রদান করবে।

বাড়তি সাহায্য নেওয়া : একজন শিশুকে সামলানো খুব একটা সহজ কথা নয়। নতুন বাবা-মায়ের পক্ষে শিশুর পুরোটা যত্ন নেওয়া এবং নিজেদের স্বাভাবিক জীবনযাপন করা খুব কঠিন হয়ে পড়ে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে শিশুর জন্মের পর একজন বাড়তি মানুষকে পাশেই রাখুন। এতে করে বিভিন্ন সময়ে সাহায্য পাওয়া সম্ভব হবে। নতুন মায়ের ওপরে বাড়তি চাপ পড়বে না।

ভারী কিছু না তোলা : নতুন মায়ের শরীরের ওপর দিয়ে এমনিতেই বড় একটি চাপ যায়। এর পরপরই তার জন্য ভারী কোনো বোঝা বহন করা উচিত নয়। শিশুকে মা কোলে নেবে সেটা স্বাভাবিক। তবে এছাড়া অন্য কোনো ভারী জিনিস যেন না তুলতে হয় সেটা খেয়াল রাখুন। এছাড়া সিঁড়ি দিয়েও খুব বেশি ওঠানামা করা থেকে বিরত থাকুন।

পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা : শিশুর জন্মের পর তার খুঁটিনাটি সব কাজই করতে হয় একজন মাকে। সেজন্যেই শিশু এবং নিজের সুরক্ষায় সবসময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকুন। খেয়াল রাখুন, যেন শিশুর কাছ থেকে জীবাণু শিশুর মায়ের কাছেও না চলে আসে।

নিয়মিত শরীরচর্চা করা : তবে, ভারী কিছু না তোলার মানে কিন্তু এই নয় যে সবটা সময় একজন নতুন মা শুয়ে-বসে থাকবেন। সন্তান জন্মের পর দেরী না করেই নিজের স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতন হোন। বাড়তি ওজন কমিয়ে ফেলুন। আর এজন্য নিয়মিত শরীরচর্চা করুন এবং স্বাস্থ্যকর খাবার খান। এতে করে খুব দ্রুতই আপনার শরীরের ফ্যাট কেটে যাবে। আপনি দ্রুত আপনার আগের শারীরিক অবস্থায় পৌঁছাতে পারবেন এবং সুস্থ থাকবেন।

সূত্র :- হেলথলাইন, স্ট্যানফোর্ড চিলড্রেনস।

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» গাজীপুরে ফ্যান কারখানায় আগুনে নিহত ১০

» শেরপুরে এবার বিজয় দিবসে ১৬ মুক্তিযোদ্ধা পুলিশকে সম্মাননা দেবে জেলা পুলিশ

» শেরপুরে পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহে স্থায়ী পদ্ধতি গ্রহণে নারীদের রেকর্ড

» নকলায় পুলিশ বিভাগের বিশেষ শান্তি সমাবেশ

» শেরপুরে পরিচয় মিলেছে সেই অজ্ঞাতনামা লাশের

» শেরপুরে মোবারকপুর মসজিদের নতুন ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

» সন্তান চান রণবীর

» ভোটার কার্ড-পাসপোর্টই নাগরিকত্বের প্রমাণ : ভারতীয় আদালত

» নাচের জন্য অভিনয়ও ছেড়ে দিতে পারি : শ্রদ্ধা কাপুর

» হজমশক্তি বাড়াবে বাঁধাকপি

» ভারত জোর করে কাউকে বাংলাদেশে পাঠাচ্ছে না : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

» নাগরিকত্ব আইন ভারতের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার : কাদের

» শেরপুরে অগ্নিকাণ্ডে বসতবাড়ি ভস্মিভূত

» শ্রীবরদীতে ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক

» সুপ্রশিক্ষিত সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তুলতে চাই: প্রধানমন্ত্রী

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  সকাল ৬:২০ | সোমবার | ১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ১লা পৌষ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

যত্ন হোক নতুন মায়েরও

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : সদ্য জন্ম নেওয়া মানব শিশুকে নিয়ে আমাদের চিন্তার অন্ত থাকে না। কী করতে হবে তার সুস্থতার জন্য, সে কীভাবে ভালো থাকবে এ সব নিয়েই চিন্তায় থাকেন নতুন মা। কিন্তু এই কর্মযজ্ঞে বেমালুম ভুলে যান যে, তিনিও নতুন মা হয়েছেন। একজন নারী যতবার মা হন, ততবার তার নতুন করে জন্ম হয়। সন্তানকে যেমন অনেক যত্নে আর খেয়ালে গড়ে তুলতে হয়, ঠিক তেমনি এই চেষ্টাটুকু প্রয়োজন পড়ে একজন মায়ের জন্যও। নতুন মায়ের খেয়াল রাখবেন কীভাবে? সুস্থতা নিশ্চিত করবেন কীভাবে? জেনে নেয়া যাক কিছু উপায় :

img-add

পরিমাণমতো বিশ্রাম নেওয়া : নতুন শিশু সাধারণত তিন ঘণ্টা পরপর ঘুম থেকে জেগে ওঠে। তার নিয়মিত খাবারের দরকার হয়। রাতের বেলায় তার কান্নাটাও কোনো ঘড়ি না ধরেই চলতে থাকে। তাই এর সাথে মিলিয়ে নতুন মা হিসেবে নিজের বিশ্রামের সময়টাও নিশ্চিত করুন। এমন যেন না হয় যে, শিশুর যত্ন করতে গিয়ে আপনি নিজেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। এক্ষেত্রে-
১। প্রথম কয়েক সপ্তাহে শিশুর দেখভালের জন্য সাথে কাউকে রাখুন
২। শিশু যে কয় মিনিটের জন্যই ঘুমাক না কেন, তখন আপনিও ঘুমিয়ে নিন
৩। সময় করে একটু বাইরে থেকে বেড়িয়ে আসুন
৪। শিশুকে দেখতে অনেকেই আসতে পারে। তবে তাদের আপ্যায়নে ব্যস্ত হয়ে নিজেকে অতিরিক্ত চাপ দেবেন না।

পুষ্টিকর খাবার খাওয়া : শিশুর মতো নতুন মায়েরও দরকার পুষ্টিকর খাবার। তাই সন্তান জন্মের পরবর্তী সময়ে নিয়মিত পুষ্টিকর খাবার খান। এক্ষেত্রে আপনার খাদ্যতালিকায় শস্য, প্রোটিন, ফল, দুগ্ধজাত খাবার এবং সবজি রাখুন। এতে করে আপনি যেমন পুষ্টি পাবেন, তেমনই পুষ্টি পাবে আপনার সন্তানও। যদিও তেল পুষ্টির উৎস নয়। তবে বাদাম এবং সূর্যমুখী তেলের মতো তেলগুলো আপনাকে পুষ্টি প্রদান করবে।

বাড়তি সাহায্য নেওয়া : একজন শিশুকে সামলানো খুব একটা সহজ কথা নয়। নতুন বাবা-মায়ের পক্ষে শিশুর পুরোটা যত্ন নেওয়া এবং নিজেদের স্বাভাবিক জীবনযাপন করা খুব কঠিন হয়ে পড়ে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে শিশুর জন্মের পর একজন বাড়তি মানুষকে পাশেই রাখুন। এতে করে বিভিন্ন সময়ে সাহায্য পাওয়া সম্ভব হবে। নতুন মায়ের ওপরে বাড়তি চাপ পড়বে না।

ভারী কিছু না তোলা : নতুন মায়ের শরীরের ওপর দিয়ে এমনিতেই বড় একটি চাপ যায়। এর পরপরই তার জন্য ভারী কোনো বোঝা বহন করা উচিত নয়। শিশুকে মা কোলে নেবে সেটা স্বাভাবিক। তবে এছাড়া অন্য কোনো ভারী জিনিস যেন না তুলতে হয় সেটা খেয়াল রাখুন। এছাড়া সিঁড়ি দিয়েও খুব বেশি ওঠানামা করা থেকে বিরত থাকুন।

পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা : শিশুর জন্মের পর তার খুঁটিনাটি সব কাজই করতে হয় একজন মাকে। সেজন্যেই শিশু এবং নিজের সুরক্ষায় সবসময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকুন। খেয়াল রাখুন, যেন শিশুর কাছ থেকে জীবাণু শিশুর মায়ের কাছেও না চলে আসে।

নিয়মিত শরীরচর্চা করা : তবে, ভারী কিছু না তোলার মানে কিন্তু এই নয় যে সবটা সময় একজন নতুন মা শুয়ে-বসে থাকবেন। সন্তান জন্মের পর দেরী না করেই নিজের স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতন হোন। বাড়তি ওজন কমিয়ে ফেলুন। আর এজন্য নিয়মিত শরীরচর্চা করুন এবং স্বাস্থ্যকর খাবার খান। এতে করে খুব দ্রুতই আপনার শরীরের ফ্যাট কেটে যাবে। আপনি দ্রুত আপনার আগের শারীরিক অবস্থায় পৌঁছাতে পারবেন এবং সুস্থ থাকবেন।

সূত্র :- হেলথলাইন, স্ট্যানফোর্ড চিলড্রেনস।

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!