দুপুর ২:৩৭ | শনিবার | ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ পিসিআর ল্যাবে ১,২২২টি নমুনা পরীক্ষা করে সর্বোচ্চ রেকর্ড সৃষ্টি

মমেক আরটি পিসিআর ল্যাবটি দেশে লিড দিচ্ছে : ডাঃ এম. এ আজিজ

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ ॥ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের (মমেক) আরটি পিসিআর ল্যাব এখন সারা বাংলাদেশে লিড দিচ্ছে। চমৎকার সমন্বয় ও আন্তরিক পরিবেশে নিরবচ্ছিন্ন সেবাদানের ফলে দেশসেরা করোনা পরীক্ষা কেন্দ্র এখন ময়মনসিংহে বলে জানিয়েছেন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির মহাসচিব অধ্যক্ষ ডাঃ এম. এ আজিজ। বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে যখন সারাদেশ আতংকে, এমনি অবস্থায় সুখবর দিয়েছে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের (মমেক) আরটি পিসিআর ল্যাব। দেশে রাজধানীর বাইরে একদিনে সর্বাধিক সংখ্যক ১হাজার ২২২টি করোনার নমুনা পরীক্ষা করে রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। এদিকে রাজধানীর পর চট্রগ্রামে ৫টি সরকারি ও ২টি বেসরকারীসহ মোট ৭টি আরটি পিসিআর ল্যাবে গত ২৫ জুন সর্বোচ্চ ১০৯৩টি নমুনার পরীক্ষায় করতে সক্ষম হয়েছিল বলে জানান চট্রগ্রামের জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ সেখ ফজলে রাব্বি।
মমেক অধ্যক্ষ প্রফেসর ডাঃ চিত্তরঞ্জন দেবনাথ জানান, তার নেতৃতে মাইক্রোবাইলজি বিভাগের টীম অক্লান্ত পরিশ্রম সুদক্ষ নিরবচ্ছিন্ন কর্মতৎপরতার মাধ্যমে দেশে রেকর্ড পরিমাণ নমুনার পরীক্ষা করতে সক্ষম হয়েছে। স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির মহাসচিব ডাঃ এম. এ আজিজ এর নিজ এলাকার আরটি পিসিআর ল্যাবটির সার্বক্ষণিক তদারকি, নির্দেশনা, আন্তরিক সহযোগীতা ও অনুপ্রেরণায় আমাদের কাজে গতিকে আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। মমেক-এ দুটি ল্যাবে স্থাপিত ৩টি আরটি পিসিআর মেশিনে ২৭জুন ১২টি শ্লটে সর্বোচ্চ ১হাজার ২২২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। যা সকাল ৯টা থেকে শুরু রাত ১২টা পর্যন্ত এই পরীক্ষার কাজ চলে।

img-add

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডাঃ চিত্তরঞ্জন আরো দেবনাথ জানান, ২৭জুন পর্যন্ত মমেক-এ দুটি ল্যাবের ৩টি আরটি পিসিআর মেশিনে ২৭জুন পর্যন্ত মোট ৩১ হাজার ৫৪৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়, এতে ৩হাজার ১৩৫জন করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে। যা মোট নমুনার ৯.৯৩ শতাংশ করোনা পজিটিভ হয়েছে। মমেক মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ সালমা আহমেদ এর নেতৃত্বে একদল চৌকস মাইক্রোবায়োলজিস্টসহ একদল মেডিকেল টেকনোলজিস্ট টীম দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম সুদক্ষ নিরবচ্ছিন্ন কর্মতৎপরতার মাধ্যমে নমুনার পরীক্ষা কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির মহাসচিব ডাঃ এম এ আজিজ, বিএমএ ও স্বাচিপ নেতৃবৃন্দের সার্বক্ষণিক তদারকি ও আন্তরিক সহযোগীতার ফলে আমাদের কর্মউদ্দীপনা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানান মমেক অধ্যক্ষ।
মমেক মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ সালমা আহমেদ জানান, করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার জন্য আরটি পিসিআর ল্যাবে নিয়োজিত মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের টীমের মনোবল চাঙ্গা রাখার লক্ষ্যে স্বাচিপ মহাসচিব ডাঃ এম এ আজিজ ও মমেক অধ্যক্ষ ডাঃ চিত্তরঞ্জন দেবনাথ সারাক্ষণ অনুপ্রেরণা, উৎসাহ ও উদ্দীপণা দিয়ে যাচ্ছেন। যার প্রেক্ষিতে তারা আনন্দের সাথে কাজ করে যাচ্ছেন।
কেন্দ্রীয় বি.এম.এ করোনা মনিটরিং সেল ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রতিনিধি, জেলা বিএমএ সভাপতি, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও মমেক প্যাথলজি বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ডাঃ মতিউর রহমান ভূঁইয়া জানান, মাইক্রোবাইলজি বিভাগের টীম দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম নিরবচ্ছিন্ন কর্মতৎপরতার মাধ্যমে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। যা দুর্যোগকালীন সময়ে দেশ জাতির কাছে সেইসব করোনাযোদ্ধারা স্বরণীয় থাকবেন। দেশসেরা এই পারফরমেন্সের জন্য তাদের জাতীয়ভাবে মূল্যায়ন করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন চিকিৎসক নেতা ডাঃ মতিউর রহমান ভূঁইয়া।
স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় পরিষদের ময়মনসিংহ বিভাগীয় করোনা মনিটরিং সেলের সমন্বয়ক ও বি.এম.এ ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ডাঃ এইচ. এ. গোলন্দাজ তারা জানান, মাত্র ৩টি মেশিন দিয়ে এত অধিক সংখ্যক করোনার নমুনা পরীক্ষা বাংলাদেশের আর কোথাও হয়নি। মমেক অধ্যক্ষ ডাঃ চিত্তরঞ্জন দেবনাথের নেতৃত্বে এবং তার আন্তরিক ও সুদক্ষ ব্যবস্থাপনার প্রেক্ষিতে পরীক্ষায় নিয়োজিত মাইক্রোবাইলজি বিভাগের টীম দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে নিরবচ্ছিন্ন সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষায় পিসিআর ল্যাবের সার্বক্ষণিক তদারকির জন্য ৫জন সিনিয়র চৌকস অধ্যাপককে দায়িত্ব দিয়ে আরো প্রজ্ঞার পরিচয় দিয়েছেন মমেক অধ্যক্ষ। একটি নতুন পিসিআর মেশিন বরাদ্দের ব্যবস্থা করে এবং ময়মনসিংহে দেশের সর্বাধিক সংখ্যক করোনার পরীক্ষার উপযোগী পরিবেশ সৃষ্টির জন্য তিনি ময়মনসিংহবাসীর পক্ষ থেকে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির মহাসচিব ডাঃ এম এ আজিজের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান।
এদিকে মেডিকেল কলেজের আরটি পিসিআর ল্যাবে করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা তদারকির জন্য ৫জন সিনিয়র চৌকস অধ্যাপককে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তারা হলেন- নেত্রকোণা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ শ্যামল কুমার পাল, মমেক কার্ডিওলজি বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ মোঃ আব্দুল বারী, ফার্মাকোলজি বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ শ্যামল কুমার সাহা, মমেক মাইক্রোবায়োলজি বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ সালমা আহমাদ ও সার্জারী বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ মোঃ আবুল কালাম আজাদ।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» ঝিনাইগাতীর নলকুড়া ইউপি নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী যুবলীগ নেতা মিলনের মতবিনিময় সভা

» ঝিনাইগাতীতে উপজেলা পরিষদের নতুন কার্যালয় উদ্বোধন

» ধনেপাতার পুষ্টিগুণ

» ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া শান্তি আসবে না : বাইডেন

» নায়করাজ রাজ্জাকের জন্মদিন আজ

» দেশে করোনার টিকা দেওয়া শুরু ২৭ জানুয়ারি

» সাকিব-তামিমে সিরিজ জয় টাইগারদের

» আওয়ামী লীগের উপ-কমিটিতে সদস্য পদ পেলেন শেরপুরের আবদুল মজিদ

» নালিতাবাড়ীতে ফাঁসিতে ঝুলে যুবকের আত্মহত্যা

» শেরপুরে মুজিববর্ষে ২৯১ ভূমিহীন পরিবার পাচ্ছে জমিসহ ঘর

» শ্রীবরদীতে আড়াইশ শিশুর পরিবার পেল শীতবস্ত্র ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সরঞ্জাম

» নকলায় বিনা উদ্ভাবিত ফসলের চাষাবাদ বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

» মানব জীবনে ইবাদত ও আনুগত্যের পরিধি অপরিসীম

» কাভানি-পগবা নৈপুণ্যে শীর্ষে ম্যানইউ

» শীতে ত্বক ভালো রাখতে যেসব ভুল এড়ানো দরকার

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  দুপুর ২:৩৭ | শনিবার | ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ পিসিআর ল্যাবে ১,২২২টি নমুনা পরীক্ষা করে সর্বোচ্চ রেকর্ড সৃষ্টি

মমেক আরটি পিসিআর ল্যাবটি দেশে লিড দিচ্ছে : ডাঃ এম. এ আজিজ

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ ॥ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের (মমেক) আরটি পিসিআর ল্যাব এখন সারা বাংলাদেশে লিড দিচ্ছে। চমৎকার সমন্বয় ও আন্তরিক পরিবেশে নিরবচ্ছিন্ন সেবাদানের ফলে দেশসেরা করোনা পরীক্ষা কেন্দ্র এখন ময়মনসিংহে বলে জানিয়েছেন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির মহাসচিব অধ্যক্ষ ডাঃ এম. এ আজিজ। বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে যখন সারাদেশ আতংকে, এমনি অবস্থায় সুখবর দিয়েছে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের (মমেক) আরটি পিসিআর ল্যাব। দেশে রাজধানীর বাইরে একদিনে সর্বাধিক সংখ্যক ১হাজার ২২২টি করোনার নমুনা পরীক্ষা করে রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। এদিকে রাজধানীর পর চট্রগ্রামে ৫টি সরকারি ও ২টি বেসরকারীসহ মোট ৭টি আরটি পিসিআর ল্যাবে গত ২৫ জুন সর্বোচ্চ ১০৯৩টি নমুনার পরীক্ষায় করতে সক্ষম হয়েছিল বলে জানান চট্রগ্রামের জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ সেখ ফজলে রাব্বি।
মমেক অধ্যক্ষ প্রফেসর ডাঃ চিত্তরঞ্জন দেবনাথ জানান, তার নেতৃতে মাইক্রোবাইলজি বিভাগের টীম অক্লান্ত পরিশ্রম সুদক্ষ নিরবচ্ছিন্ন কর্মতৎপরতার মাধ্যমে দেশে রেকর্ড পরিমাণ নমুনার পরীক্ষা করতে সক্ষম হয়েছে। স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির মহাসচিব ডাঃ এম. এ আজিজ এর নিজ এলাকার আরটি পিসিআর ল্যাবটির সার্বক্ষণিক তদারকি, নির্দেশনা, আন্তরিক সহযোগীতা ও অনুপ্রেরণায় আমাদের কাজে গতিকে আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। মমেক-এ দুটি ল্যাবে স্থাপিত ৩টি আরটি পিসিআর মেশিনে ২৭জুন ১২টি শ্লটে সর্বোচ্চ ১হাজার ২২২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। যা সকাল ৯টা থেকে শুরু রাত ১২টা পর্যন্ত এই পরীক্ষার কাজ চলে।

img-add

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডাঃ চিত্তরঞ্জন আরো দেবনাথ জানান, ২৭জুন পর্যন্ত মমেক-এ দুটি ল্যাবের ৩টি আরটি পিসিআর মেশিনে ২৭জুন পর্যন্ত মোট ৩১ হাজার ৫৪৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়, এতে ৩হাজার ১৩৫জন করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে। যা মোট নমুনার ৯.৯৩ শতাংশ করোনা পজিটিভ হয়েছে। মমেক মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ সালমা আহমেদ এর নেতৃত্বে একদল চৌকস মাইক্রোবায়োলজিস্টসহ একদল মেডিকেল টেকনোলজিস্ট টীম দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম সুদক্ষ নিরবচ্ছিন্ন কর্মতৎপরতার মাধ্যমে নমুনার পরীক্ষা কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির মহাসচিব ডাঃ এম এ আজিজ, বিএমএ ও স্বাচিপ নেতৃবৃন্দের সার্বক্ষণিক তদারকি ও আন্তরিক সহযোগীতার ফলে আমাদের কর্মউদ্দীপনা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানান মমেক অধ্যক্ষ।
মমেক মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ সালমা আহমেদ জানান, করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার জন্য আরটি পিসিআর ল্যাবে নিয়োজিত মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের টীমের মনোবল চাঙ্গা রাখার লক্ষ্যে স্বাচিপ মহাসচিব ডাঃ এম এ আজিজ ও মমেক অধ্যক্ষ ডাঃ চিত্তরঞ্জন দেবনাথ সারাক্ষণ অনুপ্রেরণা, উৎসাহ ও উদ্দীপণা দিয়ে যাচ্ছেন। যার প্রেক্ষিতে তারা আনন্দের সাথে কাজ করে যাচ্ছেন।
কেন্দ্রীয় বি.এম.এ করোনা মনিটরিং সেল ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রতিনিধি, জেলা বিএমএ সভাপতি, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও মমেক প্যাথলজি বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ডাঃ মতিউর রহমান ভূঁইয়া জানান, মাইক্রোবাইলজি বিভাগের টীম দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম নিরবচ্ছিন্ন কর্মতৎপরতার মাধ্যমে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। যা দুর্যোগকালীন সময়ে দেশ জাতির কাছে সেইসব করোনাযোদ্ধারা স্বরণীয় থাকবেন। দেশসেরা এই পারফরমেন্সের জন্য তাদের জাতীয়ভাবে মূল্যায়ন করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন চিকিৎসক নেতা ডাঃ মতিউর রহমান ভূঁইয়া।
স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় পরিষদের ময়মনসিংহ বিভাগীয় করোনা মনিটরিং সেলের সমন্বয়ক ও বি.এম.এ ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ডাঃ এইচ. এ. গোলন্দাজ তারা জানান, মাত্র ৩টি মেশিন দিয়ে এত অধিক সংখ্যক করোনার নমুনা পরীক্ষা বাংলাদেশের আর কোথাও হয়নি। মমেক অধ্যক্ষ ডাঃ চিত্তরঞ্জন দেবনাথের নেতৃত্বে এবং তার আন্তরিক ও সুদক্ষ ব্যবস্থাপনার প্রেক্ষিতে পরীক্ষায় নিয়োজিত মাইক্রোবাইলজি বিভাগের টীম দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে নিরবচ্ছিন্ন সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষায় পিসিআর ল্যাবের সার্বক্ষণিক তদারকির জন্য ৫জন সিনিয়র চৌকস অধ্যাপককে দায়িত্ব দিয়ে আরো প্রজ্ঞার পরিচয় দিয়েছেন মমেক অধ্যক্ষ। একটি নতুন পিসিআর মেশিন বরাদ্দের ব্যবস্থা করে এবং ময়মনসিংহে দেশের সর্বাধিক সংখ্যক করোনার পরীক্ষার উপযোগী পরিবেশ সৃষ্টির জন্য তিনি ময়মনসিংহবাসীর পক্ষ থেকে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির মহাসচিব ডাঃ এম এ আজিজের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান।
এদিকে মেডিকেল কলেজের আরটি পিসিআর ল্যাবে করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা তদারকির জন্য ৫জন সিনিয়র চৌকস অধ্যাপককে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তারা হলেন- নেত্রকোণা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ শ্যামল কুমার পাল, মমেক কার্ডিওলজি বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ মোঃ আব্দুল বারী, ফার্মাকোলজি বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ শ্যামল কুমার সাহা, মমেক মাইক্রোবায়োলজি বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ সালমা আহমাদ ও সার্জারী বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ মোঃ আবুল কালাম আজাদ।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!