প্রকাশকাল: 18 জুন, 2018

ফেসবুকে খবর পড়া কমছে, বাড়ছে হোয়াটসঅ্যাপে

শ্যামলবাংলা ডেস্ক: ফেসবুকের মতো সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম থেকে খবর পড়ার হার কমে ধীরে ধীরে হোয়াটসঅ্যাপের মতো মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশনগুলোয় বেড়ে যাচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার দ্য রয়টার্স ইনস্টিটিউটের করা এ-সংক্রান্ত গবেষণা তথ্য প্রকাশিত হয়। তাতে বলা হয়, অনলাইনে ভুয়া খবর ছড়ানো নিয়ে সারা বিশ্বের মানুষের মধ্যে অনেক বেশি উদ্বেগ দেখা যাচ্ছে।

রয়টার্স ইনস্টিটিউটের প্রতিবেদনে বলা হয়, পাঁচটি মহাদেশের ৩৭টি দেশের মানুষের মধ্যে গবেষণা চালানো হয়। তাতে দেখা যায়, যুক্তরাষ্ট্রে গত বছরের তুলনায় এ বছর খবরের জন্য সামাজিক যোগাযোগের ব্যবহার ৬ শতাংশ কমে গেছে।

গবেষণা নিবন্ধের প্রধান লেখক নিক নিউম্যান বলেছেন, ফেসবুকে খবর খুঁজে পাওয়া, পোস্ট করা ও শেয়ার করার হার কমে যাওয়ায় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মানুষের খবর গ্রহণের হার কমে গেছে।

এ ছাড়া চলতি বছরের শুরুতেই ফেসবুকের কাছ থেকে বিশাল ব্যক্তিগত তথ্য বেহাত হওয়ার ঘটনার পর বড় ধরনের সমস্যায় পড়েছে ফেসবুক। ওই কেলেঙ্কারির কারণে বিশ্বজুড়ে অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী এ সাইট থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন। এখন অনেকেই হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রামের মতো সাইটে বেশি সময় দিচ্ছেন। অবশ্য এ অ্যাপগুলোর মালিকানাও ফেসবুকের হাতে।

রয়টার্স ইনস্টিটিউটের ‘দ্য ২০১৮ ডিজিটাল নিউজ রিপোর্ট’ অনুযায়ী, তারা যে নমুনা নিয়ে গবেষণা করেছিল, তার মধ্যে মালয়েশিয়ায় প্রায় অর্ধেকের বেশি মানুষ (৫৪%) খবরের জন্য হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করছেন। এরপর রয়েছে ব্রাজিল (৪৮%), স্পেন (৩৬%) ও তুরস্ক (৩০%)।

গবেষণার জন্য ৭৪ হাজার অনলাইন পাঠককে নিয়ে একটি সমীক্ষা চালায় জরিপকারী প্রতিষ্ঠান ইউগভ। এ সমীক্ষার তথ্য নিয়ে গবেষণা করেছে রয়টার্স ইনস্টিটিউট। এতে দেখা গেছে, এশিয়া ও দক্ষিণ আমেরিকায় ইনস্টাগ্রাম জনপ্রিয় হচ্ছে আর ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রে জনপ্রিয় হচ্ছে স্ন্যাপচ্যাট। তবে খবরে বিশ্বাসযোগ্যতার ক্ষেত্রে এ বছর গড় প্রায় স্থিতিশীল রয়েছে। গত বছরে খবরে বিশ্বাসযোগ্যতার গড় ছিল ৪৩ শতাংশ, যা এ বছর ৪৪ শতাংশ হয়েছে।

সমীক্ষায় দেখা গেছে, ইন্টারনেটে সঠিক, নাকি ভুয়া খবর, সে ক্ষেত্রে ৫৪ শতাংশের বেশি মানুষ সচেতন থাকেন। এর মধ্যে ব্রাজিলের ৮৫ শতাংশ মানুষ সচেতন আর সবচেয়ে কম সচেতন (৩০%) নেদারল্যান্ডসের মানুষ।

সমীক্ষায় অধিকাংশ মানুষ মত দিয়েছেন, খবর প্রকাশক ও প্ল্যাটফর্মকে ভুয়া ও অবিশ্বাসযোগ্য খবর প্রকাশ ঠিক করার ক্ষেত্রে দায়দায়িত্ব নিতে হবে। ইউরোপে ৬০ শতাংশ, এশিয়ায় ৬৩ শতাংশ আর যুক্তরাষ্ট্রে ৪১ শতাংশ মানুষ মনে করেন, ভুয়া খবর ঠেকানোর ক্ষেত্রে সরকারের আরও অনেক কিছু করার আছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, খবর পাওয়ার ক্ষেত্রে ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হচ্ছে পডকাস্ট। যুক্তরাষ্ট্রে ৩৩ শতাংশ ও যুক্তরাজ্যে ১৮ শতাংশ মানুষ পডকাস্ট ব্যবহারের কথা জানান।

আপনার মতামত দিন

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

অবাধে মাছ নিধন অমানবিক নির্যাতনে শিশুর মৃত্যু আত্মহত্যা আহত ইয়াবা উদ্ধার উড়াল সড়ক খুন গাছে বেঁধে নির্যাতন গাছের চারা বিতরণ ঘূর্ণিঝড় 'কোমেন' চাঁদা না পেয়ে স্কুলে হামলা ছিটমহল জাতির জনকের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জাতীয় শোক দিবস জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ ঝিনাইগাতী টেস্ট ড্র ড. গোলাম রহমান রতন পাঞ্জাবের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিহত প্রত্যেক বিভাগে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রধানমন্ত্রী বন্যহাতির তান্ডব বন্যহাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে নিহত বাল্যবিয়ের হার ভেঙে গেছে ব্রিজ মতিয়া চৌধুরী মাদারীপুর মির্জা ফখরুলের মেডিকেল রিপোর্ট রিমান্ডে লাশ উদ্ধার শাবলের আঘাতে শিশু খুন শাহ আলম বাবুল শিশু রাহাত হত্যা শেরপুর শেরপুরে অপহরণ শেরপুরে বন্যা শেরপুরের নবাগত জেলা প্রশাসক শ্যামলবাংলা২৪ডটকম’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সংঘর্ষে নিহত ৫ স্কুলছাত্র রাহাত হত্যা স্কুলছাত্রী অপহরণ হাতি বন্ধু কর্মশালা হুইপ আতিক হুমকি ২ স্কুলছাত্রী হত্যা
error: Content is protected !!