রাত ৪:৫৭ | শুক্রবার | ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং | ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বেতন বাড়লো পৌনে ৪ লাখ শিক্ষকের

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের বেতন বাড়লো। বেতন বাড়ানোর ফলে ওই শিক্ষকরা এখন জাতীয় বেতন স্কেলের ১৩তম গ্রেডে (১১ হাজার টাকার স্কেল) বেতন পাবেন। সারাদেশের ৩ লাখ ৭৫ হাজার শিক্ষকের বেতন বাড়িয়ে ৯ ফেব্রুয়ারী রবিবার আদেশ জারি করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

img-add

বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন সমকালকে বলেন, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতন বাড়ানো হয়েছে। এতোদিন সহকারী শিক্ষকদের মধ্যে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরা ১৪তম গ্রেডে (১০ হাজার ২০০ টাকা) এবং প্রশিক্ষণবিহীনরা ১৫তম গ্রেডে (৯ হাজার ৭০০ টাকা) বেতন পেতেন।

সচিব বলেন, বর্তমান সরকারের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি ছিল প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন সম্মানজনক গ্রেডে নেওয়া। সেটির বাস্তবায়ন করা হলো। সরকারের আন্তরিক প্রচেষ্টার কারণে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বেড়েছে। নতুন এই বেতন স্কেল শিক্ষকদের জীবনমান আরও উন্নত করবে এবং সামগ্রিকভাবে তা শিক্ষার জন্য ইতিবাচক ফল বয়ে আনবে বলে মনে করি।

তিনি জানান, শিগগিরই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের বেতনও বাড়ানো হবে। তাদের বেতন সংক্রান্ত একটি মামলা আদালতে চলমান। সেটি নিষ্পত্তি হলেই তাদের বেতনও বাড়বে।

তবে বেতন বাড়ানোর এ পদক্ষেপে খুব বেশি সন্তুষ্ট হতে পারেননি শিক্ষকরা। কারণ, তাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী বাড়েনি বেতন। এ নিয়ে শিক্ষকদের মাঝে হতাশাও রয়েছে। সহকারী শিক্ষকরা চেয়েছিলেন তাদের বেতন স্কেল ১১তম গ্রেডে (১২ হাজার ৫০০ টাকা) উন্নীত করা হোক। তবে অর্থ মন্ত্রণালয় এ প্রস্তাবে সায় দেয়নি।

উল্লেখ্য, বেতন স্কেল উন্নীতকরণের দাবিতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছেন। গত নভেম্বরে তারা বেতন বাড়ানোর দাবিতে ২০১৯ সালের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা (পিইসি) বর্জনেরও ডাক দিয়েছিলেন। তবে সরকারের সঙ্গে আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে তারা সে কর্মসূচি স্থগিত করেন। অবশেষে রোববার তাদের বেতন বাড়ানোর এই আদেশ জারি হলো।

বেতন বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলনরত দেশের ১৪টি প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত ‘বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদে’র সদস্য-সচিব ও সহকারী শিক্ষক সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ শামসুদ্দিন মাসুদ সমকালকে বলেন, আমরা এতে সন্তুষ্ট নই। খুব শিগগিরই আমরা সব সংগঠন মিলে বসে আলাপ-আলোচনা করে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করবো।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষকদের সর্বশেষ বেতন বাড়ানো হয়েছিল ২০১২ সালের ৯ মার্চ। তখন সহকারী শিক্ষকদের বেতন এক ধাপ বাড়িয়ে ১৫তম থেকে ১৪তম গ্রেডে উন্নীত করা হয়েছিল।

বর্তমানে সারাদেশে ৬৫ হাজার ৯০২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এগুলোকে ৩ লাখ ৭৫ হাজার সহকারী শিক্ষক ও ৪২ হাজার প্রধান শিক্ষক রয়েছে। প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য থাকা বাকি বিদ্যালয়গুলোতে চলতি দায়িত্ব দিয়ে চালানো হচ্ছে। এবছর বেতন বাড়লে সহকারী ও প্রধান শিক্ষক, সবমিলিয়ে প্রায় পৌনে চার লাখ শিক্ষক এ সুবিধা পাবেন।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. শামছুদ্দিন মাসুদ সমকালকে বলেন, পদ অনুযায়ী প্রধান শিক্ষকদের নিচের ধাপে সহকারী শিক্ষকদের অবস্থান। অথচ, এতদিন প্রধান শিক্ষকদের বেতন স্কেল ১১তম গ্রেডে, সহকারী শিক্ষকদের বেতন ১৪তম গ্রেডে রাখা হয়েছে। এটি বৈষম্য। তাই আমাদের দাবি প্রধান শিক্ষকদের বেতন ১০তম গ্রেডে নিয়ে আমাদের বেতন গ্রেড ১১তম ধাপে নির্ধারণ করা হোক।

অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» শেরপুর জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি হলেন ফেরদৌসী, সম্পাদক মুরাদ

» শেরপুরে হুইপ আতিকের বিরুদ্ধে প্রকাশিত খবরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ

» শেরপুরে যুব রেড ক্রিসেন্টের উদ্যোগে পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত

» করোনা আতঙ্কে সৌদিতে ওমরাহ যাত্রীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

» পাইকারি ও খুচরা পর্যায়ে বাড়ল বিদ্যুতের দাম

» খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন ফের নাকচ

» শেরপুরে জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন

» ঝিনাইগাতীতে ভালুকা কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত

» তারকা ক্রিকেটার সৌম্য-প্রিয়ন্তির প্রেমের গল্প

» জয়ের জন্যই খেলতে নামব আমরা : জাহানারা

» দিল্লির দাঙ্গা নিয়ে মমতা ব্যানার্জির কবিতা ‘নরক’

» হৃত্বিককে নিয়ে সৌরভ গাঙ্গুলির বায়োপিক!

» সিলেটে পৌঁছেছে জিম্বাবুয়ে, সন্ধ্যায় আসছে বাংলাদেশ

» মশা আপনাদের ভোট যেন খেয়ে না ফেলে : শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী

» অরবিয়া তানজীল নিশি’র গদ্য ‘অপূর্ণতা’

সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

  রাত ৪:৫৭ | শুক্রবার | ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং | ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বেতন বাড়লো পৌনে ৪ লাখ শিক্ষকের

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের বেতন বাড়লো। বেতন বাড়ানোর ফলে ওই শিক্ষকরা এখন জাতীয় বেতন স্কেলের ১৩তম গ্রেডে (১১ হাজার টাকার স্কেল) বেতন পাবেন। সারাদেশের ৩ লাখ ৭৫ হাজার শিক্ষকের বেতন বাড়িয়ে ৯ ফেব্রুয়ারী রবিবার আদেশ জারি করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

img-add

বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন সমকালকে বলেন, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতন বাড়ানো হয়েছে। এতোদিন সহকারী শিক্ষকদের মধ্যে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরা ১৪তম গ্রেডে (১০ হাজার ২০০ টাকা) এবং প্রশিক্ষণবিহীনরা ১৫তম গ্রেডে (৯ হাজার ৭০০ টাকা) বেতন পেতেন।

সচিব বলেন, বর্তমান সরকারের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি ছিল প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন সম্মানজনক গ্রেডে নেওয়া। সেটির বাস্তবায়ন করা হলো। সরকারের আন্তরিক প্রচেষ্টার কারণে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বেড়েছে। নতুন এই বেতন স্কেল শিক্ষকদের জীবনমান আরও উন্নত করবে এবং সামগ্রিকভাবে তা শিক্ষার জন্য ইতিবাচক ফল বয়ে আনবে বলে মনে করি।

তিনি জানান, শিগগিরই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের বেতনও বাড়ানো হবে। তাদের বেতন সংক্রান্ত একটি মামলা আদালতে চলমান। সেটি নিষ্পত্তি হলেই তাদের বেতনও বাড়বে।

তবে বেতন বাড়ানোর এ পদক্ষেপে খুব বেশি সন্তুষ্ট হতে পারেননি শিক্ষকরা। কারণ, তাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী বাড়েনি বেতন। এ নিয়ে শিক্ষকদের মাঝে হতাশাও রয়েছে। সহকারী শিক্ষকরা চেয়েছিলেন তাদের বেতন স্কেল ১১তম গ্রেডে (১২ হাজার ৫০০ টাকা) উন্নীত করা হোক। তবে অর্থ মন্ত্রণালয় এ প্রস্তাবে সায় দেয়নি।

উল্লেখ্য, বেতন স্কেল উন্নীতকরণের দাবিতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছেন। গত নভেম্বরে তারা বেতন বাড়ানোর দাবিতে ২০১৯ সালের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা (পিইসি) বর্জনেরও ডাক দিয়েছিলেন। তবে সরকারের সঙ্গে আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে তারা সে কর্মসূচি স্থগিত করেন। অবশেষে রোববার তাদের বেতন বাড়ানোর এই আদেশ জারি হলো।

বেতন বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলনরত দেশের ১৪টি প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত ‘বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদে’র সদস্য-সচিব ও সহকারী শিক্ষক সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ শামসুদ্দিন মাসুদ সমকালকে বলেন, আমরা এতে সন্তুষ্ট নই। খুব শিগগিরই আমরা সব সংগঠন মিলে বসে আলাপ-আলোচনা করে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করবো।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষকদের সর্বশেষ বেতন বাড়ানো হয়েছিল ২০১২ সালের ৯ মার্চ। তখন সহকারী শিক্ষকদের বেতন এক ধাপ বাড়িয়ে ১৫তম থেকে ১৪তম গ্রেডে উন্নীত করা হয়েছিল।

বর্তমানে সারাদেশে ৬৫ হাজার ৯০২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এগুলোকে ৩ লাখ ৭৫ হাজার সহকারী শিক্ষক ও ৪২ হাজার প্রধান শিক্ষক রয়েছে। প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য থাকা বাকি বিদ্যালয়গুলোতে চলতি দায়িত্ব দিয়ে চালানো হচ্ছে। এবছর বেতন বাড়লে সহকারী ও প্রধান শিক্ষক, সবমিলিয়ে প্রায় পৌনে চার লাখ শিক্ষক এ সুবিধা পাবেন।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. শামছুদ্দিন মাসুদ সমকালকে বলেন, পদ অনুযায়ী প্রধান শিক্ষকদের নিচের ধাপে সহকারী শিক্ষকদের অবস্থান। অথচ, এতদিন প্রধান শিক্ষকদের বেতন স্কেল ১১তম গ্রেডে, সহকারী শিক্ষকদের বেতন ১৪তম গ্রেডে রাখা হয়েছে। এটি বৈষম্য। তাই আমাদের দাবি প্রধান শিক্ষকদের বেতন ১০তম গ্রেডে নিয়ে আমাদের বেতন গ্রেড ১১তম ধাপে নির্ধারণ করা হোক।

সর্বশেষ খবর



অন্যান্য খবর



সম্পাদক-প্রকাশক : রফিকুল ইসলাম আধার
উপদেষ্টা সম্পাদক : সোলায়মান খাঁন মজনু
নির্বাহী সম্পাদক : মোহাম্মদ জুবায়ের রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১ : ফারহানা পারভীন মুন্নী
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : আলমগীর কিবরিয়া কামরুল
বার্তা সম্পাদক-১ : রেজাউল করিম বকুল
বার্তা সম্পাদক-২ : মোঃ ফরিদুজ্জামান।
যোগাযোগ : সম্পাদক : ০১৭২০০৭৯৪০৯
নির্বাহী সম্পাদক : ০১৯১২০৪৯৯৪৬
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-১: ০১৭১৬৪৬২২৫৫
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-২ : ০১৭১৪২৬১৩৫০
বার্তা সম্পাদক-১ : ০১৭১৩৫৬৪২২৫
বার্তা সম্পাদক -২ : ০১৯২১-৯৫৫৯০৬
বিজ্ঞাপন : ০১৭১২৮৫৩৩০৩
ইমেইল : shamolbangla2013@gmail.com.

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইট তৈরি করেছে- BD iT Zone

error: Content is protected !!