রাত ১:৩৮ | শনিবার | ৪ঠা জুলাই, ২০২০ ইং | ২০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ভারত মহাসাগরের টেকটনিক প্লেট ভেঙে দু’টুকরা, ভয়াবহ ভূমিকম্পের আশঙ্কা

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : সত্যিই বিষধর বিশ! ২০২০ সালে যে আরও কত ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে কে জানে! এবার জানা যাচ্ছে, ভারত মহাসাগরের নিচে বিশাল টেকটনিক প্লেট ভেঙে দুটুকরো হয়ে গিয়েছে। আর তাই ভবিষ্যতে ভয়াবহ ভূমিকম্পের আশঙ্কা করছে বিজ্ঞানীরা।
বিজ্ঞান বিষয়ক ওয়েবসাইট লাইভ সায়েন্সে জানিয়েছে, ভারত-অস্ট্রেলিয়ার মকরাঞ্চলের ওই প্লেট প্রত্যেক বছর ০.০৬ মিলিমিটার করে দূরে সরে যাচ্ছে। আট বছর আগে একবার ভারত মহাসাগরের নিচে ভূমিকম্প হয়েছিল। তার পর থেকেই ওই প্লেট—এর এমন পরিবর্তন লক্ষ্য করছেন বিজ্ঞানীরা।
আপাতদৃষ্টিতে দেখলে এই দুটি প্লেট—এর দূরে সরে যাওয়ার গতি খুবই ধীর। এই গতিতে চলতে থাকলে এক মাইল দূর যেতে দুটি প্লেট—এর ১০ লাখ বছর সময় লাগার কথা। কিন্তু পুরো প্রক্রিয়াটাই ঘটছে পানির তলায়। ফলে ঠিক কী কী পরিবর্তন চলছে তা সবসময় নজরে রাখা সম্ভব হচ্ছে না।
দুটি প্লটের আলাদা হয়ে যাওয়ার গতি কম হলেও বিজ্ঞানীরা চিন্তায় রয়েছেন। কারণ এভাবে প্লেট সরে যাওয়াই ভূমিকম্পের কারণ হতে পারে। তবে অদূর ভবিষ্যতেই যে বড়সড় কোনও ভূমিকম্প হবে তা নিয়ে নিশ্চিতভাবে কিছু বলছেন না বিজ্ঞানীরা।
গবেষক অরলি কৌদুরিয়ার-কার্ভুর যেমন জানিয়েছেন, অন্য গ্রহের বাউন্ডারির তুলনায় এটি গুরুত্বপূর্ণ আমাদের কাছে। সবটাই ঘটছে পানির নিচে। পানির এত গভীরে সব পরিবর্তন ঘটছে। তাই সব সময় সব পরিবর্তন আমাদের নজরেও পড়ছে না। তবে দুটি প্লেট ভেঙে দুটুকরো হয়েছে। আর সেগুলি ক্রমশ পরস্পরের থেকে সরছে। গতি অবশ্য অনেকটাই কম।
বিশ্ব উষ্ণায়ন থেকে শুরু করে দূষণ, একের পর এক কারণে এমনিতেই পৃথিবীর ভবিষ্যত নিয়ে বারবার উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন পরিবেশবিদরা। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই দুই প্লটের সরে যাওয়ার ফলে ২০ হাজার বছর পর পৃথিবীতে ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ দেখা দিতে পারে। জিনিউজ

এ সংক্রান্ত আরও খবর

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শেরপুর সদর থানার ওসি মামুন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

» নালিতাবাড়ীতে বিলে মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে কিশোরের মৃত্যু

» Finite ও Non finite verb নিয়ে আলোচনা

» শেরপুরে র‌্যাবের হাতে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

» তারাকান্দার ইউএনওর করোনা পজিটিভ

» জামালপুরে বন্যার অবনতি, পানিতে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু

» নকলায় ব্রহ্মপুত্রের ভাঙন ॥ বিলীনের মুখে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

» শ্রীবরদীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

» শেরপুরে করোনায় সুস্থতার হার ৮১ ভাগ

» ঝিনাইগাতী মহিলা কলেজ অধ্যক্ষের সীমাহীন দুর্নীতি ॥ দীর্ঘদিন কর্মরত ২ প্রভাষক এমপিও বঞ্চিত!

» শেরপুরে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করলের সাবেক পৌর প্যানেল মেয়র

» দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দেড় লাখ ছাড়াল : নতুন মৃত্যু ৩৮

» দেশে প্রথম করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দাবি গ্লোব বায়োটেকের

» মিয়ানমারে খনিতে ভূমিধসে নিহত ১১৩

» নভেম্বরেই দৃশ্যমান হবে স্বপ্নের পদ্মা সেতু

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  রাত ১:৩৮ | শনিবার | ৪ঠা জুলাই, ২০২০ ইং | ২০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ভারত মহাসাগরের টেকটনিক প্লেট ভেঙে দু’টুকরা, ভয়াবহ ভূমিকম্পের আশঙ্কা

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : সত্যিই বিষধর বিশ! ২০২০ সালে যে আরও কত ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে কে জানে! এবার জানা যাচ্ছে, ভারত মহাসাগরের নিচে বিশাল টেকটনিক প্লেট ভেঙে দুটুকরো হয়ে গিয়েছে। আর তাই ভবিষ্যতে ভয়াবহ ভূমিকম্পের আশঙ্কা করছে বিজ্ঞানীরা।
বিজ্ঞান বিষয়ক ওয়েবসাইট লাইভ সায়েন্সে জানিয়েছে, ভারত-অস্ট্রেলিয়ার মকরাঞ্চলের ওই প্লেট প্রত্যেক বছর ০.০৬ মিলিমিটার করে দূরে সরে যাচ্ছে। আট বছর আগে একবার ভারত মহাসাগরের নিচে ভূমিকম্প হয়েছিল। তার পর থেকেই ওই প্লেট—এর এমন পরিবর্তন লক্ষ্য করছেন বিজ্ঞানীরা।
আপাতদৃষ্টিতে দেখলে এই দুটি প্লেট—এর দূরে সরে যাওয়ার গতি খুবই ধীর। এই গতিতে চলতে থাকলে এক মাইল দূর যেতে দুটি প্লেট—এর ১০ লাখ বছর সময় লাগার কথা। কিন্তু পুরো প্রক্রিয়াটাই ঘটছে পানির তলায়। ফলে ঠিক কী কী পরিবর্তন চলছে তা সবসময় নজরে রাখা সম্ভব হচ্ছে না।
দুটি প্লটের আলাদা হয়ে যাওয়ার গতি কম হলেও বিজ্ঞানীরা চিন্তায় রয়েছেন। কারণ এভাবে প্লেট সরে যাওয়াই ভূমিকম্পের কারণ হতে পারে। তবে অদূর ভবিষ্যতেই যে বড়সড় কোনও ভূমিকম্প হবে তা নিয়ে নিশ্চিতভাবে কিছু বলছেন না বিজ্ঞানীরা।
গবেষক অরলি কৌদুরিয়ার-কার্ভুর যেমন জানিয়েছেন, অন্য গ্রহের বাউন্ডারির তুলনায় এটি গুরুত্বপূর্ণ আমাদের কাছে। সবটাই ঘটছে পানির নিচে। পানির এত গভীরে সব পরিবর্তন ঘটছে। তাই সব সময় সব পরিবর্তন আমাদের নজরেও পড়ছে না। তবে দুটি প্লেট ভেঙে দুটুকরো হয়েছে। আর সেগুলি ক্রমশ পরস্পরের থেকে সরছে। গতি অবশ্য অনেকটাই কম।
বিশ্ব উষ্ণায়ন থেকে শুরু করে দূষণ, একের পর এক কারণে এমনিতেই পৃথিবীর ভবিষ্যত নিয়ে বারবার উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন পরিবেশবিদরা। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই দুই প্লটের সরে যাওয়ার ফলে ২০ হাজার বছর পর পৃথিবীতে ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ দেখা দিতে পারে। জিনিউজ

এ সংক্রান্ত আরও খবর

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!