প্রকাশকাল: 31 ডিসেম্বর, 2018

ফেসবুকের বড় বড় কাজ পাচ্ছে ভারতীয় কোম্পানিগুলো

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : ফেসবুকের এখন সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে তাদের প্ল্যাটফর্মে ভুয়া খবর ছড়িয়ে পড়া ঠেকানো। বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন দেশে সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে বিশ্বের বৃহত্তম সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমটিকে। তাদের এ সমস্যা সমাধানে এবার ভারতের কয়েকটি তথ্যপ্রযুক্তি কোম্পানিকে কাজ দিচ্ছে ফেসবুক।
ভারতের গ্যাজেটস নাউ ডটকমের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এইচসিএল টেকনোলজিস, উইপ্রো ও টেক মাহিন্দ্রাকে কনটেন্ট মডারেশন বা ফেসবুকের বিভিন্ন কনটেন্ট সম্পাদনার জন্য কাজ দিতে যাচ্ছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। এসব প্রতিষ্ঠানকে আউটসোর্সিং কাজ হিসেবে কনটেন্ট সম্পাদনার কাজ দেওয়া হতে পারে।
ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এখন থেকে ভারতীয় প্রতিষ্ঠানগুলো ফেসবুকের কনটেন্ট সম্পাদনার পাশাপাশি তথ্য বিশ্লেষণ বা ডেটা অ্যানালাইসিস, ফেসবুক প্ল্যাটফর্মে মানি লন্ডারিংবিরোধী কার্যক্রম চালাবে। বিশ্বজুড়ে ফেসবুক প্ল্যাটফর্মে গুজব ও প্রতারণা বেড়ে যাওয়ায় সমালোচনা ঠেকাতে ফেসবুক এ পদক্ষেপ নিচ্ছে।
কয়েক মাস আগে ধরেই ভারতীয় কোম্পানি জেনপ্যাক্ট ও অ্যাকসেঞ্চারে সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়িয়েছে ফেসবুক। ভারতীয় একটি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ভারতীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে ৪০ কোটি মার্কিন ডলারেরও বেশি অর্থমূল্যের চুক্তি করেছে ফেসবুক। শুরুতে প্রযুক্তির প্রয়োগ ঘটিয়ে এ সমস্যার সমাধান করতে চেয়েছিল ফেসবুক। কিন্তু তাতে সমস্যা সমাধান না হওয়ায় এখন ভারতীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর বিভিন্ন কর্মীর মাধ্যমে ভুয়া খবর ধরার কাজ করতে চাইছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।
ফেসবুকের সঙ্গে চুক্তির বিষয়ে অবশ্য ফেসবুক বা ভারতের কোনো প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা বা কোনো মন্তব্য করা হয়নি।
২০১৬ সালে মার্কিন নির্বাচনে ফেসবুক থেকে তথ্য নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে কাজে লাগানোর অভিযোগ ওঠে যুক্তরাজ্যের নির্বাচনী পরামর্শক প্রতিষ্ঠান কেমব্রিজ অ্যানালিটিকার বিরুদ্ধে। পরে যা কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা কেলেঙ্কারি নামে পরিচিত হয়ে ওঠে। ওই ঘটনায় ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গের বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় ওঠে। ফেসবুকের নিরাপত্তা নিশ্চিত ও কনটেন্ট পর্যালোচনার জন্য ২০ হাজার কর্মী নিয়োগের পরিকল্পনার কথা জানান জাকারবার্গ।
ভারতে ভুয়া খবর ছড়ানো ঠেকাতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের ওপর চাপ প্রয়োগ করে এবং এ বিষয়ে উদ্বেগ জানায় দেশটির সরকার। দেশটিতে ২৯ কোটি ৪০ লাখ ফেসবুক ব্যবহারকারী রয়েছে, যা বিশ্বের মধ্যে সর্বোচ্চ।

আপনার মতামত দিন

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

error: Content is protected !!