রাত ১:৪৩ | বৃহস্পতিবার | ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ময়মনসিংহ বিভাগে এক মাসে করোনায় আক্রান্ত ১২৫৯, মৃত্যু ১৬

নজরুল ইসলাম, ময়মনসিংহ ॥ ময়মনসিংহে করোনার সংক্রমণ কিছুদিন কম থাকলেও ঈদুল আজহার পর থেকে আবারও আক্রান্ত, মৃত্যু, ঝুঁকি, আতংক সবই বাড়ছে। সরকার বাইরে সকলকে মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক করলেও অধিকাংশ মানুষই মাস্ক পড়ছেন না। করোনায় ৩১ আগস্ট পর্যন্ত এ বিভাগে মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৫ হাজার হাজার ৮০৪জন এবং পর্যন্ত সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫ হাজার জন। তন্মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছে ৬৬ জন। এ পর্যন্ত ময়মনসিংহ বিভাগের ৪ জেলায় ৫৫ হাজার ৮৪১টি নমুনার পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আগস্ট মাসে ৪ জেলায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৯ হাজার ৬০৪টি তন্মধ্যে করোনা পজিটিভ হয়েছে ১২৫৯জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১৪৫২জন এবং মারা গেছে ১৬ জন।
অকারণ ঘোরাঘুরি, শপিংসহ সবকিছু খুলে দেয়ার প্রেক্ষিতে অবাধ চলাচলের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে বলে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞগণ জানান। গণপরিবহন ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য চলছে এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত না করে করোনায় আক্রান্ত রোগীরা বাইরে ঘুরাঘুরি করার প্রেক্ষিতে করোনা সংখ্যা দিন দিন ব্যাপক হারে বাড়ছে। দ্রুত আক্রান্তের লাগাম ধরে টানতে হলে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে জনগণকে বাধ্য করা ছাড়া কোনো পথ খোলা নেই বলে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানান।

img-add

প্রশাসন ক্যাডারের ১১তম ব্যাচের সুদক্ষ কর্মকর্তা ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার মোঃ কামরুল হাসান এনডিসি এবং ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমান এবং শেরপুরের পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম ও তার স্ত্রী আলেয়া ফেরদৌসীসহ পরিবারের সদস্যরা করোনায় আক্রান্ত হলেও তারা সুস্থ্য হয়ে বাসায় ফিরে গেছেন।
ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিচালক স্বাস্থ্য ডাঃ মোঃ আবুল কাশেম জানান, করোনায় আক্রান্ত জেলাওয়ারী ময়মনসিংহে ৩,৩৪৮জন, নেত্রকোনায় ৬৮৫, জামালপুরে ১,৩৪২ জন, জন এবং শেরপুরে ৪২৯ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫,০০০ জন। বর্তমানে মোট চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ৭০২জন। এনিয়ে বিভাগে সর্বমোট মারা গেছেন ৬৬ জন। এরমধ্যে ময়মনসিংহ জেলায় ৩১ জন, নেত্রকোনা জেলায় ৬ জন, জামালপুরে ২১ জন এবং শেরপুর জেলায় ৮জন।
স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় পরিষদের ময়মনসিংহ বিভাগীয় করোনা মনিটরিং সেলের সমন্বয়ক, বি.এম.এ ময়মনসিংহ জেলা শাখা ও বাংলাদেশ প্রাইভেট ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক ওনার্স এসোসিয়েশন, ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ডাঃ এইচ. এ. গোলন্দাজ জানান, সরকার মাস্ক বাধ্যতামূলক করলেও এখনো মাস্ক পড়ছে না। গণপরিবহন ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য চলছে এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত না করে করোনায় আক্রান্ত রোগীরা বাইরে ঘুরাঘুরি করার প্রেক্ষিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন ব্যাপক হারে বাড়ছে। দ্রুত আক্রান্তের লাগাম ধরে টানতে হলে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে জনগণকে বাধ্য করা ছাড়া কোনো পথ খোলা নেই।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শেরপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মেরাজ উদ্দিনের ৫০তম জন্মদিন পালিত

» শ্রীবরদীতে চকলেট দেওয়ার প্রলোভনে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা

» নালিতাবাড়ীতে শিক্ষক ও কর্মচারী কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের ১১তম বার্ষিক সাধারণ সভা

» নালিতাবাড়ীতে ফাতেমা রাণীর তীর্থ উৎসব শুক্রবার

» শেরপুরে ৩ সপ্তাহেও উদঘাটন হয়নি সেনাসদস্যের স্ত্রী হত্যারহস্য

» আজারবাইজান-আর্মেনিয়া যুদ্ধ: সীমান্তে ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা জোরদার ইরানের

» ইরফান ও তার দেহরক্ষী ৩ দিনের রিমান্ডে

» মেসির বিপক্ষে মাঠে নামা হচ্ছে না রোনালদোর

» আমরা যুদ্ধ চাই না, তবে মোকাবেলার শক্তি অর্জন করতে চাই : প্রধানমন্ত্রী

» বিএনপি লোক দেখাতে নির্বাচনে অংশ নেয় : কাদের

» ফের বাড়ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি

» সেরা সুন্দরী হিসেবে দীপিকা পেলেন ৫৯.৯ স্কোর

» শিগগিরই ভারতে পর্যটন ভিসা চালু: হাইকমিশনার

» শ্রীবরদীতে ঘরে ঢুকে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা

» বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহী হামিদুর রহমানের ৪৯তম শাহাদাত বার্ষিকী আজ

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  রাত ১:৪৩ | বৃহস্পতিবার | ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ময়মনসিংহ বিভাগে এক মাসে করোনায় আক্রান্ত ১২৫৯, মৃত্যু ১৬

নজরুল ইসলাম, ময়মনসিংহ ॥ ময়মনসিংহে করোনার সংক্রমণ কিছুদিন কম থাকলেও ঈদুল আজহার পর থেকে আবারও আক্রান্ত, মৃত্যু, ঝুঁকি, আতংক সবই বাড়ছে। সরকার বাইরে সকলকে মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক করলেও অধিকাংশ মানুষই মাস্ক পড়ছেন না। করোনায় ৩১ আগস্ট পর্যন্ত এ বিভাগে মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৫ হাজার হাজার ৮০৪জন এবং পর্যন্ত সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫ হাজার জন। তন্মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছে ৬৬ জন। এ পর্যন্ত ময়মনসিংহ বিভাগের ৪ জেলায় ৫৫ হাজার ৮৪১টি নমুনার পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আগস্ট মাসে ৪ জেলায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৯ হাজার ৬০৪টি তন্মধ্যে করোনা পজিটিভ হয়েছে ১২৫৯জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১৪৫২জন এবং মারা গেছে ১৬ জন।
অকারণ ঘোরাঘুরি, শপিংসহ সবকিছু খুলে দেয়ার প্রেক্ষিতে অবাধ চলাচলের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে বলে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞগণ জানান। গণপরিবহন ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য চলছে এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত না করে করোনায় আক্রান্ত রোগীরা বাইরে ঘুরাঘুরি করার প্রেক্ষিতে করোনা সংখ্যা দিন দিন ব্যাপক হারে বাড়ছে। দ্রুত আক্রান্তের লাগাম ধরে টানতে হলে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে জনগণকে বাধ্য করা ছাড়া কোনো পথ খোলা নেই বলে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানান।

img-add

প্রশাসন ক্যাডারের ১১তম ব্যাচের সুদক্ষ কর্মকর্তা ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার মোঃ কামরুল হাসান এনডিসি এবং ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমান এবং শেরপুরের পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম ও তার স্ত্রী আলেয়া ফেরদৌসীসহ পরিবারের সদস্যরা করোনায় আক্রান্ত হলেও তারা সুস্থ্য হয়ে বাসায় ফিরে গেছেন।
ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিচালক স্বাস্থ্য ডাঃ মোঃ আবুল কাশেম জানান, করোনায় আক্রান্ত জেলাওয়ারী ময়মনসিংহে ৩,৩৪৮জন, নেত্রকোনায় ৬৮৫, জামালপুরে ১,৩৪২ জন, জন এবং শেরপুরে ৪২৯ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫,০০০ জন। বর্তমানে মোট চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ৭০২জন। এনিয়ে বিভাগে সর্বমোট মারা গেছেন ৬৬ জন। এরমধ্যে ময়মনসিংহ জেলায় ৩১ জন, নেত্রকোনা জেলায় ৬ জন, জামালপুরে ২১ জন এবং শেরপুর জেলায় ৮জন।
স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় পরিষদের ময়মনসিংহ বিভাগীয় করোনা মনিটরিং সেলের সমন্বয়ক, বি.এম.এ ময়মনসিংহ জেলা শাখা ও বাংলাদেশ প্রাইভেট ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক ওনার্স এসোসিয়েশন, ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ডাঃ এইচ. এ. গোলন্দাজ জানান, সরকার মাস্ক বাধ্যতামূলক করলেও এখনো মাস্ক পড়ছে না। গণপরিবহন ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য চলছে এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত না করে করোনায় আক্রান্ত রোগীরা বাইরে ঘুরাঘুরি করার প্রেক্ষিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন ব্যাপক হারে বাড়ছে। দ্রুত আক্রান্তের লাগাম ধরে টানতে হলে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে জনগণকে বাধ্য করা ছাড়া কোনো পথ খোলা নেই।

Print Friendly, PDF & Email
এ সংক্রান্ত আরও খবর

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!