রাত ২:১১ | শনিবার | ৪ঠা জুলাই, ২০২০ ইং | ২০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ভার্চুয়াল শুনানী ॥ শেরপুরে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসিতে ৭ কার্যদিবসে জামিন পেলো ৪৮৬ আসামি

১৯ কার্যদিবসে আবেদন শুনানী ৮৪৫, মোট জামিন ৬৭৮ আসামির

স্টাফ রিপোর্টার ॥ করোনা ভাইরাসজনিত পরিস্থিতিতে শেরপুরের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসিতে হাজতি আসামির জামিন শুনানীর পাশাপাশি ফৌজদারী মামলায় আসামিদের সারেন্ডার বা আত্মসমর্পণ শুরু হওয়ায় শেষ ৭ কার্যদিবসে হাজতি ও আত্মসমর্পণ মিলে জামিন পেয়েছেন মোট ৪৮৬ আসামি। ৩ জুন থেকে ১১ জুন বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সময়কালের মধ্যে জামিন পায় ওই আসামিরা। এছাড়া একই সময়ে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসিতে জেলার ৫ উপজেলার আমলী আদালতগুলোতে ৭৫টি জরুরি নালিশী মামলা দায়ের, দীর্ঘদিন যাবত ঝুলে থাকা ১৫টি মামলায় রিমান্ড শুনানী ও ১০টি মামলায় জব্দনামা গ্রহণ এবং জামিনের আবেদনসহ মোট ৪৮২টি আবেদনের মধ্যে ৪৫৯টির শুনানী নিস্পত্তি হয় এবং ৩৭৯টি আবেদন মঞ্জুর ও ৮০টি নামঞ্জুর হয়। অন্যদিকে ভার্চুয়াল শুনানীতে এখানকার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসিতে নতুন মাত্রা যোগ হওয়ার বিষয়টি সারাদেশে রেকর্ড সৃষ্টি করায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থী মানুষসহ সচেতন মহল।

img-add

আদালতের সাথে সংশ্লিষ্ট একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, সরকার ও বিচার বিভাগের যুগান্তকারী পদক্ষেপ ভার্চুয়াল আদালতের আওতায় সারাদেশের মতো শেরপুরে ১২ মে থেকে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজতী আসামিদের জামিন শুনানী শুরু হয়। এরপর ওই প্রক্রিয়াটি চলমান থাকাবস্থায় ৩ জুন থেকে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এসএম হুমায়ুন কবীরের আগ্রহে এবং স্থানীয় আইনজীবীদের সহযোগিতায় জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসিতে সীমিত পরিসরে শুরু হয় ফৌজদারী মামলায় আসামিদের আত্মসমর্পণ ও জামিন শুনানী, নালিশী মামলা দায়ের, গুরুত্বপূর্ণ মামলায় গ্রেফতারকৃত আসামিদের রিমান্ড শুনানীসহ মামলায় জব্দকৃত আলামত গ্রহণের বিষয়ে শুনানী। এছাড়া ফৌজদারী মামলায় ১৬৪ ধারা মোতাবেক আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলায় ২২ ধারা মোতাবেক ভিকটিম বা সাক্ষীর জবানবন্দি রেকর্ডসহ ভিকটিমকে জিম্মায় নেওয়ার বিষয়েও চলছে শুনানী।
সূত্রের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শুরু (১১ মে) থেকে এ পর্যন্ত (১১ জুন) চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও অধস্তন আদালতগুলোতে জামিনের বিষয়ে মোট দায়েরকৃত ৮৪৫টি আবেদনের মধ্যে ৭৭৭টি আবেদনের শুনানী নিস্পত্তি হয়েছে। সেইসাথে মোট ২১৫টি আবেদন নাকচ হওয়ায় অবশিষ্ট ৫৬২ টি আবেদন মঞ্জুরক্রমে জামিন মিলেছে ৬৭৮ আসামির। এর মধ্যে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এসএম হুমায়ুন কবীর ও অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সুলতান মাহমুদের আদালতে  করা মোট ১৩৫টি আবেদনের মধ্যে ১৩০টি নিস্পত্তি সাপেক্ষে ৯৭টি মঞ্জুর ও ৩৩টি নামঞ্জুরক্রমে জামিন হয়েছে ১৭৭ আসামির। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ হুমায়ুন কবীর ও বেগম ফারিন ফারজানার আদালতে (ছুটিতে খাকা অপর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নাহিদ সুলতানার দায়িত্বসহ) করা ১৭৯টি আবেদনের মধ্যে ১৬৭টির নিস্পত্তিক্রমে ১৩৪টি মঞ্জুর ও ৩৩টি নামঞ্জুরক্রমে জামিন পেয়েছে ১১৬ জন আসামি। আর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহসিনা বেগম তুষি, মোহাম্মদ আল মামুন ও শরিফুল ইসলাম খানের আদালতে করা ২২৬টি আবেদনের মধ্যে ২১২টির শুনানীঅন্তে ১৬৭টি মঞ্জুর ও ৪৫টি নামঞ্জুরক্রমে জামিন হয়েছে ২১৫ আসামির।

এদিকে এর আগে ঈদের পূর্ব পর্যন্ত (২০ মে) একই আদালতগুলোতে ৭ কার্যদিবসে মোট জামিন পাওয়া আসামির সংখ্যা ছিলো ১৬৫ এবং সারেন্ডার নেওয়ার পূর্ব পর্যন্ত (২ জুন) ৫ কার্যদিবসে তার মোট সংখ্যা ছিল ১৯২। অর্থাৎ শুরু থেকে ১২ কার্যদিবসে মোট জামিনপ্রাপ্ত আসামির সংখ্যা যেখানে ছিল ১৯২ জন, সেখানে সারেন্ডার নেওয়া থেকে ১১ জুন পর্যন্ত ৭ কার্যদিবসে জামিন পেয়েছে প্রায় ৪৮৬ জন আসামি, যাতে কাজের পরিধি বাড়ার পাশাপাশি দ্বিগুণের বেশি বেড়েছে সুবিধাভোগীর সংখ্যা।

এ সংক্রান্ত আরও খবর

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শেরপুর সদর থানার ওসি মামুন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

» নালিতাবাড়ীতে বিলে মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে কিশোরের মৃত্যু

» Finite ও Non finite verb নিয়ে আলোচনা

» শেরপুরে র‌্যাবের হাতে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

» তারাকান্দার ইউএনওর করোনা পজিটিভ

» জামালপুরে বন্যার অবনতি, পানিতে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু

» নকলায় ব্রহ্মপুত্রের ভাঙন ॥ বিলীনের মুখে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

» শ্রীবরদীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

» শেরপুরে করোনায় সুস্থতার হার ৮১ ভাগ

» ঝিনাইগাতী মহিলা কলেজ অধ্যক্ষের সীমাহীন দুর্নীতি ॥ দীর্ঘদিন কর্মরত ২ প্রভাষক এমপিও বঞ্চিত!

» শেরপুরে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করলের সাবেক পৌর প্যানেল মেয়র

» দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দেড় লাখ ছাড়াল : নতুন মৃত্যু ৩৮

» দেশে প্রথম করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দাবি গ্লোব বায়োটেকের

» মিয়ানমারে খনিতে ভূমিধসে নিহত ১১৩

» নভেম্বরেই দৃশ্যমান হবে স্বপ্নের পদ্মা সেতু

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  রাত ২:১১ | শনিবার | ৪ঠা জুলাই, ২০২০ ইং | ২০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ভার্চুয়াল শুনানী ॥ শেরপুরে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসিতে ৭ কার্যদিবসে জামিন পেলো ৪৮৬ আসামি

১৯ কার্যদিবসে আবেদন শুনানী ৮৪৫, মোট জামিন ৬৭৮ আসামির

স্টাফ রিপোর্টার ॥ করোনা ভাইরাসজনিত পরিস্থিতিতে শেরপুরের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসিতে হাজতি আসামির জামিন শুনানীর পাশাপাশি ফৌজদারী মামলায় আসামিদের সারেন্ডার বা আত্মসমর্পণ শুরু হওয়ায় শেষ ৭ কার্যদিবসে হাজতি ও আত্মসমর্পণ মিলে জামিন পেয়েছেন মোট ৪৮৬ আসামি। ৩ জুন থেকে ১১ জুন বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সময়কালের মধ্যে জামিন পায় ওই আসামিরা। এছাড়া একই সময়ে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসিতে জেলার ৫ উপজেলার আমলী আদালতগুলোতে ৭৫টি জরুরি নালিশী মামলা দায়ের, দীর্ঘদিন যাবত ঝুলে থাকা ১৫টি মামলায় রিমান্ড শুনানী ও ১০টি মামলায় জব্দনামা গ্রহণ এবং জামিনের আবেদনসহ মোট ৪৮২টি আবেদনের মধ্যে ৪৫৯টির শুনানী নিস্পত্তি হয় এবং ৩৭৯টি আবেদন মঞ্জুর ও ৮০টি নামঞ্জুর হয়। অন্যদিকে ভার্চুয়াল শুনানীতে এখানকার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসিতে নতুন মাত্রা যোগ হওয়ার বিষয়টি সারাদেশে রেকর্ড সৃষ্টি করায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থী মানুষসহ সচেতন মহল।

img-add

আদালতের সাথে সংশ্লিষ্ট একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, সরকার ও বিচার বিভাগের যুগান্তকারী পদক্ষেপ ভার্চুয়াল আদালতের আওতায় সারাদেশের মতো শেরপুরে ১২ মে থেকে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজতী আসামিদের জামিন শুনানী শুরু হয়। এরপর ওই প্রক্রিয়াটি চলমান থাকাবস্থায় ৩ জুন থেকে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এসএম হুমায়ুন কবীরের আগ্রহে এবং স্থানীয় আইনজীবীদের সহযোগিতায় জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসিতে সীমিত পরিসরে শুরু হয় ফৌজদারী মামলায় আসামিদের আত্মসমর্পণ ও জামিন শুনানী, নালিশী মামলা দায়ের, গুরুত্বপূর্ণ মামলায় গ্রেফতারকৃত আসামিদের রিমান্ড শুনানীসহ মামলায় জব্দকৃত আলামত গ্রহণের বিষয়ে শুনানী। এছাড়া ফৌজদারী মামলায় ১৬৪ ধারা মোতাবেক আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলায় ২২ ধারা মোতাবেক ভিকটিম বা সাক্ষীর জবানবন্দি রেকর্ডসহ ভিকটিমকে জিম্মায় নেওয়ার বিষয়েও চলছে শুনানী।
সূত্রের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শুরু (১১ মে) থেকে এ পর্যন্ত (১১ জুন) চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও অধস্তন আদালতগুলোতে জামিনের বিষয়ে মোট দায়েরকৃত ৮৪৫টি আবেদনের মধ্যে ৭৭৭টি আবেদনের শুনানী নিস্পত্তি হয়েছে। সেইসাথে মোট ২১৫টি আবেদন নাকচ হওয়ায় অবশিষ্ট ৫৬২ টি আবেদন মঞ্জুরক্রমে জামিন মিলেছে ৬৭৮ আসামির। এর মধ্যে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এসএম হুমায়ুন কবীর ও অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সুলতান মাহমুদের আদালতে  করা মোট ১৩৫টি আবেদনের মধ্যে ১৩০টি নিস্পত্তি সাপেক্ষে ৯৭টি মঞ্জুর ও ৩৩টি নামঞ্জুরক্রমে জামিন হয়েছে ১৭৭ আসামির। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ হুমায়ুন কবীর ও বেগম ফারিন ফারজানার আদালতে (ছুটিতে খাকা অপর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নাহিদ সুলতানার দায়িত্বসহ) করা ১৭৯টি আবেদনের মধ্যে ১৬৭টির নিস্পত্তিক্রমে ১৩৪টি মঞ্জুর ও ৩৩টি নামঞ্জুরক্রমে জামিন পেয়েছে ১১৬ জন আসামি। আর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহসিনা বেগম তুষি, মোহাম্মদ আল মামুন ও শরিফুল ইসলাম খানের আদালতে করা ২২৬টি আবেদনের মধ্যে ২১২টির শুনানীঅন্তে ১৬৭টি মঞ্জুর ও ৪৫টি নামঞ্জুরক্রমে জামিন হয়েছে ২১৫ আসামির।

এদিকে এর আগে ঈদের পূর্ব পর্যন্ত (২০ মে) একই আদালতগুলোতে ৭ কার্যদিবসে মোট জামিন পাওয়া আসামির সংখ্যা ছিলো ১৬৫ এবং সারেন্ডার নেওয়ার পূর্ব পর্যন্ত (২ জুন) ৫ কার্যদিবসে তার মোট সংখ্যা ছিল ১৯২। অর্থাৎ শুরু থেকে ১২ কার্যদিবসে মোট জামিনপ্রাপ্ত আসামির সংখ্যা যেখানে ছিল ১৯২ জন, সেখানে সারেন্ডার নেওয়া থেকে ১১ জুন পর্যন্ত ৭ কার্যদিবসে জামিন পেয়েছে প্রায় ৪৮৬ জন আসামি, যাতে কাজের পরিধি বাড়ার পাশাপাশি দ্বিগুণের বেশি বেড়েছে সুবিধাভোগীর সংখ্যা।

এ সংক্রান্ত আরও খবর

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!