প্রকাশকাল: 9 আগস্ট, 2018

ফের মহাকাশ যাত্রায় সুনীতা

শ্যামলবাংলা ডেস্ক : আট বছর পর আবারও নিজ দেশের যানে মহাকাশে মানুষ পাঠাবে আমেরিকা। যাবেন নয় মার্কিন নাগরিক। মহাকাশে ৩২১ ঘণ্টা কাটানো, ভারতীয় বংশোদ্ভূত সুনীতা ইউলিয়ামস তাদের মধ্যে অন্যতম।
নাসার নিজস্ব ফেরি যান শেষবার যাত্রা করেছিল ২০১১ সালে। এরপর থেকে গত সাত বছরে প্রতিবারই রুশ মহাকাশযান সোয়ুজ়ে চেপে আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে পাড়ি দিয়েছেন মার্কিন নভোচারীরা।
নাসা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, আট বছর পর তারা শুধু মার্কিন মহাকাশচারীদের নিয়ে আমেরিকার নিজস্ব মহাকাশযান পাঠাতে চলেছে। তবে এবার আর নিজেদের তৈরি নয়, বাণিজ্যিক সংস্থা বোয়িং ও স্পেসএক্সের তৈরি দু’টি যান পাঠাবে নাসা। মহাকাশযান দু’টির নাম ‘বোয়িং সিএসটি-১০০ স্টারলাইনার’ এবং ‘স্পেসএক্স ড্রাগন ক্যাপসুলস।’ ২০১৯ সালের শেষে যাত্রা করবে মহাকাশযান দু’টি।
নাসা জানিয়েছে, তাদের আট মহাকাশচারী ও এক অবসরপ্রাপ্ত মাহাকাশচারী থাকছেন যান দু’টিতে। ৫২ বছরের সুনীতা থাকছেন ‘বোয়িং সিএসটি-১০০ স্টারলাইনার’-এ। এটিকে অ্যাটলাস ৫ রকেটে ফ্লোরিডার কেপ ক্যানাভেরাল এয়ারফোর্স স্টেশন থেকে পাঠানো হবে। সুনীতার সঙ্গে থাকছেন জোস ক্যাসাডা। মহাকাশযাত্রায় জোস আনকোরা হলেও দুই দফায় ৩২১ দিন মহাকাশে থেকেছেন সুনীতা। সাবেক মহাকাশচারী ও বর্তমানে বোয়িংয়ের শীর্ষকর্তা ক্রিস্টোফার ফার্গুসনও থাকছেন তাদের সঙ্গে। স্টারলাইনার তৈরির প্রথম থেকেই জড়িয়ে রয়েছেন ক্রিস্টোফার।
‘স্পেসএক্স ড্রাগন ক্যাপসুলস’-এ থাকছেন রবার্ট বেনকেন ও ডগলাস হার্লে। এটিকে স্পেসএক্স ফ্যালকন ৯ রকেটে কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে পাঠানো হবে। ২০১১ সালের জুলাইয়ে শেষবার এখান থেকে পাঠানো হয়েছিল নাসার মহাকাশ ফেরি যান।
নয়জন মহাকাশচারীর জন্য নতুন স্পেসস্যুট বানানোর পাশাপাশি লঞ্চপ্যাডগুলোর আধুনিকীকরণও করছে ওই বাণিজ্যিক সংস্থা দু’টি। সূত্র: এনডিটিভি

আপনার মতামত দিন

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

error: Content is protected !!